‘রাতে দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকতে পারেন না মোবাইল কোর্ট’

Send
বাহাউদ্দিন ইমরান
প্রকাশিত : ১২:১৫, মার্চ ১৪, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৩:০০, মার্চ ১৪, ২০২০

ভ্রাম্যমাণ আদালত

অনলাইন নিউজ পোর্টাল বাংলা ট্রিবিউনের কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি আরিফুল ইসলামের বাড়িতে শুক্রবার (১৩ মার্চ) মধ্যরাতে দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকে তাকে ধরে নিয়ে এক বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে জেলা প্রশাসনের মোবাইল কোর্ট (ভ্রাম্যমাণ আদালত)। সাংবাদিকের আরিফের বাড়িতে আধা বোতল মদ আর দেড়শ গ্রাম গাঁজা পাওয়ার দাবিতে তাকে এই সাজা দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। তবে তারা কোনও তল্লাশি অভিযান চালাননি। প্রশ্ন উঠেছে রাতে দরজা ভেঙে মোবাইল কোর্ট ঘরে ঢুকতে কিনা তা নিয়ে। এ বিষয়ে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী হাসান এমএস আজিম বলেন,  রাতে পুলিশ যেতে পারে তবে ভ্রাম্যমাণ আদালতের এভাবে যেতে পারেন না।

আইনজীবী হাসান এমএস আজিম বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘ভ্রাম্যমাণ আদালত আইনে সাজা প্রদানের বিষয়ে কোনও সময়ের উল্লেখ নেই। তবে এ বিষয়ে উচ্চ আদালতের রায় রয়েছে। ভ্রাম্যমাণ আদালত তো আর রাতের বেলা পরিচালনা করতে পারেন না। রাতের বেলা পুলিশ যেতে পারে। আদালত রাতে যেতে পারেন না। এমনকি ঘরের দরজা ভেঙেও ঢুকতে পারেন না। তবে ভ্রাম্যমাণ আদালত চাইলে সিলগালা করে দিয়ে আসতে পারেন। পরে আইন প্রনয়ণকারী সংস্থা গিয়ে ব্যবস্থা নেবে। কিন্তু এভাবে ভ্রাম্যমাণ আদালত ঘর ভেঙে ঢুকবে তাও আবার রিপোর্ট প্রকাশকে কেন্দ্র করে। এটা তো কাকতালীয় কোনও ঘটনা না। এখানে রিপোর্ট প্রকাশের সঙ্গে ডিসির সাজা প্রদানের বিষয়ে কোনও যোগসূত্র থাকতেই পারে, সে সম্ভাবনা আমি দেখছি। সার্বিকভাবে এমন ঘটনা আইনের বিধিবিধানের সুস্পষ্ট পরিপন্থী।’

তিনি আরও বলেন, ‘অর্ধেক বোতল মদ এবং দেড়শ গ্রাম গাঁজার জন্য যে একবছরের সাজা দেওয়া হয়েছে এটাই যথাযুক্ত হয়নি বলে মনে করি। এ ধরনের সাজা প্রদান কখনোই পেশাদারিত্ব নয় বরং উচ্চ মাত্রার অপেশাদারিত্ব।’

এক প্রশ্নের জবাবে হাসান আজিম আরও বলেন, ‘আইনত যেখানে অপরাধীকে পাওয়া যাবে সেখানেই সাজা দিতে হয়। কিন্তু বাসা থেকে ধরে নিয়ে গিয়ে যদি ডিসি অফিসে সাজা দেওয়া হয় তাহলে তা অবৈধ হবে। ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচার মানে তাৎক্ষণিক অপরাধের স্থানেই বিচার দিতে হয়। হাইকোর্টের বেশ কিছু মামলায় এমন অসংখ্য নজির রয়েছে।’

আরও পড়ুন:

আরিফের ওপর অন্যায় হয়ে থাকলে ডিসিকে প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হবে: প্রতিমন্ত্রী

‘রাতে দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকতে পারেন না মোবাইল কোর্ট’

মোবাইল কোর্টে আরিফকে সাজায় ক্ষুব্ধ মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ, তদন্তের নির্দেশ

মধ্যরাতে বাড়ি থেকে সাংবাদিককে ধরে নিয়ে মোবাইল কোর্টে এক বছরের জেল

মধ্যরাতে সাংবাদিক আরিফুলকে তুলে নিয়ে গেলো মোবাইল কোর্ট

কাবিখা’র টাকায় পুকুর সংস্কার করে ডিসি’র নামে নামকরণ!






 

 

/বিআই/এসটি/

লাইভ

টপ