X
রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২
১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

স্মৃতির বাড়িতে বিএনপির প্রতিনিধি দল

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
০৬ অক্টোবর ২০২২, ১৩:২৫আপডেট : ০৬ অক্টোবর ২০২২, ১৩:২৫

ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে আপত্তিকর পোস্ট দেওয়ার অভিযোগে রাজবাড়ীতে গ্রেফতার মহিলা দল নেত্রী সোনিয়া আক্তার স্মৃতির দুই সন্তান ও স্বজনদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে সহমর্মিতা জানিয়েছেন বিএনপির কেন্দ্রীয় চার নেতা। বৃহস্পতিবার (৬ অক্টোবর) সকালে ঢাকা থেকে বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক শামা ওবায়েদ, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সেলিমুজ্জামান সেলিম, নারী ও শিশু অধিকার ফোরামের সদস্য সচিব অ্যাডভোকেট নিপুণ রায় চৌধুরীসহ চার সদস্যের প্রতিনিধি দল স্মৃতির রাজবাড়ী শহরের ৩ নম্বর বেড়াডাঙ্গার বাড়িতে যান। 

এ সময় স্মৃতির দুই শিশু সন্তানকে আর্থিক সহায়তা দেন তরাা। পাশাপাশি দলের পক্ষ থেকে স্মৃতিকে আইনিসহ সব ধরনের সহযোগিতারও আশ্বাস দেন তারা। 

এরআগে, মঙ্গলবার রাতে রাজবাড়ীর শহরের ৩ নম্বর বেড়াডাঙ্গা এলাকা থেকে স্মৃতিকে গ্রেফতার করা হয়। তিনি রাজবাড়ী ব্লাড ডোনার্সের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও জেলা মহিলা দলের সদস্য।  

আরও পড়ুন: জামিন নামঞ্জুর, মহিলা দলের নেত্রী স্মৃতি কারাগারে

সেখানে গিয়ে শামা ওবায়েদ বলেন, ‘সোনিয়া আক্তার স্মৃতিকে বিএনপির পক্ষ থেকে সব ধরনের আইনি সহায়তা দেওয়া হবে। ইতোমধ্যে বিষয়টি নিয়ে আইনজীবীদের সঙ্গে কথা হয়েছে।’

গ্রেফতারের পর স্মৃতিকে বুধবার আদালতে নেওয়া হয় তিনি আরও বলেন, ‘দমন-পীড়নের মাধ্যমে ক্ষমতায় টিকে থাকা আওয়ামী লীগ সরকারের একমাত্র লক্ষ্য। আপনারা শহীদুল আলমের কথা শুনেছেন, মাহমুদুর রহমানের কথা জানেন, মোস্তাকের কথা ভুলে যাননি। এরকম বহু সাংবাদিক ও ব্লগার যারা সামাজিক মাধ্যম, পত্রপত্রিকা লেখালেখি ও মুক্ত চিন্তার কারণে সরকারের রোষানলে পড়েছেন। সাংবাদিকদের বলবো, আপনারা এসবের প্রতিবাদ করুন। কারণ, আমরা এখনও সাগর-রুনিকে ভুলে যাইনি। আমরা স্মৃতিকেও ভুলে যাবো না। তার ৯ বছরের কন্যা ও ১৩ বছরের শিশু সন্তান এবং তার পরিবারের পাশে বিএনপি আছে।’

এদিকে বুধবার (৫ অক্টোবর) রাতে দেওয়া এক বিবৃতিতে বিএনপির মহাসচিব ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, স্মৃতি একজন অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট হিসেবে সত্য উচ্চারণ করেছেন। এ জন্যই আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তাকে গ্রেফতার করেছে। অন্যায়ের বিরুদ্ধে মুখ খুললেই সরকার বিচলিত হয়ে উঠে। সোনিয়া আক্তার স্মৃতিকে পুলিশ যেভাবে গ্রেফতার করেছে তা অমানবিক অসভ্যতার এক নজিরবিহীন ঘটনা।

গত সোমবার সন্ধ্যায় স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা সামসুল আরেফিন চৌধুরী সোনিয়া আক্তার স্মৃতির ফেসবুকে পোস্টের বিষয়ে রাজবাড়ী সদর থানায় লিখিত অভিযোগ দেন। পরে অভিযোগটি মামলা হিসেবে রেকর্ড হয়। অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, গত ৩১ আগস্ট সোনিয়া আক্তার স্মৃতি নিজের ফেসবুক আইডি ব্যবহার করে পোস্ট দেন। সেখানে তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একটি বক্তব্যের সমালোচনা করে ‘আপত্তিকর’ কথা লেখেন। 

 

 

/এসটিএস/টিটি/
বঙ্গবন্ধুর নির্দেশে শেখ মনি মেধাবীদের রাজনীতিতে নিয়ে এসেছিলেন: মেয়র তাপস
বঙ্গবন্ধুর নির্দেশে শেখ মনি মেধাবীদের রাজনীতিতে নিয়ে এসেছিলেন: মেয়র তাপস
লক্ষ্য স্থির রেখে আমরা এগিয়ে যাবো: প্রধানমন্ত্রী
লক্ষ্য স্থির রেখে আমরা এগিয়ে যাবো: প্রধানমন্ত্রী
যাপনে বিশ্বকাপ আনন্দ
যাপনে বিশ্বকাপ আনন্দ
বুয়েটে চাকরির সুযোগ
বুয়েটে চাকরির সুযোগ
সর্বাধিক পঠিত
আকাশছুঁই পারিশ্রমিক হাঁকছেন রাজ, দিলেন ব্যাখ্যা
আকাশছুঁই পারিশ্রমিক হাঁকছেন রাজ, দিলেন ব্যাখ্যা
মেসি-আলভারেজের গোলে কোয়ার্টার ফাইনালে আর্জেন্টিনা
মেসি-আলভারেজের গোলে কোয়ার্টার ফাইনালে আর্জেন্টিনা
‘পুলিশ প্রটোকলে’ বিদায় নিলেন রাঙ্গাবালীর ইউএনও
‘পুলিশ প্রটোকলে’ বিদায় নিলেন রাঙ্গাবালীর ইউএনও
ছবি দেখে ১৫ বছর ঐক্যবদ্ধ আছি: এমপি সিরাজ
ছবি দেখে ১৫ বছর ঐক্যবদ্ধ আছি: এমপি সিরাজ
খালেদা-তারেকের ছবি থাকায় মিডিয়া কার্ড বর্জন সাংবাদিকদের
বিএনপির গণসমাবেশখালেদা-তারেকের ছবি থাকায় মিডিয়া কার্ড বর্জন সাংবাদিকদের