X
বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১, ১৪ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

নাসির উদ্দিন মাহমুদ গ্রেফতার

আপডেট : ১৪ জুন ২০২১, ২২:৩৩

ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগে চলচ্চিত্র নায়িকা পরীমণির মামলা দায়েরের পর এজাহারভুক্ত ১ নম্বর আসামি নাসির উদ্দিন মাহমুদকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ-ডিবি। সোমবার (১৪ জুন) রাজধানীর উত্তরা এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার একেএম হাফিজ আক্তার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গোয়েন্দা পুলিশের যুগ্ম কমিশনার হারুণ অর রশিদ জানান, নাসির উদ্দিনকে উত্তরার ১ নম্বর সেক্টর থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাকে মিন্টো রোডের ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা কার্যালয়ে নেওয়া হচ্ছে। সেখানে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের পর তাকে মামলার তদন্ত সংস্থা সাভার থানায় হস্তান্তর করা হবে।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের এক কর্মকর্তা জানান, পরীমণির ঘটনায় এখন পর্যন্ত নাসির উদ্দিন মাহমুদ ছাড়াও আরও চার জনকে আটক করা হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে তাদের সংশ্লিষ্টতা যাচাই-বাছাই করা হচ্ছে। অভিযান এখনও চলমান রয়েছে।

গোয়েন্দা পুলিশের আরেক কর্মকর্তা জানান, উত্তরার এক নম্বর সেক্টরের ১২ নম্বর সড়কের ১৩ নম্বর বাসা থেকে নাসির উদ্দিন মাহমুদকে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় তার সঙ্গে থাকা তিন জন নারীকে আটক করা হয়েছে। এছাড়া ওই বাসা থেকে কিছু মাদকও জব্দ করা হয়েছে।

পুলিশের ওই কর্মকর্তা জানান, আটককৃতদের মধ্যে পরীমণির মামলার এজাহারভুক্ত আসামি অমিও রয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে পৃথক একটি মাদক মামলার প্রস্তুতিও চলছে।

এর আগে সাভার থানায় নির্যাতন ও ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে নাসির উদ্দিন মাহমুদসহ ছয় জনের নামে মামলা দায়ের করেন নায়িকা পরীমণি। সোমবার (১৪ জুন) দুপুরে পরীমণি নিজে বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন।

মামলার এজাহারে পরীমণি বলেন, গত ৮ জুন রাত সাড়ে ১১টার দিকে তার বনানীর বাসা থেকে কস্টিউম ডিজাইনার জিমি (৩০), অমি (৪০) ও বনিসহ (২০) দুটি গাড়িযোগে উত্তরার উদ্দেশে রওনা হই। পথে অমি বেড়িবাঁধস্থ ঢাকা বোট ক্লাবে তার দুই মিনিটের কাজ আছে বলে জানায়। অমির কথামতো সবাই রাত আনুমানিক ১২টা ২০ মিনিটের দিকে ঢাকা বোট ক্লাবের সামনে গিয়ে গাড়ি দাঁড় করাই। কিন্তু বোট ক্লাব বন্ধ হয়ে যাওয়ায় অমি কোনও এক ব্যক্তির সঙ্গে ফোনে কথা বলে। তখন ঢাকা বোট ক্লাবের সিকিউরিটি গার্ডরা গেট খুলে দেয়। পরে আমার ছোট বোন বনি প্রাকৃতিক ডাকে সাড়া দিতে বোট ক্লাবে প্রবেশ করে ও বারের কাছের টয়লেট ব্যবহার করি। টয়লেট হতে বের হতেই এক নম্বর বিবাদী নাসির উদ্দিন মাহমুদ আমাদের ডেকে বারের ভেতরে বসার অনুরোধ করেন এবং কফি খাওয়ার প্রস্তাব দেন। আমরা বিষয়টি এড়িয়ে যেতে চাইলে অমিসহ এক নম্বর আসামি মদপানের জন্য জোর করেন। আমি মদপান করতে না চাইলে এক নম্বর আসামি জোর করে আমার মুখে মদের বোতল প্রবেশ করিয়ে মদ খাওয়ানোর চেষ্টা করে। এতে আমার সামনের দাঁতে ও ঠোঁটে আঘাত পাই।

এজাহারে তিনি আরও বলেন, এক নম্বর আসামি (নাসির উদ্দিন মাহমুদ) আমাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে এবং আমার শরীরের বিভিন্ন স্পর্শকাতর স্থানে স্পর্শ করে এবং আমাকে জোর করে ধর্ষণের চেষ্টা করে। সে উত্তেজিত হয়ে টেবিলে থাকা গ্লাস ও মদের বোতল ভাঙচুর করে আমার গায়ে ছুড়ে মারে। তখন কস্টিউম ডিজাইনার জিমি নাসির মাহমুদকে বাধা দিতে গেলে তাকেও মারধর করে নীলাফোলা জখম করে।

পরীমণি বলেন, আমি প্রথমে জাতীয় জরুরি সেবা-৯৯৯ নম্বরে ফোন দিতে গেলে আমার ফোনটি টান মেরে ফেলে দেওয়া হয়। এ সময় দুই নম্বর আসামিসহ অজ্ঞাতনামা চার জন এক নম্বর আসামিকে ঘটনা ঘটাতে সহযোগিতা করে। আমি অজ্ঞাতনামা আসামিদের দেখলে শনাক্ত করতে পারবো।

এজাহারে তিনি আরও বলেন, দুই নম্বর আসামি অমি পরিকল্পিতভাবে আমাকে বর্তমান বাসা থেকে ঢাকা বোট ক্লাবে নিয়ে যায়। সে, অজ্ঞাতনামা চার জন আসামি ও নাসির উদ্দিন মাহমুদ আমার শরীরের বিভিন্ন স্পর্শকাতর স্থানে স্পর্শ করে এবং জোরপূর্বক আমাকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। আমি আমার সঙ্গীদের সহায়তায় ধর্ষকের হাত থেকে রক্ষা পাই। রাত আনুমানিক তিনটার সময় আমি আমার গাড়িযোগে প্রায় অচেতন অবস্থায় অপর সঙ্গীদের সহায়তায় বাসায় ফিরে আসি।

এর আগে, রবিবার (১৩ জুন) রাতে এক ফেসবুক পোস্টে প্রধানমন্ত্রীর কাছে বিচারের দাবি জানান পরীমণি। অভিযোগ করেন, তাকে এক প্রভাবশালী ব্যক্তি ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টা করেছিল চারদিন আগে, ঢাকা বোট ক্লাবে। এমন বিস্ফোরক অভিযোগের ঠিক দুই ঘণ্টার মাথায় নিজ বাসায় বসে সাংবাদিকদের কাছে সেই অভিযুক্ত ব্যক্তির নাম প্রকাশ করেন পরী।

তিনি অভিযোগ করেন, তার ওপর নারকীয় অত্যাচার চালিয়েছেন নাসির ইউ মাহমুদ নামের এক ব্যক্তি। ঘটনাটি ঢাকার বোট ক্লাবে ঘটে। অভিযুক্ত নাসির উত্তরা ক্লাবের সাবেক প্রেসিডেন্ট এবং বর্তমানে ঢাকা বোট ক্লাবের এন্টারটেইনমেন্ট অ্যান্ড কালচারাল অ্যাফেয়ার্স সেক্রেটারি পদে আছেন।

আরও পড়ুন...

মামলার এজাহারে যা বললেন পরীমণি

পরীমণি জানালেন ধর্ষণচেষ্টায় অভিযুক্তর নাম

আমি যদি মরে যাই সেটা হত্যা হবে, আত্মহত্যা নয়: পরীমণি

যে কারণে সেদিন পরীমণির অভিযোগ নেয়নি পুলিশ

/এনএল/আইএ/এমওএফ/

সম্পর্কিত

নগরবাসীর কাছে ১০ মিনিট সময় চান আতিকুল ইসলাম

নগরবাসীর কাছে ১০ মিনিট সময় চান আতিকুল ইসলাম

ডা. উত্তম কুমার বড়ুয়ার বিরুদ্ধে শিগগিরই চার্জশিট

ডা. উত্তম কুমার বড়ুয়ার বিরুদ্ধে শিগগিরই চার্জশিট

রাজধানীতে কলেজছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

রাজধানীতে কলেজছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

কমিউনিটি ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের সভা অনুষ্ঠিত

কমিউনিটি ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের সভা অনুষ্ঠিত

অনুমোদন পেল বুয়েট উদ্ভাবিত অক্সিজেট

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ১৬:০৯

কোভিড রোগীদের অক্সিজেনের চাহিদা পূরণে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) তৈরি ‘অক্সিজেট’ নামের ডিভাইসটিকে প্রাথমিকভাবে ২০০ ইউনিট উৎপাদনের অনুমোদন দিয়েছে ঔষধ প্রশাসন অধিদফতর।

ঔষধ প্রশাসন অধিদফতরের মুখপাত্র মো. সালাউদ্দিন এবং ডিভাইসটির উদ্ভাবক বুয়েট শিক্ষক ড. তওফিক হাসান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মো. সালাউদ্দিন বলেন, "ডিভাইসটিকে জরুরি অবস্থা বিবেচনা করে প্রাথমিকভাবে ২০০ ইউনিট উৎপাদনের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এগুলো ব্যবহারের পর যন্ত্রটি ঠিকমতো কাজ করছে কিনা, কোনও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া আছে কিনা এবং ডিভাইসটি আরও উন্নত করা যায় কিনা- এ বিষয়গুলো দেখে পরে আরও বাড়ানো হবে।"

উদ্ভাবক তওফিক হাসান কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানিয়ে দেওয়া ফেসবুক স্ট্যাটাসে বলেন, ''ঔষধ প্রশাসন অধিদফতর বুয়েটকে আপাতত ২০০ ইউনিট  "অক্সিজেট" সিপ্যাপ যন্ত্র তৈরি ও ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছে। করোনার এই পরিস্থিতিতে ঔষধ প্রশাসন অধিদফতরকে দ্রুততম সময়ে এই অনুমোদন দেওয়ার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ।"

/এমএস/

সম্পর্কিত

‘সবাইকে নিয়ে সেই বিপদেই পড়তে হলো’

‘সবাইকে নিয়ে সেই বিপদেই পড়তে হলো’

ওমর ফারুকের ‘মানসিক সুস্থতা’ পরীক্ষা করবে বিএসএমএমইউ

ওমর ফারুকের ‘মানসিক সুস্থতা’ পরীক্ষা করবে বিএসএমএমইউ

মাস্ক সঙ্গে থাকলেই হবে?

মাস্ক সঙ্গে থাকলেই হবে?

ঢাকায় আরও ১৫০ ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত

ঢাকায় আরও ১৫০ ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত

ফাঁকা শহরে বৃষ্টির আগমন (ফটোস্টোরি)

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ১৫:৫৮

বৃষ্টি কার না পছন্দ? আর সেটা যদি ফাঁকা শহরে সেটাতো আরও রোমাঞ্চকর। হ্যাঁ, চলমান কঠোর বিধিনিষিধে এখন অনেকটাই ফাঁকা রাজধানী ঢাকা। বন্ধ রয়েছে সব সরকারি-বেসরকারি অফিস। আর এ সুযোগে বৃষ্টির আগমনে ভিজেছে রাজধানীর প্রধান সড়ক থেকে অলিগলি। আবার অনেকেই মুক্ত বিহঙ্গে ভিজেছেন বৃষ্টিতে। কেউবা ছাউনির নিচে বসে উপভোগ করেছেন বৃষ্টির ছোঁয়া। আজ (বৃহস্পতিবার) সকাল থেকেই আকাশে দেখা মেলেনি সূর্যের। লঘুচাপ ও মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে বেড়েছে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা। এ বৃষ্টিপাত অপ্রত্যাশিত ছিল না। আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে, আগামী শনিবার (৩১ জুলাই) পর্যন্ত বৃষ্টিপাতের প্রবণতা অব্যাহত থাকবে।

ছবিতে দেখুন বিস্তারিত...

রাজধানীতে বৃষ্টি।

রাজধানীতে বৃষ্টি।

রাজধানীতে বৃষ্টি।

রাজধানীতে বৃষ্টি।

রাজধানীতে বৃষ্টি।

রাজধানীতে বৃষ্টি।

রাজধানীতে বৃষ্টি।

রাজধানীতে বৃষ্টি।

রাজধানীতে বৃষ্টি।

রাজধানীতে বৃষ্টি।

রাজধানীতে বৃষ্টি।

রাজধানীতে বৃষ্টি।

 

 

/এনএইচ/

সম্পর্কিত

চার দিন পর শিশুকে উদ্ধার, অপহরণকারী গ্রেফতার

চার দিন পর শিশুকে উদ্ধার, অপহরণকারী গ্রেফতার

চুক্তিতে কিলিং মিশনে কাজ করতো তারা

চুক্তিতে কিলিং মিশনে কাজ করতো তারা

ফকিরাপুলে হোটেল থেকে যুবকের লাশ উদ্ধার

ফকিরাপুলে হোটেল থেকে যুবকের লাশ উদ্ধার

এখনও ভেঙে ভেঙে রাজধানীতে আসছে মানুষ

এখনও ভেঙে ভেঙে রাজধানীতে আসছে মানুষ

চার দিন পর শিশুকে উদ্ধার, অপহরণকারী গ্রেফতার

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ১৫:১২

সাভার থেকে অপহরণের চার দিন পর স্বপ্না নামে ১১ বছরের এক শিশুকে উদ্ধার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটেলিয়ন র‌্যাব-৪। বুধবার (২৮ জুলাই) বিকালে সাভার এলাকা অপহরণের শিকার শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়। এসময় অপহরণকারী মো. মোছাদ্দেক আলমকে গ্রেফতার করা হয়।

বুধবার (২৯ জুলাই) দুপুরে র‌্যাব-৪ এর সিইও এডিশনাল ডিআইজি মোজাম্মেল হক বলেন, গত ২৬ জুলাই সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে আমরা জানতে পারি, ২৪ জুলাই সাভার এলাকা থেকে ১১ বছরের শিশু স্বপ্নাকে অপহরণ করে মুক্তিপণ চাওয়া হচ্ছে। পরবর্তীতে অভিযোগের ভিত্তিতে ছায়া তদন্ত শুরু করে র‌্যাব। তারই ধারাবাহিকতায় ২৮ জুলাই দিনভর অভিযান পরিচালনা করে সাভার মডেল থানাধীন এলাকা থেকে অপহৃত ১১ বছরের শিশুর স্বপ্না খাতুনকে উদ্ধার করা হয়। এ ছাড়া অপহরণের সঙ্গে জড়িত মোসাদ্দেক আলমকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত আসামিকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে, সে বিভিন্নভাবে প্রলোভন দেখিয়ে ভুক্তভোগীকে ২৪ জুলাই সাভার মডেল থানাধীন পলো মার্কেটের সামনে হতে অপহরণ করে। পরবর্তীতে সে ভুক্তভোগীকে ট্রাক করে দিনাজপুর জেলার বিরামপুর থানার ভিন্ন ভিন্ন স্থানে নিয়ে আটকে রাখে এবং ভিকটিমের পিতা-মাতার নিকট মুক্তিপণ দাবি করে। পরবর্তীতে সে পুনরায় ট্রাকযোগে সাভার এলাকায় চলে আসে এবং তখনই র‍্যাব-৪ কর্তৃক ভুক্তভোগীকে উদ্ধার করাসহ আসামিকে গ্রেফতার করা হয় জানান র‌্যাবের এই কর্মকর্তা।

 

/আরটি/এনএইচ/

সম্পর্কিত

ফাঁকা শহরে বৃষ্টির আগমন (ফটোস্টোরি)

ফাঁকা শহরে বৃষ্টির আগমন (ফটোস্টোরি)

চুক্তিতে কিলিং মিশনে কাজ করতো তারা

চুক্তিতে কিলিং মিশনে কাজ করতো তারা

ফকিরাপুলে হোটেল থেকে যুবকের লাশ উদ্ধার

ফকিরাপুলে হোটেল থেকে যুবকের লাশ উদ্ধার

এখনও ভেঙে ভেঙে রাজধানীতে আসছে মানুষ

এখনও ভেঙে ভেঙে রাজধানীতে আসছে মানুষ

গার্মেন্টস কর্মীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, দুজন গ্রেফতার

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ১৫:০৫

রাজধানীর কদমতলী থানা এলাকার মুরাদপুরে এক গার্মেন্টস কর্মীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। এই ঘটনায় ভিকটিম নিজেই বাদী হয়ে ছয়জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেছে। মামলায় পুলিশ দুজনকে গ্রেফতার করলেও অন্য আসামিরা পলাতক রয়েছে। 

আটককৃত আসামিরা হলো মো. মেহেদী হাসান (১৯) ও মো. সোহাগ হোসেন (২০)।

বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) কদমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জামাল উদ্দিন জানান, উনিশ বছর বয়সী ওই গার্মেন্টস কর্মী যাত্রাবাড়ী এলাকায় থাকেন। এলাকারই একটি গার্মেন্টসে চাকরি করেন তিনি। গত মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) সন্ধ্যায় আকাশ (২০) নামে পূর্ব পরিচিত এক যুবক মোবাইল ফোনে তাকে ডেকে নেয়। এরপর সেখান থেকে মুরাদপুরের একটি বাড়ির ছাদে নিয়ে তাকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ করে। 

ঘটনার পরপরই ৯৯৯ নম্বরে কল পেয়ে রাতেই ভিকটিমকে উদ্ধার করা হয় এবং ঘটনাস্থল থেকে দুজনকে গ্রেফতার করা হয়। পরে ভিকটিম নিজেই বাদী হয়ে ৬ জনের নামে একটি সংঘবদ্ধ ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। 

তিনি আরও বলেন, প্রাথমিকভাবে তারা ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছে। ঘটনার বিস্তারিত তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। বাকি ৪ আসামি পলাতক রয়েছে। তাদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) সজীব দে বলেন, বুধবার (২৮ জুলাই) মধ্যরাতে ওই গার্মেন্টস কর্মীকে শারীরিক পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) পাঠানো হয়। আটককৃত আসামিদেরকে কোর্টে চালান করা হয়েছে।

 

/এআইবি/আরটি/এনএইচ/

সম্পর্কিত

করোনা আক্রান্ত হয়ে ৫৯ জন বিচারক চিকিৎসাধীন

করোনা আক্রান্ত হয়ে ৫৯ জন বিচারক চিকিৎসাধীন

ঢাকায় গ্রেফতার বেড়েছে

ঢাকায় গ্রেফতার বেড়েছে

এডিস মশা নিয়ন্ত্রণে অভিযান: ২৪ মামলায় ৩ লাখ ৩১ হাজার টাকা জরিমানা

এডিস মশা নিয়ন্ত্রণে অভিযান: ২৪ মামলায় ৩ লাখ ৩১ হাজার টাকা জরিমানা

দক্ষিণখানে ইয়াবাসহ গ্রেফতার নারী কারাগারে

দক্ষিণখানে ইয়াবাসহ গ্রেফতার নারী কারাগারে

মাদক ভয়ংকর-৪

কত প্রকার মাদক আছে দেশে?

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ১৫:০০

দেশে এখন পর্যন্ত উদ্ধার হয়েছে ২৭ ধরনের মাদক। নিয়মিত সেবনের তালিকায় ১৮ ধরনের মাদকই বেশি। সবচেয়ে বেশি সেবন হচ্ছে ইয়াবা ও গাঁজা। নতুন আইন করেও কমানো যায়নি মাদকের ব্যাপকতা। অভিযান চালিয়ে সরবরাহ চ্যানেল কিছু সময়ের জন্য আটকানো গেলেও আসক্তরা মাদক পাচ্ছে নিয়মিতই। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, প্রতিবেশী দেশগুলোতে মাদকের প্রসার না কমলে বাংলাদেশেও এর ভয়াবহতা নিয়ন্ত্রণে আনা যাবে না। এ নিয়ে নীতিনির্ধারকদের একযোগে পদক্ষেপ নেওয়ার সুপারিশ করেছেন বিশেষজ্ঞরা।

২৭ রকম মাদক

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও গবেষকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, নতুন চার ধরনের মাদকসহ বাংলাদেশে ২৭ ধরনের মাদক উদ্ধার হয়েছে। এগুলো হলো- ম্যাজিক মাশরুম, ডায়মিথাইলট্রিপ্টামাইন (ডিএমটি), লাইসার্জিক অ্যাসিড ডাইইথ্যালামাইড (এলএসডি), ক্রিস্টাল মেথ বা আইস বা মেথামফিটামিন, এস্কাফ সিরাপ, ইয়াবা, ফেনসিডিল, গাঁজা, হেরোইন, প্যাথিডিন, চোলাই মদ, দেশি মদ, বিদেশি মদ, বিয়ার, রেক্টিফায়েড স্পিরিট, ডিনেচার্ড স্পিরিট, তাড়ি, বুপ্রেনরফিন (টি.ডি. জেসিক ইঞ্জেকশন), ভাং, কোডিন ট্যাবলেট, ফার্মেন্টেড ওয়াশ (জাওয়া), বুপ্রেনরফিন (বনোজেসিক ইনজেকশন), মরফিন, ভায়াগ্রা, সানাগ্রা, টলুইন, পটাশিয়াম পারম্যাংগানেট ও মিথাইল-ইথাইল কিটোন।

এ ছাড়াও বিভিন্ন বৈধ ড্রাগ একসঙ্গে মিশিয়ে তৈরি হচ্ছে মাদক। এসবও সেবন হচ্ছে দেদার।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের অতিরিক্ত পরিচালক (চট্টগ্রাম অঞ্চল) মজিবুর রহমান পাটোয়ারী বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আমাদের দেশের মাদকসেবীদের একাধিক মাদক গ্রহণের ঝোঁক রয়েছে। যে মাদকটা সে নিয়মিত গ্রহণ করে, সেটি না পেলে হাতের কাছে যা পায় তা-ই নিয়ে নেয়। মাদকসেবীরা নিজেরাও বৈধ ড্রাগের অপব্যবহার করছে। আমারা দেখেছি দেশে ৮ থেকে ১০ ধরনের মাদক নেওয়ার প্রবণতা বেশি। বাকিগুলো খুব একটা দেখা যায় না।’

আন্তর্জাতিক চক্রের নজর কেন বাংলাদেশে?

মাদকাসক্তি বিষয়ক গবেষক ও নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. এমদাদুল হক বলেন, ‘ভৌগোলিকভাবেই বাংলাদেশ বিশ্বের তিনটি বৃহত্তম মাদক উৎপাদনকারী অঞ্চলের মাঝে পড়েছে। এটি একটি ‘স্যান্ডউইচ’ অবস্থা। গোল্ডেন ট্রায়াঙ্গলে আছে মিয়ানমার ও থাইল্যান্ড, গোল্ডেন ওয়েজ অঞ্চলের শীর্ষস্থানীয় দেশ ভারত এবং গোল্ডেন ক্রিসেন্ট অঞ্চলে আছে পাকিস্তান, ইরান ও আফগানিস্তান।’

তিনি আরও বলেন, ‘আন্তর্জাতিক মাদক চোরাচালানে তাই বাংলাদেশের ভূকৌশলগত গুরুত্ব অনেক। এ চক্রের সঙ্গে বাংলাদেশের মাদক কারবারিদের যোগাযোগটাও এ কারণে শক্তিশালী। শ্রীলঙ্কায় এর আগে মাদক নিয়ে বাংলাদেশি নারী-পুরুষ গ্রেফতার হয়েছে। বাংলাদেশ থেকে ইয়াবা মধ্যপ্রাচ্য পর্যন্ত পৌঁছে যায়। এমনকি যুক্তরাষ্ট্রেও পাঠানোর চেষ্টা হয়েছে। বিমানবন্দরে অনেকেই গ্রেফতার হয়েছে ও হচ্ছে।’

অধ্যাপক এমদাদুল হক বলেন, ‘বাংলাদেশকে মাদকের হাত থেকে বাঁচাতে এই অঞ্চলের প্রতিবেশী দেশগুলো নিয়েও কাজ করতে হবে। কারণ তাদের দেশে মাদকের ভয়াবহতা থাকলে প্রভাব বাংলাদেশে পড়বেই।’

 

/এফএ/আপ-এনএইচ/
টাইমলাইন: ভয়ংকর মাদক
২৯ জুলাই ২০২১, ১৫:০০
কত প্রকার মাদক আছে দেশে?
২৮ জুলাই ২০২১, ১৩:০০
২৬ জুলাই ২০২১, ১৬:০৯

সম্পর্কিত

মাস্ক সঙ্গে থাকলেই হবে?

মাস্ক সঙ্গে থাকলেই হবে?

ডিজিটাল আর্থিক লেনদেনে ‘ট্যাপ’র উদ্বোধন করলেন সেনাপ্রধান

ডিজিটাল আর্থিক লেনদেনে ‘ট্যাপ’র উদ্বোধন করলেন সেনাপ্রধান

ডেঙ্গুর বিস্তার রোধে প্রাথমিকের নির্দেশনা

ডেঙ্গুর বিস্তার রোধে প্রাথমিকের নির্দেশনা

লকডাউনে ঢাকায় ফেরার গল্প (ভিডিও স্টোরি)

লকডাউনে ঢাকায় ফেরার গল্প (ভিডিও স্টোরি)

সর্বশেষ

রাস্তা পার হতে গিয়ে প্রাণ হারালেন স্বামী-স্ত্রী

রাস্তা পার হতে গিয়ে প্রাণ হারালেন স্বামী-স্ত্রী

বলিউড তারকাদের বিলাসবহুল ভ্যানিটি ভ্যান

বলিউড তারকাদের বিলাসবহুল ভ্যানিটি ভ্যান

চারমাস ধরে সুনসান সুন্দরবন, সংকটে ট্যুর কর্মীরা

চারমাস ধরে সুনসান সুন্দরবন, সংকটে ট্যুর কর্মীরা

লোকবল নিচ্ছে ডাচ বাংলা ব্যাংক

লোকবল নিচ্ছে ডাচ বাংলা ব্যাংক

অনুমোদন পেল বুয়েট উদ্ভাবিত অক্সিজেট

অনুমোদন পেল বুয়েট উদ্ভাবিত অক্সিজেট

টিকার নিবন্ধনে জনপ্রতি নেওয়া হয় দেড় হাজার টাকা!

টিকার নিবন্ধনে জনপ্রতি নেওয়া হয় দেড় হাজার টাকা!

ফাঁকা শহরে বৃষ্টির আগমন (ফটোস্টোরি)

ফাঁকা শহরে বৃষ্টির আগমন (ফটোস্টোরি)

আমিরাত থেকে আসা জাহাজের ৮ নাবিক করোনায় আক্রান্ত

আমিরাত থেকে আসা জাহাজের ৮ নাবিক করোনায় আক্রান্ত

সাতক্ষীরায় করোনা উপসর্গে ৫ নারীর মৃত্যু

সাতক্ষীরায় করোনা উপসর্গে ৫ নারীর মৃত্যু

গতবারের চেয়ে এবার কৃষিঋণ ২০০০ কোটি টাকা বেশি বিতরণ করতে চায় ব্যাংক

গতবারের চেয়ে এবার কৃষিঋণ ২০০০ কোটি টাকা বেশি বিতরণ করতে চায় ব্যাংক

‘দুই ম্যাচের একটি জিতিয়েছি, তবে আলোচনায় আসার মতো ইনিংস খেলিনি’

‘দুই ম্যাচের একটি জিতিয়েছি, তবে আলোচনায় আসার মতো ইনিংস খেলিনি’

আবারও শিল্প-কারখানা খুলে দেওয়ার দাবি গার্মেন্টস মালিকদের

আবারও শিল্প-কারখানা খুলে দেওয়ার দাবি গার্মেন্টস মালিকদের

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

নগরবাসীর কাছে ১০ মিনিট সময় চান আতিকুল ইসলাম

নগরবাসীর কাছে ১০ মিনিট সময় চান আতিকুল ইসলাম

ডা. উত্তম কুমার বড়ুয়ার বিরুদ্ধে শিগগিরই চার্জশিট

ডা. উত্তম কুমার বড়ুয়ার বিরুদ্ধে শিগগিরই চার্জশিট

রাজধানীতে কলেজছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

রাজধানীতে কলেজছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

কমিউনিটি ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের সভা অনুষ্ঠিত

কমিউনিটি ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের সভা অনুষ্ঠিত

প্রাথমিক শিক্ষা সংশ্লিষ্টদের ১১ আগস্টের মধ্যে টিকা গ্রহণের নির্দেশ

প্রাথমিক শিক্ষা সংশ্লিষ্টদের ১১ আগস্টের মধ্যে টিকা গ্রহণের নির্দেশ

মাদকের মামলায় ৪ নাইজেরিয়ান কারাগারে

মাদকের মামলায় ৪ নাইজেরিয়ান কারাগারে

ডেঙ্গুর লার্ভার তথ্য দেওয়ার আহ্বান তাপসের

ডেঙ্গুর লার্ভার তথ্য দেওয়ার আহ্বান তাপসের

এখনও ঢাকা ছাড়ছেন মানুষ

এখনও ঢাকা ছাড়ছেন মানুষ

নৌ-চলাচলে বিঘ্ন, বছিলা সেতু ভেঙে ফেলার চিন্তা

নৌ-চলাচলে বিঘ্ন, বছিলা সেতু ভেঙে ফেলার চিন্তা

ঢাকায় আরও ১৫০ ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত

ঢাকায় আরও ১৫০ ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত

© 2021 Bangla Tribune