X
মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪
৩ বৈশাখ ১৪৩১

আমরা বন্দি হয়ে গেছি, যেতে হবে একজনের কাছেই: জিএম কাদের

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট 
২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৬:২৪আপডেট : ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৭:১৩

জন্মদিনের আয়োজনে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও বিরোধীদলীয় নেতা গোলাম মোহাম্মদ কাদের (জি এম কাদের) বলেছেন, ‘২০১৪ সালের পর থেকে আমরা বার্গেনিং করার শক্তি হারিয়ে ফেলেছি। এখন আমাদের বলা হয় গৃহপালিত রাজনৈতিক দল। আমাদের দলের মধ্যে সরকারি দলের এজেন্ট ঢুকিয়ে দেওয়া হয়েছে। তারা আমাদের দল করে কিন্তু রাজনীতি করে অন্য দলের।’

সরকারি দলের সমালোচনা করে তিনি বলেন, ‘আমাদের দলে থেকে তারা (এজেন্ট) বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা নেয় কিন্তু রাজনীতি তারা সরকারি দলের রাজনীতি করে। যখনই আমরা সঠিক রাজনীতি করতে চাই, তখনই আমাদের দলকে ভেঙে আরেকটি দল সৃষ্টির চেষ্টা করা হয়। এটা সরকারই করে, যাতে আমরা স্বাধীনভাবে রাজনীতি করতে না পারি।’

শনিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের বনানীর কার্যালয়ে নিজ জন্মদিনের আয়োজনে প্রধান অতিথির বক্তৃতার সময় এসব কথা বলেন গোলাম মোহাম্মদ কাদের।

আরও কিছুদিন পর নিজের সঠিক মূল্যায়ন হবে দাবি করে জাতীয় পার্টির এই শীর্ষ নেতা বলেন, ‘এখন যারা আমাকে মূল্যায়ন করছেন, সেটা হয়তো সঠিক হচ্ছে না। সময়ের ব্যবধানে সবকিছুই পরিষ্কার হয়ে যাবে। গেলো নির্বাচনে আমি অনেক কিছুই শিখেছি। দেখেছি...রাজনীতি কত বেশি নোংরা হতে পারে, আবার কত বেশি মহৎ হতে পারে।’

তিনি বলেন, ‘দেখেছি, ক্ষুদ্র স্বার্থের জন্য মানুষ কত বেশি নিচে নেমে যেতে পারে। দেখেছি, দেশ ও জাতির জন্য মানুষ কত বেশি ত্যাগ স্বীকার করতে পারে। এগুলো আমার চলার পথে পাথেও হয়ে থাকবে। মহান আল্লাহ যেন এই শিক্ষাগুলো দেশ ও জাতির স্বার্থে কাজে লাগাতে দেন।’

‘১৯৯০ সালের পর জাতীয় পার্টি ধীরে ধীরে দুর্বল হয়ে পড়েছে’ উল্লেখ করে জি এম কাদের বলেন, ‘ক্ষমতার বাইরে থাকলে আমাদের দেশের দলগুলো টিকতে পারে না। ক্ষমতাসীনরা জুলুম-নির্যাতন করে আমাদের রাজনীতি করতে দেয়নি। যারা ক্ষমতাসীন দল করতে এসেছিল, তারা নব্বই সালের পর দল ছেড়ে চলে গেছে। তারা দল বা দেশের স্বার্থ দেখেনি।’

তিনি বলেন, ‘২০০৮ সালে যখন আমরা মহাজোট করেছি, তখন অনেকেই বলেছে, আমরা পরজীবী হয়ে গেছি। তারা বলেছেন, আমরা নাকি অন্যের সহায়তা ছাড়া নির্বাজনে জয়ী হতে পারি না। দেশের বড় দুটি দলের নির্বাচনে অল্প ভোটের ব্যবধানে জয়-পরাজয় নির্ধারণ হয়। সেই অল্প ভোট তো আমরা দিতে পারতাম। আমরা যদি পরজীবী হইও, তারপরও আমাদের কাছে টানতে প্রতিযোগিতা ছিল। সেখানে আমাদের একটি বার্গেনিং পয়েন্ট ছিল, আমরা বার্গেনিং করে অনেক কিছু আদায় করতে পারতাম।’

‘সব সময় হুমকি দেওয়া হয়’ অভিযোগ করে জি এম কাদের বলেন, ‘আগে আমরা পরজীবী হলেও আমাদের একটা পছন্দ ছিল, আমরা যেকোনও পক্ষে যেতে পারি, আমাদের বার্গেনিং পয়েন্ট ছিল। এখন আমরা বন্দি হয়ে গেছি, একজনের কাছেই যেতে হবে। আমরা সঠিক রাজনীতি করতে গেলেই...একজন একটা ডাক দেবেন, সরকার মদদ দেবে, মিডিয়া কাভারেজ দেবে আর আমাদের দল ভেঙে এবং আইনের মাধ্যমে আমাদের লাঙ্গল নিয়ে নেওয়ার হুমকি দেওয়া হয়।’

তিনি আরও বলেন, ‘দল বাঁচাই না রাজনীতি বাঁচাই— এই সমস্যায় জাতীয় পার্টি ভঙ্গুর হয়ে যাচ্ছে। কারণ, আমরা লোভ-লালসা থেকে দূরে থাকতে পারি না। আমাদের দলে থেকে যারা অন্য দলের রাজনীতি করে, তাদের আমরা দল থেকে বের করে দিতে পারি না। রাজনীতি বাঁচাতে আমাদের ঝুঁকি নিতে হবে। সরকার আমাদের দুর্বল করতে আমাদের মাঝেই একটি জোট বানিয়ে রাখছে।’

তিনি আরও অভিযোগ করে বলেন, ‘আমরা সঠিক রাজনীতি করতে গেলেই সরকার আমাদের দল ভেঙে দেওয়ার অপচেষ্টা করে। যারা জাতীয় পার্টি ব্যবহার করে অন্য দলের রাজনীতি করতে চায়, তাদের দল থেকে বের করে দিতে হবে। এটা করতে পারলেই জাতীয় পার্টি টিকবে। দেশ ও জাতির কাছে গৃহপালিত বিরোধীদলের প্রয়োজনীয়তা নেই। আমরা একটি দলের কাছে বন্দি হয়ে গেলে জনগণের কাছে আমাদের প্রয়োজন থাকবে না। আর জনগণ কেন এমন দলকে ভোট দেবে?‘

‘দলকে বাঁচাতে হলে গৃহপালিত অপবাদ থেকে বের হতে হবে’ জানিয়ে কাদের বলেন, ‘যারা গৃহপালিত হওয়ার জন্য দায়ী, তাদের বর্জন করতে হবে। আমাদের দলে থেকে অন্য দলের রাজনীতি করতে দেওয়া হবে না’ বলেও হুঁশিয়ারি করেন তিনি।

সরকারের প্রতি বিরোধীদলীয় নেতার মন্তব্য, ‘সরকারকে অনুরোধ করবো, দেশের রাজনীতি শেষ করবেন না। রাজনৈতিক দলগুলোকে রাজনীতি করতে দেন। সবাইকে ধংস করে সরকার একক রাজনীতি করবে, এটা দেশ ও জাতির জন্য ভালো হবে না।’

/এসটিএস/ইউএস/এনএআর/
সম্পর্কিত
মানুষ অত্যন্ত কষ্টে দিনযাপন করছে: জিএম কাদের
‘লন্ডন-সন্তুষ্টিতে’ ব্যস্ত বিএনপি নেতারা, পরবর্তী কর্মপরিকল্পনা আসছে কবে?
অসহায়দের প্রতি সহনশীল থাকার আহ্বান বিরোধীদলীয় নেতার
সর্বশেষ খবর
জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষতি মোকাবিলায় গবেষণা বাড়ানো হবে: কৃষিমন্ত্রী
জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষতি মোকাবিলায় গবেষণা বাড়ানো হবে: কৃষিমন্ত্রী
মনে হয়নি দেশের বাইরে আছি: যুক্তরাষ্ট্র থেকে পার্থ 
মনে হয়নি দেশের বাইরে আছি: যুক্তরাষ্ট্র থেকে পার্থ 
চোট কাটিয়ে অনুশীলনে সৌম্য, ফিরেছেন লিটনও
চোট কাটিয়ে অনুশীলনে সৌম্য, ফিরেছেন লিটনও
চুরি ও ভেজাল প্রতিরোধে ট্যাংক লরিতে নতুন ব্যবস্থা আসছে
চুরি ও ভেজাল প্রতিরোধে ট্যাংক লরিতে নতুন ব্যবস্থা আসছে
সর্বাধিক পঠিত
শেখ হাসিনাকে নরেন্দ্র মোদির ‘ঈদের চিঠি’ ও ভারতে রেকর্ড পর্যটক
শেখ হাসিনাকে নরেন্দ্র মোদির ‘ঈদের চিঠি’ ও ভারতে রেকর্ড পর্যটক
৪ দিনেই হল থেকে নামলো ঈদের তিন সিনেমা!
৪ দিনেই হল থেকে নামলো ঈদের তিন সিনেমা!
বিসিএস পরীক্ষা দেবেন বলে ক্যাম্পাসে করলেন ঈদ, অবশেষে লাশ হয়ে ফিরলেন বাড়ি
বিসিএস পরীক্ষা দেবেন বলে ক্যাম্পাসে করলেন ঈদ, অবশেষে লাশ হয়ে ফিরলেন বাড়ি
চাসিভ ইয়ার দখল করতে চায় রাশিয়া: ইউক্রেনীয় সেনাপ্রধান
চাসিভ ইয়ার দখল করতে চায় রাশিয়া: ইউক্রেনীয় সেনাপ্রধান
বাজারে ক্রেতা নেই: তবু ব্রয়লারের কেজি ২৩৫, গরু ৮০০
বাজারে ক্রেতা নেই: তবু ব্রয়লারের কেজি ২৩৫, গরু ৮০০