X
বৃহস্পতিবার, ০৫ আগস্ট ২০২১, ২১ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

এলোমেলো হেফাজত, এখনই ‘কর্মসূচি নয়’

আপডেট : ১৯ এপ্রিল ২০২১, ১৬:০৬

একে একে গ্রেফতার হচ্ছেন হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় নেতারা। কার পর কে গ্রেফতার হবেন—এ আলোচনা এখন নেতাদের মুখে। তারা চলছেন সতর্ক হয়ে; নিয়মিত ফোন ও ঠিকানা বদলে। অনেকটা সকাল-দুপুর দৌড়ে বেড়াচ্ছেন হেফাজতের নেতারা। সর্বশেষ রবিবার (১৮ এপ্রিল) দুপুরে রাজধানীর মোহাম্মদপুর থেকে সংগঠনটির আলোচিত-সমালোচিত যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হককে গ্রেফতারের পর কেন্দ্রীয় কোনও নেতাকেই আর পাওয়া যাচ্ছে না। কারও কারও ফোন খোলা থাকলেও রিসিভ করছেন অন্য কেউ।

তবে হেফাজতের কেন্দ্রীয় ও ঢাকা মহানগরের একাধিক সিনিয়র নেতা বাংলা ট্রিবিউনকে জানিয়েছেন, গ্রেফতার হলেও এই লকডাউনের মধ্যে রমজান মাসে কোনও কর্মসূচি না দেওয়ার সিদ্ধান্ত রয়েছে সংগঠনটির। এ ক্ষেত্রে আপাতত আইনি পথ ও বিবৃতি দিয়েই পরিস্থিতির প্রতিক্রিয়া জানানোর চিন্তা রয়েছে হেফাজতের। 

হেফাজতের সদর দফতর হিসেবে পরিচিত চট্টগ্রামের হাটহাজারীর দারুল উলুম মঈনুল ইসলামের একাধিক দায়িত্বশীল জানিয়েছেন, সংগঠনের আমির মাওলানা জুনায়েদ বাবুনগরী মাদ্রাসাতেই আছেন। পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছেন। তবে তাৎক্ষণিক পরামর্শ-পর্যালোচনা করতে যাদের সঙ্গে কথা বলতেন তিনি, তাদের প্রায় প্রত্যেকেই গ্রেফতার হওয়ায় সেটিও সম্ভব হচ্ছে না। এ কারণে কোনও সিদ্ধান্ত নিতে গিয়ে হেফাজতের আমিরও হিমশিম খাচ্ছেন বলে নির্ভরযোগ্য দায়িত্বশীলের দাবি।

জানতে চাইলে হেফাজতের কেন্দ্রীয় নায়েবে আমির, খেলাফত মজলিসের মহাসচিব অধ্যাপক আহমদ আবদুল কাদের বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘সরকার হেফাজতের বিরুদ্ধে ক্র্যাকডাউনে নেমেছে স্পষ্ট। হেফাজত নিয়মতান্ত্রিক, সংঘবদ্ধ কোনও সংগঠন নয়, একটি ফোরামের মতো আছে। আমি যতদূর জানি, এখনই এই পরিস্থিতিতে কোনও কর্মসূচি দেবে না হেফাজত। করোনাভাইরাসের কারণে চলমান লকডাউন এবং পাশাপাশি রমজান মাস চলছে। ফলে এখনই কর্মসূচি দেওয়ার সুযোগ নেই।’

রবিবার দুপুরে রাজধানীর মোহাম্মদপুর জামিয়া রাহমানিয়া আরাবিয়া মাদ্রাসা থেকে গ্রেফতার হন হেফাজতের যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর কমিটির সেক্রেটারি মাওলানা মামুনুল হক। তাকে প্রতিষ্ঠানটি দ্বিতীয় তলা থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। গত ৩ এপ্রিল সোনারগাঁয়ের রয়েল রিসোর্টকাণ্ডের পর থেকেই মোহাম্মদপুরের জামিয়া রাহমানিয়া আরাবিয়া মাদ্রাসায় অবস্থান করছিলেন মামুনুল হক। এর আগে ১১ এপ্রিল থেকে আজ পর্যন্ত হেফাজতের কেন্দ্রীয় অন্তত আট জন নেতাকে গ্রেফতার করলো পুলিশ। তারা হলেন, মাওলানা জুনায়েদ আল হাবিব, আজিজুল হক ইসলামাবাদী, মাওলানা মামুনুল হক, মাওলানা জালাল উদ্দিন আহমাদ, মাওলানা মুঞ্জুরুল ইসলাম আফেন্দী, মুফতি শরীফ উল্লাহ, মাওলানা সাখাওয়াত হোসেন রাজি ও মুফতি ইলিয়াস। এছাড়া সারাদেশ থেকে অন্তত দেড়শতাধিক নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে বিভিন্ন মামলায়। এরমধ্যে উল্লেখযোগ্য মুফতি আমিনীর মেয়ের জামাই মাওলানা জুবায়ের।

মাওলানা মামুনের গ্রেফতারের পর তার দল বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের একাধিক নেতা জানিয়েছেন, পরিস্থিতি নিয়ে দলীয়ভাবে আলোচনা চলছে। হেফাজতে ইসলামের পক্ষ থেকে কর্মসূচি দেওয়া না হলে দলীয়ভাবেও প্রতিবাদ সীমিত রাখা হতে পারে।

রবিবার দুপুরে খেলাফত মজলিসের কেন্দ্রীয় প্রভাবশালী এক নেতা বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘নেতারা গ্রেফতার হলে কর্মসূচির বিষয়ে আগে কোনও আলোচনা ছিল না। এখন আবার লকডাউন চলছে। সেক্ষেত্রে পরিস্থিতি বিশ্লেষণের পর সিদ্ধান্ত আসবে।’

হেফাজতের কেন্দ্রীয় দায়িত্বশীলরা বলছেন, মামুনুলের গ্রেফতারের পর থেকে ঢাকার নেতারা অনেকটা গাঢাকা দিয়েছেন। নিজেদের ফোন বন্ধ রেখে যে যার মতো নিরাপদে অবস্থান নিতে শুরু করেছেন।

রবিবার দুপুর থেকে হেফাজতের মহাসচিব মাওলানা নুরুল ইসলাম, নায়েবে আমির, যুগ্ম ও সহকারী মহাসচিবসহ অন্তত এক ডজন নেতাকে ফোন করা হলেও তারা কল রিসিভ করেননি।

ঢাকা মহানগরের এক নেতা বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘১৯৯৯ সালে ফতোয়া নিষিদ্ধের হাইকোর্টের রায়ের পর আন্দোলনের সময় ধর্মভিত্তিক দলের নেতারা গণহারে গ্রেফতার হয়েছিলেন। এর ২০ বছর পর আবারও সেই পরিস্থিতির মুখোমুখি তারা। তবে ধর্মভিত্তিক দল ও আলেমদের মধ্যে যূথবদ্ধতা না থাকায় সম্মিলিত প্রতিবাদ করতে পারছে না হেফাজত।’

ঢাকার কয়েকটি কওমি মাদ্রাসা ও নারী কওমি মাদ্রাসা থেকেও খবর পাওয়া গেছে, শিক্ষার্থীসহ এসব প্রতিষ্ঠানের যাবতীয় তথ্য চাওয়া হচ্ছে নিকটস্থ থানা থেকে।

সরকারের প্রভাবশালী একটি সংস্থার সূত্র জানায়, হেফাজতের নেতাদের ধরপাকড় প্রক্রিয়া আরও চলবে। বিশেষ করে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ আগমনের সময় গত ২৫, ২৬, ২৭ মার্চ তিন দিন ধরে ঢাকা, চট্টগ্রাম, ব্রাহ্মণবাড়িয়াসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে যে নাশকতা চালানো হয়েছে, এর পেছনে প্রত্যক্ষ-পরোক্ষ যাদের ভূমিকা পাওয়া যাচ্ছে, তাদেরই আইনের আওতায় আনবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

হেফাজতের নায়েবে আমির অধ্যাপক আহমদ আবদুল কাদের বলেন, ‘আমরা আইনগতভাবে পরিস্থিতি মোকাবিলা করার চিন্তা করছি। ইতোমধ্যে পারিবারিকভাবে আইনি পথে সহযোগিতা নেওয়া শুরু হয়েছে। এটা আমরা সাংগঠনিকভাবেও অব্যাহত রাখার চেষ্টা করবো।’

হেফাজতের কেন্দ্রীয় কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, পুরো হেফাজতে ভীতসন্ত্রস্ত পরিবেশ বিরাজ করছে। কখন কাকে ধরবে পুলিশ, এ নিয়ে বিস্তর দুশ্চিন্তা শুরু হয়েছে সেখানে অবস্থানরত নেতাদের। স্থানীয় নেতারা ইতোমধ্যে নিজেদের বাড়িঘর ছেড়ে গোপনে অবস্থান করছেন। ইতোমধ্যে স্থানীয় দোকানদার, ছাত্রলীগ নেতা, শফীপন্থী সংগঠকদের গ্রেফতারের কারণে অনিশ্চিত পরিস্থিতিতে পড়েছেন নেতারা। ফলে, কেন্দ্রীয়ভাবে কর্মসূচির বিষয়ে কোনও সিদ্ধান্তেই যেতে পারছেন না মাওলানা বাবুনগরী ও হেফাজতের শীর্ষনেতারা। তবে আজ বিবৃতির মাধ্যমে মামুনুল হকসহ অন্যদের গ্রেফতারের প্রতিবাদ জানাতে পারেন হেফাজতের আমির মাওলানা বাবুনগরী। 

জানতে চাইলে হেফাজতের আমিরের প্রেস সেক্রেটারি মাওলানা ইনআ’মুল হাসান ফারুকী বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘কর্মসূচি বা বিবৃতির বিষয়ে এখনও কোনও সিদ্ধান্তের কথা আমি জানি না। আমিরে হেফাজত পুরো পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছেন। কোনও সিদ্ধান্ত হলে আমরা জানিয়ে দেবো।’

আরও পড়ুন...

যেভাবে গ্রেফতার হলেন মামুনুল হক

মামুনুল হক গ্রেফতার

স্ত্রীকে খুশি করতে সত্য গোপনের সুযোগ আছে: মামুনুল হক

লাইভে এসে ক্ষমা চাইলেন মামুনুল

আগুন নিয়ে খেলা করবেন না: লাইভে মামুনুল হক

আমার ব্যক্তিগত কল রেকর্ড ফাঁস করা হয়েছে: মামুনুল

মামুনুল হকের রিসোর্টকাণ্ড নিয়ে যা বললেন তার নারীসঙ্গী (অডিও)

মামুনুলের রিসোর্টকাণ্ড: নীরব থাকার সিদ্ধান্ত হেফাজত-খেলাফতের

আলেমদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র চলছে: মামুনুল হক

মামুনুল হকের কথিত স্ত্রীর দ্বিতীয় বিয়ের কথা জানেন না এলাকাবাসী

মামুনুল হককে ছিনিয়ে নিলো হেফাজত (ভিডিও)

বন্ধুর সাবেক স্ত্রীকে বিয়ে করেছি, লাইভে মামুনুলের দাবি

নারীসহ রিসোর্টে গিয়ে জনগণের তোপের মুখে হেফাজত নেতা মামুনুল

কাকে নিয়ে রিসোর্টে গিয়েছিলেন মামুনুল হক?

যা বললেন মামুনুল হক

তুমি বইলো আমি সব জানি: ফোনালাপে স্ত্রীকে মামুনুল

মামুনুল ইস্যুতে জুনায়েদ বাবুনগরীর নিন্দা

হেফাজত সামলাতে এবার কৌশলী সরকার

 

/আইএ/এমওএফ/

সম্পর্কিত

‘ঢাকা মহানগরের নতুন কমিটি গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আন্দোলনে ভূমিকা রাখবে’

‘ঢাকা মহানগরের নতুন কমিটি গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আন্দোলনে ভূমিকা রাখবে’

ঢাকায় বিএনপির নতুন কমিটি: ওপরে উষ্ণতা, ভেতরে আক্ষেপ

ঢাকায় বিএনপির নতুন কমিটি: ওপরে উষ্ণতা, ভেতরে আক্ষেপ

জিয়াউর রহমানকে সম্পৃক্ত করতেই ‘নতুন গীত’ গাইছে সরকার: ফখরুল

জিয়াউর রহমানকে সম্পৃক্ত করতেই ‘নতুন গীত’ গাইছে সরকার: ফখরুল

‘গায়েবি মামলার মতো গায়েবি বেড, রোগী উড়ে যাচ্ছে’

‘গায়েবি মামলার মতো গায়েবি বেড, রোগী উড়ে যাচ্ছে’

শেখ কামাল কোটি তরুণের প্রেরণার প্রজ্বলিত শিখা: ওবায়দুল কাদের

আপডেট : ০৫ আগস্ট ২০২১, ১১:৫৯

বাংলাদেশের বিশ্বাসঘাতকতার ইতিহাসের সবচেয়ে কালিমালিপ্ত অধ্যায় ৭৫’ এর আগস্ট ট্র্যাজেডি বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

বৃহস্পতিবার (৫ আগস্ট) সকালে শহীদ শেখ কামালের ৭২তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে বনানী কবরস্থানে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে তিনি এ মন্তব্য করেন। 

সড়ক পরিবহন মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের প্রথমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও পরে আওয়ামী লীগের পক্ষে দলের কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে নিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

শহীদ শেখ কামাল তারুণ্যের অহংকার এবং একজন সৃষ্টিশীল অনন্য প্রতিভার দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, বাংলাদেশের ইতিহাসে শেখ কামালের বহুমুখী সৃজনশীল প্রতিভার সৃষ্টি আজকে লাখো কোটি তরুণের অন্তরে প্রেরণার প্রদীপ্ত প্রজ্বলিত শিখা হিসেবে যুগে যুগে স্মরণীয় হয়ে থাকবেন।

বঙ্গবন্ধু হত্যার যে কলঙ্ক জাতির কপালে কলঙ্কতিলক হিসেবে ছিল- সেই কলঙ্কের কালিমা বঙ্গবন্ধুর হত্যার বিচার সম্পূর্ণ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে আলোর পথে যাত্রা শুরু করছেন, সেই আলোর পথের অভিযাত্রী হয়ে আমরা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণ করবো- আজকের দিনে এটাই অঙ্গীকার বলে জানান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। 

এর আগে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের আবাহনী ক্লাবে শহীদ শেখ কামালের প্রতিকৃতিতে নেতৃবৃন্দকে সঙ্গে নিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

 

/ইএইচএস/এনএইচ/

সম্পর্কিত

শেখ কামালের জন্মদিনে আওয়ামী লীগের শ্রদ্ধা 

শেখ কামালের জন্মদিনে আওয়ামী লীগের শ্রদ্ধা 

টিকা গ্রহণে উদ্বুদ্ধ করতে ক্যাম্পেইনে নামবে আ.লীগ

টিকা গ্রহণে উদ্বুদ্ধ করতে ক্যাম্পেইনে নামবে আ.লীগ

ইতিহাসের ভিলেনকে জোর করে নায়ক বানানো যায় না: ওবায়দুল কাদের

ইতিহাসের ভিলেনকে জোর করে নায়ক বানানো যায় না: ওবায়দুল কাদের

নির্লজ্জ মিথ্যাচার করে জনগণকে বিভ্রান্ত করবেন না: হানিফ

নির্লজ্জ মিথ্যাচার করে জনগণকে বিভ্রান্ত করবেন না: হানিফ

শেখ কামালের জন্মদিনে আওয়ামী লীগের শ্রদ্ধা 

আপডেট : ০৫ আগস্ট ২০২১, ১১:৩৯

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ্যেষ্ঠ পুত্র শেখ কামালের ৭২তম জন্মদিনে তার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছে আওয়ামী লীগ। 

বৃহস্পতিবার (৫ আগস্ট) সকাল সাড়ে আটটায় আবাহনীর ক্লাব প্রাঙ্গণে স্থাপিত এই ক্রীড়া সংগঠকের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের নেতৃত্বে কেন্দ্রীয় নেতারা। তার আগে নেতারা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষে শ্রদ্ধা জানান।

সকাল নয়টার পরে বনানী কবরস্থানে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান তারা। পরে কবরস্থান মসজিদে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ ১৫ আগস্টের শহীদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে দোয়া করা হয়।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী, আব্দুর রাজ্জাক, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আব্দুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ, হাছান মাহমুদ, আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন, এসএম কামাল হোসেন, মির্জা আজম প্রমুখ।

 

/পিএইচসি/এনএইচ/

সম্পর্কিত

শেখ কামাল কোটি তরুণের প্রেরণার প্রজ্বলিত শিখা: ওবায়দুল কাদের

শেখ কামাল কোটি তরুণের প্রেরণার প্রজ্বলিত শিখা: ওবায়দুল কাদের

টিকা গ্রহণে উদ্বুদ্ধ করতে ক্যাম্পেইনে নামবে আ.লীগ

টিকা গ্রহণে উদ্বুদ্ধ করতে ক্যাম্পেইনে নামবে আ.লীগ

ইতিহাসের ভিলেনকে জোর করে নায়ক বানানো যায় না: ওবায়দুল কাদের

ইতিহাসের ভিলেনকে জোর করে নায়ক বানানো যায় না: ওবায়দুল কাদের

নির্লজ্জ মিথ্যাচার করে জনগণকে বিভ্রান্ত করবেন না: হানিফ

নির্লজ্জ মিথ্যাচার করে জনগণকে বিভ্রান্ত করবেন না: হানিফ

ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে মেয়র তাপস কার্যকর কর্মসূচি নিয়েছেন: এমপি বাবলা

আপডেট : ০৪ আগস্ট ২০২১, ১৬:৫৪

এডিস মশা নির্মূলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস ইতোমধ্যে ব্যাপক কার্যকর কর্মসূচি গ্রহণ করেছেন বলে জানিয়েছেন ঢাকা-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা।

বুধবার (৪ আগস্ট) রাজধানীর শ্যামপুর খন্দকার রোডে ডেঙ্গু প্রতিরোধে ব্যক্তিগত উদ্যোগে শ্যামপুর-কদমতলীর সাতটি ওয়ার্ডে সাতদিনব্যাপী এডিস মশা নিধনের প্রতিষেধক ছিটানো কর্মসূচির উদ্ভোধনকালে এসব কথা বলেন বাবলা।

তিনি বলেন, ‘পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদের ও সংসদে বিরোধী দলীয় নেতা বেগম রওশন এরশাদের নির্দেশে নির্বাচনী এলাকায় আমি এডিস মশা নির্মূলে প্রতিষেধক ছিটানো কর্মসূচি পরিচালনা করছি।’

ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে দলমত নির্বিশেষে সকল শ্রেণি-পেশার মানুষকে ঐক্যবদ্ধভাবে সামাজিক প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান জানান বাবলা।

শ্যামপুর-কদমতলী থানা জাতীয় পার্টির যৌথ উদ্যোগে কর্মসূচির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক সুজন দে, যুগ্ম প্রচার সম্পাদক শেখ মাসুক রহমান, শ্যামপুর থানা জাপার সভাপতি কাওসার আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহিম মোল্লা, মহানগর নেতা ডি. কে সমির, সুলতানা আহামেদ লিপি প্রমুখ।

/এসটিএস/এমএস/

সম্পর্কিত

বিএনপির ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের আহ্বায়ক কমিটি গঠন

বিএনপির ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের আহ্বায়ক কমিটি গঠন

নির্লজ্জ মিথ্যাচার করে জনগণকে বিভ্রান্ত করবেন না: হানিফ

নির্লজ্জ মিথ্যাচার করে জনগণকে বিভ্রান্ত করবেন না: হানিফ

সৈয়দ আশরাফের ম্যুরাল ভাঙচুরের ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার ও বিচার দাবি

সৈয়দ আশরাফের ম্যুরাল ভাঙচুরের ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার ও বিচার দাবি

দেশবাসীকে খালেদা জিয়ার ঈদের শুভেচ্ছা 

দেশবাসীকে খালেদা জিয়ার ঈদের শুভেচ্ছা 

সরকারের উল্টাপাল্টা সিদ্ধান্তে দেশবাসী বিভ্রান্ত হচ্ছে: জি এম কাদের

আপডেট : ০৪ আগস্ট ২০২১, ১৫:১৯

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও সংসদের বিরোধী দলীয় উপনেতা জি এম কাদের এমপি বলেছেন, ‘সারাবিশ্ব যখন টিকা দিয়ে জীবনযাত্রা স্বাভাবিক করছে, তখন টিকা দিতে ব্যর্থতার দায় এড়াতে উল্টাপাল্টা সিদ্ধান্ত নিচ্ছে সরকার।’

বুধবার (৪ আগস্ট) দুপুরে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে জি এম কাদের এ কথা বলেন।

জিএম কাদের বলেন, ‘টিকা না নেওয়া ১৮ বছরের বেশি বয়সীরা বের হলেই নেওয়া হবে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা, গতকাল মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রীর এমন ঘোষণার কয়েক ঘণ্টার মাথায় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এ মন্তব্যের সাথে দ্বিমত পোষণ করে বিবৃতি দিয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘অপরিকল্পিত ও অদূরদর্শী এবং সমন্বয়হীনতার কারণে বারবার এমন ঘটনা ঘটছে। মন্ত্রীদের বক্তব্যে বিভ্রান্ত হচ্ছেন দেশবাসী। একই সঙ্গে সরকারের প্রতি আস্থা হারিয়ে ফেলছে সাধারণ মানুষ।’

জি এম কাদের বলেন, ‘বর্তমান বাস্তবতায় দেশে দুই ডোজ টিকা নেওয়া মানুষের সংখ্যা এক কোটির নিচে। কোভিড টাস্কফোর্সের রিপোর্ট অনুযায়ী টিকা কর্মসূচিতে বিশ্বের পিছিয়ে পড়া দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশ অন্যতম। আবার দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার মধ্যে টিকা কর্মসূচিতে সবচেয়ে পিছিয়ে বাংলাদেশ।’

/এসটিএস/এমএস/

সম্পর্কিত

সর্বদলীয় রাজনৈতিক ঐক্যের মাধ্যমে করোনার মোকাবিলা চায় জাপা

সর্বদলীয় রাজনৈতিক ঐক্যের মাধ্যমে করোনার মোকাবিলা চায় জাপা

সড়কে শৃঙ্খলা রক্ষায় সরকার পুরোপুরি ব্যর্থ: জিএম কাদের

সড়কে শৃঙ্খলা রক্ষায় সরকার পুরোপুরি ব্যর্থ: জিএম কাদের

টিকা গ্রহণে উদ্বুদ্ধ করতে ক্যাম্পেইনে নামবে আ.লীগ

আপডেট : ০৪ আগস্ট ২০২১, ১৪:০০

সারাদেশের মানুষকে টিকা গ্রহণে উদ্বুদ্ধ করতে ক্যাম্পেইন চালাবে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ। আগামী ৭ থেকে ১২ আগস্ট সারাদেশে গণটিকা দেওয়া হবে। কার্যক্রম সচল রাখতে টিকা গ্রহণের বিকল্প নেই জানিয়ে ক্যাম্পেইন শুরু হবে।

বুধবার (৪ আগস্ট)  ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউর কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আওয়ামী লীগের সম্পাদকমণ্ডলীর সাথে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনসমূহের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকবৃন্দের যৌথসভায় এ সিদ্ধান্ত হয়। ক্যাম্পেইন সফল করতে ও আগস্টের দলীয় নানা কর্মসূচি সমন্বয় করতে এ সভার আয়োজন করা হয়।

বৈঠকে বলা হয়, সারাদেশের প্রতিটি ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন পর্যায়ে গণটিকা কার্যক্রমে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ও তার সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা টিকা গ্রহণ করবে। পাশাপাশি সকলকে টিকা গ্রহণে উদ্বুদ্ধ করতে ক্যাম্পেইন চালাবে দলটি।

বৈঠক শেষে দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এ কথা জানান। 

ওবায়দুল কাদের বলেন, করোনা মহামারির এই সময়ে সরকার একনিষ্ঠভাবে কাজ করছে। সবার জন্য টিকা নিশ্চিত করা হচ্ছে। আগামী ৭ থেকে ১২ আগস্ট সারাদেশে গণটিকা দেওয়া হবে। কার্যক্রম সচল রাখতে টিকা গ্রহণের বিকল্প নেই। এজন্য প্রয়োজনীয় সংখ্যক টিকা সংগ্রহ করছে সরকার।

তিনি বলেন, গণটিকা কার্যক্রম সফল করতে আওয়ামী লীগ ও তার সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের কাজ করতে হবে। সবাই নিজেরা  টিকা নিবে, টিকা নিতে জনগণকে উদ্বুদ্ধ করতে হবে। এজন্য একটা ক্যাম্পেইন চালাতে হবে।

এসময় বিএনপির সমালোচনা করে কাদের বলেন,  সরকারের এত কর্মসূচি থাকা সত্ত্বেও বিএনপি নির্জলা মিথ্যাচার করছে। তারা সরকারের কার্যক্রম দেখে না। মানুষের পাশে থাকে না। মিথ্যা কথার বাক্স নিয়ে বসেছে। তিনি বলেন,  আগস্ট মাস এলেই তাদের গাত্রদাহ আরও বাড়ে। তারা ইতিহাস অস্বীকার করতে চায়। শাক দিয়ে মাছ ঢাকতে চায়।

সভায় আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী,  আবদুর রাজ্জাক,  আবদুর রহমান,  যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ,  ডা. দীপু মনি, ড. হাছান মাহমুদ, আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, বিএম মোজাম্মেল হক, আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন, মির্জা আজম,  এস এম কামাল হোসেন, আফজাল হোসেন, মুক্তিযুদ্ধ সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাস,  সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, শ্রম সম্পাদক হাবিবুর রহমান সিরাজ, ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক প্রকৌশলী আবদুস সবুর,  মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মেহের আফরোজ চুমকি,  শিক্ষা সম্পাদক সামছুন্নাহার চাঁপা ও মহানগর আওয়ামী লীগ এবং সহযোগী সংগঠনের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকগণ উপস্থিত ছিলেন।

/পিএইচসি/এমএস/

সম্পর্কিত

শেখ কামাল কোটি তরুণের প্রেরণার প্রজ্বলিত শিখা: ওবায়দুল কাদের

শেখ কামাল কোটি তরুণের প্রেরণার প্রজ্বলিত শিখা: ওবায়দুল কাদের

শেখ কামালের জন্মদিনে আওয়ামী লীগের শ্রদ্ধা 

শেখ কামালের জন্মদিনে আওয়ামী লীগের শ্রদ্ধা 

ইতিহাসের ভিলেনকে জোর করে নায়ক বানানো যায় না: ওবায়দুল কাদের

ইতিহাসের ভিলেনকে জোর করে নায়ক বানানো যায় না: ওবায়দুল কাদের

নির্লজ্জ মিথ্যাচার করে জনগণকে বিভ্রান্ত করবেন না: হানিফ

নির্লজ্জ মিথ্যাচার করে জনগণকে বিভ্রান্ত করবেন না: হানিফ

সর্বশেষ

নিশিতার কণ্ঠে বঙ্গবন্ধুকে হারানোর শোক

নিশিতার কণ্ঠে বঙ্গবন্ধুকে হারানোর শোক

রাজউক ও অন্যান্য সংস্থাকে মশকনিধন অভিযানের নির্দেশ স্থানীয় সরকারমন্ত্রীর

রাজউক ও অন্যান্য সংস্থাকে মশকনিধন অভিযানের নির্দেশ স্থানীয় সরকারমন্ত্রীর

বিশ্বের সবচেয়ে মোটা গাছ

বিশ্বের সবচেয়ে মোটা গাছ

টিকা ছাড়া শরীরে খালি সিরিঞ্জ পুশ, ২ নার্সকে প্রত্যাহার

টিকা ছাড়া শরীরে খালি সিরিঞ্জ পুশ, ২ নার্সকে প্রত্যাহার

বসুন্ধরা কিংস-মোহনবাগান লড়াই ২৪ আগস্ট

বসুন্ধরা কিংস-মোহনবাগান লড়াই ২৪ আগস্ট

মিয়ানমারে গণহত্যা চলছে, জাতিসংঘকে সতর্ক করলেন রাষ্ট্রদূত

মিয়ানমারে গণহত্যা চলছে, জাতিসংঘকে সতর্ক করলেন রাষ্ট্রদূত

‘কিশোর গ্যাং’ কালচার বন্ধে শিক্ষার্থীদের সাংস্কৃতিক চর্চায় যুক্ত করার উদ্যোগ

‘কিশোর গ্যাং’ কালচার বন্ধে শিক্ষার্থীদের সাংস্কৃতিক চর্চায় যুক্ত করার উদ্যোগ

ক্ষমতা নয় জাতি গঠনে নিবেদিত ছিলেন শেখ কামাল: মেয়র তাপস

ক্ষমতা নয় জাতি গঠনে নিবেদিত ছিলেন শেখ কামাল: মেয়র তাপস

ইরানে হামলা চালাতে প্রস্তুত ইসরায়েল: গান্তজ

ইরানে হামলা চালাতে প্রস্তুত ইসরায়েল: গান্তজ

রাজধানীতে প্রতারক চক্রের চার সদস্য গ্রেফতার

রাজধানীতে প্রতারক চক্রের চার সদস্য গ্রেফতার

১০ সহকর্মীকে ছাঁটাই করায় বিক্ষোভ তাদের

১০ সহকর্মীকে ছাঁটাই করায় বিক্ষোভ তাদের

লেবাননে বিমান হামলা শুরু করেছে ইসরায়েল

লেবাননে বিমান হামলা শুরু করেছে ইসরায়েল

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

‘ঢাকা মহানগরের নতুন কমিটি গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আন্দোলনে ভূমিকা রাখবে’

‘ঢাকা মহানগরের নতুন কমিটি গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আন্দোলনে ভূমিকা রাখবে’

ঢাকায় বিএনপির নতুন কমিটি: ওপরে উষ্ণতা, ভেতরে আক্ষেপ

ঢাকায় বিএনপির নতুন কমিটি: ওপরে উষ্ণতা, ভেতরে আক্ষেপ

জিয়াউর রহমানকে সম্পৃক্ত করতেই ‘নতুন গীত’ গাইছে সরকার: ফখরুল

জিয়াউর রহমানকে সম্পৃক্ত করতেই ‘নতুন গীত’ গাইছে সরকার: ফখরুল

‘গায়েবি মামলার মতো গায়েবি বেড, রোগী উড়ে যাচ্ছে’

‘গায়েবি মামলার মতো গায়েবি বেড, রোগী উড়ে যাচ্ছে’

করোনা নিয়ে সরকার মিথ্যা তথ্য দিচ্ছে: মির্জা ফখরুল

করোনা নিয়ে সরকার মিথ্যা তথ্য দিচ্ছে: মির্জা ফখরুল

দড়ি লাফে রাসেলের বিশ্ব রেকর্ড, মির্জা ফখরুলের অভিনন্দন

দড়ি লাফে রাসেলের বিশ্ব রেকর্ড, মির্জা ফখরুলের অভিনন্দন

কারখানা খোলার প্রতিবাদে বামজোটের বিক্ষোভ

কারখানা খোলার প্রতিবাদে বামজোটের বিক্ষোভ

লকডাউন চলাকালে বেতনসহ ছুটি নিশ্চিতের দাবি

লকডাউন চলাকালে বেতনসহ ছুটি নিশ্চিতের দাবি

‘লকডাউনের মাঝে পোশাক কারখানা খুলে দেওয়া প্রতারণার শামিল’

‘লকডাউনের মাঝে পোশাক কারখানা খুলে দেওয়া প্রতারণার শামিল’

আবারও নয়া পল্টনে যাবে ‘আসল বিএনপি’

আবারও নয়া পল্টনে যাবে ‘আসল বিএনপি’

© 2021 Bangla Tribune