X
বুধবার, ২৯ মে ২০২৪
১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

লক্ষ্মীপুরে গুলিবিদ্ধ ছাত্রলীগ নেতা মারা গেছেন

রায়পুর প্রতিনিধি
১৭ এপ্রিল ২০২৪, ০৯:৩৯আপডেট : ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ০৯:৩৯

লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার চন্দ্রগঞ্জের পাঁচপাড়ায় প্রতিপক্ষের গুলিতে আহত ছাত্রলীগ নেতা সজিব মারা গেছেন। মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) রাত ২টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে মারা যান বলে দলীয় সূত্র নিশ্চিত করেছে।

সজিব সদর উপজেলার চন্দ্রগঞ্জ থানাধীন পাঁচপাড়া গ্রামের মৃত সিরাজ মিয়ার দ্বিতীয় ছেলে। তিনি কফিল উদ্দিন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের ছাত্র এবং ছাত্র নেতা ছিলেন।

জানা গেছে, স্থানীয় একটি ওয়াজ মাহফিল থেকে শুক্রবার (১২ এপ্রিল) রাতে ফেরার পথে এলাকায় আধিপত্য বিস্তারের দ্বন্দ্বের জেরে লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার পাঁচপাড়া গ্রামের জৈদের পুকুরপাড় এলাকায় স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতাকর্মীদের ছোড়া গুলিতে ছয় ছাত্রলীগ নেতা আহত হন। চন্দ্রগঞ্জ থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক কাজী মামুনুর রশিদ বাবলুর গ্রুপ অতর্কিত গুলি চালিয়েছিল।

স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখান থেকে মাথায় গুলিবিদ্ধ হয়ে গুরুতর আহত সজিবসহ চার জনকে ঢাকায় পাঠানো হয়। ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে তার মাথায় অস্ত্রোপচার করা হলেও আর জ্ঞান ফেরেনি। ওই হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার দিবাগত রাত ২টায় মারা যান।

সোমবার দিবাগত রাতে নিহতের মা বুলি বেগম বাদী হয়ে চন্দ্রগঞ্জ থানায় থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক কাজী মামুনুর রশিদ বাবলু ও সদস্য সচিব তাজু ভূঁইয়াসহ ১১ জনের নাম উল্লেখ করে ৩১ জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা করেন। এরপর পুলিশ তাজু ভূঁইয়াসহ তিন জনকে গ্রেফতার করে মঙ্গলবার আদালতে সোপর্দ করেছেন।

/এফআর/
সম্পর্কিত
রাবিতে খাবারে সিগারেট: আন্দোলন-ভাঙচুরে জড়িতদের বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত
খাবারে সিগারেট পাওয়ার অভিযোগে হলগেটে তালা দিয়ে ভাঙচুর
ডিএসসিসি ২৫ ভাগের বেশি বনায়ন সৃষ্টি করবে: মেয়র তাপস
সর্বশেষ খবর
‘মাঙ্কি মাইন্ড’ কাকে বলে জানেন?
‘মাঙ্কি মাইন্ড’ কাকে বলে জানেন?
চেয়ারম্যান প্রার্থীর স্লিপ বিতরণের অভিযোগে পৌর কাউন্সিলর আটক
চেয়ারম্যান প্রার্থীর স্লিপ বিতরণের অভিযোগে পৌর কাউন্সিলর আটক
আইন তার নিজস্ব গতিতে চলবে: সালমান এফ রহমান
আইন তার নিজস্ব গতিতে চলবে: সালমান এফ রহমান
সাতক্ষীরায় নির্বাচনি সহিংসতা সৃষ্টির অভিযোগে আটক ৪
সাতক্ষীরায় নির্বাচনি সহিংসতা সৃষ্টির অভিযোগে আটক ৪
সর্বাধিক পঠিত
আরেক পুলিশ কর্মকর্তা ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে দুদকের মামলা
আরেক পুলিশ কর্মকর্তা ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে দুদকের মামলা
আ.লীগের ১১ এমপি খুন, বিদেশে প্রথম আনার
আ.লীগের ১১ এমপি খুন, বিদেশে প্রথম আনার
ব্যাংক বাড়ায় সুদ, টাকা যায় মানুষের পকেটে!
ব্যাংক বাড়ায় সুদ, টাকা যায় মানুষের পকেটে!
শান্তি সম্মেলনে বাইডেনের অনুপস্থিতিতে হাততালি দেবেন পুতিন: জেলেনস্কি
শান্তি সম্মেলনে বাইডেনের অনুপস্থিতিতে হাততালি দেবেন পুতিন: জেলেনস্কি
আনার হত্যার ঘটনাস্থল থেকে মাংসপিণ্ড উদ্ধারের দাবি
আনার হত্যার ঘটনাস্থল থেকে মাংসপিণ্ড উদ্ধারের দাবি