X
শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪
১ আষাঢ় ১৪৩১

৩০০টিরও বেশি ত্রাণবাহী ট্রাক গাজায় প্রবেশ করেছে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
০৮ এপ্রিল ২০২৪, ১৭:৪৭আপডেট : ০৮ এপ্রিল ২০২৪, ১৭:৫০

ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় ৩০০টিরও বেশি ত্রাণবাহী ট্রাক প্রবেশ করেছে সোমবার (৮ এপ্রিল) ‍এই ঘোষণা দিয়েছে ইসরায়েল অবরুদ্ধ এই অঞ্চলটিতে যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকে প্রতিদিন ত্রাণবাহী ট্রাক প্রবেশের সর্বোচ্চ সংখ্যা এটি কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা এই খবর জানিয়েছে

অঞ্চলটিতে খাদ্য সহায়তা প্রবেশের জন্য ইসরায়েলকে ক্রমবর্ধমানভাবে চাপ দিয়ে আসছে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়। এরইমধ্যে দেশটি সোমাবার ফিলিস্তিনি এই ভূখণ্ডে ৩২২টি ত্রাণবাহী ট্রাক প্রবেশ করানোর কথা জানিয়েছে। তবে  অঞ্চলটির অনাহারে ভোগা লাখ লাখ ফিলিস্তিনির জন্য গাজায় সোমবার প্রবেশ করা এই সংখ্যক ট্রাক যথেষ্ট নয়।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম এক্সে দেওয়া একটি বিবৃতিতে ইসরায়েলের কোঅর্ডিনেটর অব গর্ভনমেন্ট অ্যাক্টিভিটিস ইন দ্য টেরিটরি (সিওজিএটি) বলেছে, ত্রাণবাহী গাড়িবহরের ২২৮টি ট্রাকে খাদ্যপণ্য ছিল। এই ট্রাকগুলো মোট সংখ্যার ৭০ শতাংশ।

মিসরের সীমান্তবর্তী দক্ষিণাঞ্চলীয় রাফাহ ক্রসিং দিয়ে যাওয়া কিছু ট্রাক পর্যবেক্ষণ করেছে আল-জাজিরা। রাফাহ থেকে আল-জাজিরার প্রতিবেদক তারেক আবু আজউম জানিয়েছেন, অন্যান্য ট্রাকগুলোও কারেম আবু সালেম সীমান্ত দিয়ে গিয়েছিল। এই সীমান্তটি ইসরায়েলিদের কাছে কেরেম শালোম নামে পরিচিত।

তিনি বলেন, মানবিক সহায়তা বহনকারী গাড়ি বহরের অধিকাংশ গাড়িই পানি, চিনি, আটা ও অন্যান্য নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস বোঝাই ছিল।

তবে গাজার দক্ষিণাঞ্চল থেকে কোনও ট্রাককে উত্তরাঞ্চলে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হয়নি বলে জানিয়েছেন এই প্রতিবেদক। জাতিসংঘ এবং অন্যান্য মানবিক গোষ্ঠীর মতে, উত্তর গাজা দুর্ভিক্ষের সম্মুখীন হয়েছে।

রাফাহ ক্রসিং পরিচালনাকারী কর্তৃপক্ষের এক মুখপাত্র হিশাম আদওয়ান আল-জাজিরাকে বলেছেন, খাদ্য সহায়তার এই চালান যুদ্ধের আগে এই অঞ্চলে প্রবেশ করা চালানের একটি ভগ্নাংশ মাত্র।

হিশাম আদওয়ান বলেন, ‘উপত্যকাটিতে বড় ধরণের দুর্ভিক্ষ দেখা দিয়েছে: বিশেষ করে উত্তরাঞ্চল এবং গাজা শহরে। দক্ষিণাঞ্চল ও একটি বড় মানবিক বিপর্যয়ের মধ্যে রয়েছে। এমতাবস্থায় প্রতিদিন এই পদ্ধতিতে সাহায্য আনা যথেষ্ট নয়।’

জাতিসংঘের সাহায্য সংস্থা এবং অন্যান্য মানবিক গোষ্ঠীগুলো এখন বলেছে, অবরুদ্ধ গাজা অঞ্চলের এই ভয়াবহ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সেখানে  প্রতিদিন কমপক্ষে ৫০০ থেকে ৬০০ ট্রাক মানবিক সহায়তা এবং বাণিজ্যিক পণ্যের প্রয়োজন।

ধারণা করা হচ্ছে, উত্তর এবং মধ্য গাজা থেকে বাস্তুচ্যুত ফিলিস্তিনিদের মধ্যে প্রায় ১৫ লাখই এখন দক্ষিণাঞ্চলীয় রাফাহ শহরে আশ্রয় নিচ্ছেন। সেখানে ইসরায়েলি হামলার মুখে অনিশ্চয়তার মধ্যে রয়েছে আশ্রয় নেওয়া এসব ফিলিস্তিনিদের ভবিষ্যত।

/এএকে/
সম্পর্কিত
৯৩ হাজার হজযাত্রীকে স্বাস্থ্যসেবা দিলো সৌদি
পবিত্র হজ আজ, আরাফাতের ময়দান মুখরিত ‘লাব্বাইক’ ধ্বনিতে
ইসরায়েল-হিজবুল্লাহ উত্তেজনা বাড়ছে, বৃহত্তর সংঘাতের আশঙ্কা
সর্বশেষ খবর
এবার ঢাকার নাটকে ও ওয়েব ফিল্মে ‘ভাইরাল বেবি’ দর্শনা
এবার ঢাকার নাটকে ও ওয়েব ফিল্মে ‘ভাইরাল বেবি’ দর্শনা
ঈদে কুড়িগ্রামে বন্যার শঙ্কা
ঈদে কুড়িগ্রামে বন্যার শঙ্কা
বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটিতে রদবদল
বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটিতে রদবদল
৯৩ হাজার হজযাত্রীকে স্বাস্থ্যসেবা দিলো সৌদি
৯৩ হাজার হজযাত্রীকে স্বাস্থ্যসেবা দিলো সৌদি
সর্বাধিক পঠিত
শ্রমিকদের অবরোধে বন্ধ ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক
শ্রমিকদের অবরোধে বন্ধ ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক
অবশেষে বদলি হলেন সাতক্ষীরা পৌরসভার সেই সিইও
অবশেষে বদলি হলেন সাতক্ষীরা পৌরসভার সেই সিইও
সেন্টমার্টিনে খাদ্যসংকট, কক্সবাজার থেকে গেলো পণ্যবোঝাই জাহাজ
সেন্টমার্টিনে খাদ্যসংকট, কক্সবাজার থেকে গেলো পণ্যবোঝাই জাহাজ
যানজট এড়াতে ঘুরতে হচ্ছে ২৯ কিলোমিটার সড়ক
যানজট এড়াতে ঘুরতে হচ্ছে ২৯ কিলোমিটার সড়ক
রুশ সম্পদ ‘চুরি’র পরিণতি পশ্চিমাদের ভুগতে হবে, হুঁশিয়ারি পুতিনের
রুশ সম্পদ ‘চুরি’র পরিণতি পশ্চিমাদের ভুগতে হবে, হুঁশিয়ারি পুতিনের