X
মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
১৪ ফাল্গুন ১৪৩০

নেতাকর্মীদের আটকে রেখে হামলা অন্যায় ও বেআইনি: মির্জা ফখরুল

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ১৭:২৮আপডেট : ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ১৮:০০

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আমাদের নেতাকর্মীদের আটকে রেখে হামলা সম্পূর্ণ অন্যায় এবং বেআইনি। এই হামলার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি এবং অবিলম্বে পুলিশকে প্রত্যাহারের দাবি জানাচ্ছি। তিনি বলেন, ‘ডিসেম্বরে সমাবেশকে কেন্দ্র করে এ ধরনের হামলা চলছে। তারা জনগণের অধিকার কেড়ে নিতে চায়। আমাকে অফিসে পর্যন্ত ঢুকতে দেওয়া হয়নি।’

বুধবার (৭ ডিসেম্বর) বিকালে নয়াপল্টনে বিএনপি-পুলিশ সংঘর্ষের পর কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ঢুকতে গিয়ে পুলিশের বাধা পেয়ে এ কথা বলেন তিনি।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘বাংলাদেশকে তারা নষ্ট করার চেষ্টা করছে। আমরা ধৈর্য ধরছি। আশা করছি, এখনই পুলিশকে প্রত্যাহার করবে।’

এর আগে বুধবার বিকাল ৪টা ৫০ মিনিটের দিকে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপি-পুলিশ সংঘর্ষের সময় দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর দলের প্রধান কার্যালয়ে প্রবেশ করতে গেলে পুলিশের বাধার মুখে পড়েন। বাধা পেয়ে তিনি কার্যালয়ের গেটের সামনে কিছুক্ষণ দাঁড়িয়ে থেকে পরে রাস্তার ওপর বসে পড়েন।

উল্লেখ্য, ১০ ডিসেম্বর ঢাকা বিভাগীয় গণসমাবেশকে সামনে রেখে আজ সকাল থেকে নয়া পল্টনে জড়ো হতে থাকে দলটির নেতাকর্মীরা। এ সময় পুলিশ তাদের ছত্রভঙ্গ করে দিতে গেলে দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। এসময় উভয় পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এসময় পুলিশ ছররা গুলি ও টিয়ারশেল ছোড়ে। পরে পুলিশ পুরো এলাকার নিয়ন্ত্রণ নেয়। পরিস্থিতি এখন থমথমে।

আরও পড়ুন:

/এএইচ/এপিএইচ/এমওএফ/
সম্পর্কিত
একুশের চেতনা গণতন্ত্র ও খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলন তীব্রতর করবে: মির্জা ফখরুল
খালেদা জিয়ার সঙ্গে মির্জা ফখরুলের সাক্ষাৎ
মুক্ত হয়েই বিএনপিতে ‘গতি আনার’ চ্যালেঞ্জে মির্জা ফখরুল
সর্বশেষ খবর
‘নজরুল-সৃষ্টি ফিরে দেখা’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন
‘নজরুল-সৃষ্টি ফিরে দেখা’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন
মৌলভীবাজারে পৃথক স্থানে দুজন খুন
মৌলভীবাজারে পৃথক স্থানে দুজন খুন
ফিলিস্তিনের নিহত-নিপীড়িত সাংবাদিকদের প্রতি সংহতি প্রকাশ
ফিলিস্তিনের নিহত-নিপীড়িত সাংবাদিকদের প্রতি সংহতি প্রকাশ
অমর্ত্য-ঋদ্ধের বহিষ্কারাদেশ বাতিল না করলে আন্দোলনের হুঁশিয়ারি
অমর্ত্য-ঋদ্ধের বহিষ্কারাদেশ বাতিল না করলে আন্দোলনের হুঁশিয়ারি
সর্বাধিক পঠিত
শাস্তি পেতে যাচ্ছেন ‘বঙ্গবন্ধু বিচ’ নামকরণে জড়িত কর্মকর্তা
শাস্তি পেতে যাচ্ছেন ‘বঙ্গবন্ধু বিচ’ নামকরণে জড়িত কর্মকর্তা
চট্টগ্রাম বন্দরে প্রথমবারের মতো বিদেশি তত্ত্বাবধানে চালু হচ্ছে নতুন টার্মিনাল
চট্টগ্রাম বন্দরে প্রথমবারের মতো বিদেশি তত্ত্বাবধানে চালু হচ্ছে নতুন টার্মিনাল
রুশ হামলায় পূর্বাঞ্চলীয় গ্রাম থেকে পিছু হটলো ইউক্রেন
রুশ হামলায় পূর্বাঞ্চলীয় গ্রাম থেকে পিছু হটলো ইউক্রেন
শাহজালালে যাত্রীর সোনার বার হাতিয়ে নেন কাস্টম কর্মকর্তা
শাহজালালে যাত্রীর সোনার বার হাতিয়ে নেন কাস্টম কর্মকর্তা
ইউক্রেনে সেনা পাঠানোর কথা ভাবছে কয়েকটি পশ্চিমা দেশ: স্লোভাকিয়া
ইউক্রেনে সেনা পাঠানোর কথা ভাবছে কয়েকটি পশ্চিমা দেশ: স্লোভাকিয়া