X
বৃহস্পতিবার, ০৫ আগস্ট ২০২১, ২১ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

বাঁশখালী হত্যাকাণ্ড

মেনে নেওয়া হবে শ্রমিকদের দাবি

আপডেট : ১৮ এপ্রিল ২০২১, ০০:৫৪

বাঁশখালীর গন্ডামারায় এস আলম গ্রুপের নির্মাণাধীন কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্রে পুলিশের সঙ্গে শ্রমিকদের সংঘর্ষে পাঁচ শ্রমিক নিহতের পর আন্দোলনরতদের যৌক্তিক দাবি মেনে নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এছাড়া নিহত শ্রমিকদের পরিবারকে তিন লাখ এবং আহতদের ৫০ হাজার টাকা করে সহায়তার কথা জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক মোমিনুর রহমান।

তিনি বলেন, ‘ঘটনায় নিহতদের পরিবারকে তিন লাখ এবং আহতদের ৫০ হাজার টাকা সহায়তা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। শিগগিরই হতাহতদের পরিবারের হাতে এই সহায়তার অর্থ তুলে দেওয়া হবে। বিদ্যুৎকেন্দ্র কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আমাদের কথা হয়েছে। তারা শ্রমিকদের যৌক্তিক দাবি মেনে নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন।’

শনিবার (১৭ এপ্রিল) সন্ধ্যায় এক জরুরি বৈঠকে এসব সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় বলে জানা গেছে।

এদিকে বৈঠকে ঘটনার তদন্তে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেটকে প্রধান করে চার সদস্যের একটি কমিটি গঠন করেন জেলা প্রশাসক। কমিটিতে পুলিশের একজন, কলকারখানা অধিদফতর থেকে একজন এবং বিদ্যুৎ বিভাগ থেকে একজন করে প্রতিনিধি রয়েছেন।

জেলা প্রশাসক মোমিনুর রহমান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‌‌‘বাঁশখালীর ঘটনা তদন্তে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেটকে প্রধান করে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। ওই কমিটিকে সাত দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।’

অন্যদিকে একই ঘটনায় ডিআইজি কার্যালয় থেকেও ঘটনা তদন্তে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

চট্টগ্রাম রেঞ্জ ডিআইজি আনোয়ার হোসেন বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, বাঁশখালীর ঘটনা তদন্তে চট্টগ্রাম রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি (অপরাশেন ও ক্রাইম) জাকির হোসেন খানকে প্রধান করে তিন সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিতে চট্টগ্রাম রেঞ্জ কার্যালয়ের পুলিশ সুপার (এসপি) নেছার উদ্দীন, চট্টগ্রাম জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এএসপি) কবির হোসেনকে সদস্য করা হয়েছে। তারা সাত দিনের মধ্যে এই বিষয়ে তদন্ত করে প্রতিবেদন জমা দেবেন।

এর আগে, শনিবার সকালে ১০ দফা দাবিতে বিদ্যুৎকেন্দ্রের শ্রমিকরা বিক্ষোভ শুরু করলে পুলিশের সঙ্গে তাদের সংঘর্ষ হয়। শ্রমিকরা সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশের অতিউৎসাহী অবস্থনাকে দায়ী করেছেন। সংঘর্ষে পুলিশের গুলিতে পাঁচ শ্রমিক নিহত হন। এতে আরও অন্তত ২৫ জনের মতো আহত হন। আহতদের মধ্যে পুলিশের তিন সদস্যও রয়েছেন। তাদের শরীরে ইট-পাথরের আঘাত রয়েছে।

নিহতরা হলেন- কিশোরগঞ্জের ফারুক আহমদেও ছেলে মাহমুদ হাসান রাহাত (২২), চুয়াডাঙ্গার অলিউল্লাহর ছেলে মো. রনি হোসেন (২৩), নোয়াখালীর আব্দুল মতিনের ছেলে মো. রায়হান (১৯), চাঁদপুরের মো. নজরুলের ছেলে মো. শুভ (২২) এবং বাঁশখালীর পূর্ব বড়ঘোনার আবু ছিদ্দিকির ছেলে মাহমুদ রেজা (১৯)।

অন্যদিকে চমেক হাসপাতাল চিকিৎসাধীন আহতদের মধ্যে আমিনুল ইসলাম (২৫), মো. আমির (২৪), মো. দিদার (২১), মো. বিল্লাল (২৬), মো. আযাদ (১৮), মো. কামরুল (২৬), শিমুল (২৮), শাকিল (২৩), মোরাদ (২৫), মিজান (১৮), রাহাত (২৮), হাবিবুল্লাহ (১৮), হাসান (৪০), অভি (২০), মো. ইয়াসির (২৪), আহমদ কবির (২৬) ও আসদুজ্জামানের নাম পাওয়া গেছে।

আহতদের মধ্যে ইয়াসির, কবির ও আসাদুজ্জামান পুলিশের সদস্য। তারা তিন জন গন্ডামারা পুলিশ ফাঁড়িতে কর্মরত রয়েছেন।

ঘটনার পর এ বিষয়ে জানতে এস আলম গ্রুপের নির্বাহী পরিচালক সুব্রত কুমার ভৌমিকের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি এ বিষয়ে কোনও মন্তব্য করতে রাজি হননি। তিনি এ বিষয়ে জানতে বিদ্যুৎকেন্দ্রের সিএফও এবাদত হোসেনের সঙ্গে যোগাযোগ করার কথা বলেন।

তবে বিদ্যুৎ কেন্দ্রের সিএফও এবাদত হোসেনের সঙ্গে কথা বলতে তার মোবাইলফোনে একাধিকবার কল করা হলে কথা বলা সম্ভব হয়নি। এসএমএস দিয়েও তার কোনও বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

আরও পড়ুন:

‘গাড়িতে আগুন ধরিয়ে পুলিশ আমাদের গুলি করে’

এস আলমের বিদ্যুৎকেন্দ্রে সংঘর্ষ, ৫ জন নিহত
শ্রমিক হত্যার প্রতিবাদে ঢাকায় সমাবেশ
‘শ্রমের মূল্য চাইতে গিয়ে গুলি খাওয়া স্বাধীন দেশে কল্পনা করা যায় না’
বাঁশখালী কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্রের হতাহতের ঘটনায় বাপার নিন্দা
বাঁশখালীর ঘটনায় শাস্তির দাবি জানিয়েছে সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্ট
বাঁশখালীতে হতাহতের ঘটনায় ক্ষতিপূরণ ও বিচার বিভাগীয় তদন্ত দাবি

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ১০ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে যানজট

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ১০ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে যানজট

চট্টগ্রাম নগরীর চেয়ে উপজেলাগুলোতে বেশি মৃত্যু

চট্টগ্রাম নগরীর চেয়ে উপজেলাগুলোতে বেশি মৃত্যু

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ভিমরুলের কামড়ে শিশুর মৃত্যু, হাসপাতালে ২

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ভিমরুলের কামড়ে শিশুর মৃত্যু, হাসপাতালে ২

রাঙামাটিতে পর্যটন শিল্পে চার মাসে ক্ষতি ২২ কোটি টাকা

রাঙামাটিতে পর্যটন শিল্পে চার মাসে ক্ষতি ২২ কোটি টাকা

অক্সিজেনের অভাবে অক্সিজেন ব্যবসায়ীর মৃত্যু

আপডেট : ০৫ আগস্ট ২০২১, ১৮:০৬

বরগুনায় করোনাভাইরাস আক্রান্ত হয়ে মিসকাতুল ইসলাম মিলন সিকদার (৩৮) নামে এক অক্সিজেন ব্যবসায়ী মারা গেছেন। বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত মঙ্গলবার রাতে তার মৃত্যু হয়। 

বৃহস্পতিবার (৫ আগস্ট) হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডের চিকিৎসক ডা. ইমরান হোসাইন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। মিলন সিকদার জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক প্রয়াত অ্যাডভোকেট নুরুল ইসলাম সিকদারের ছেলে। বরগুনা শহরে তার অক্সিজেনের ব্যবসা ছিল।

জানা গেছে, গত ৩১ জুলাই মিলনের করোনা শনাক্ত হয়। পরে তাকে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার রাতে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন মিলন। উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানোর প্রস্তুতি নেওয়া হয়। এ সময় তার অক্সিজেন লেভেল কমে যায়। রাত ৩টার দিকে অ্যাম্বুলেন্সে বরিশালের গৌরনদী এলাকায় পৌঁছালে তিনি মারা যান।

মিলন সিকদারের স্ত্রী মরিয়াম আক্তার বিজলী বলেন, ‘করোনা মহামারির শুরুর পর থেকে আমার স্বামী কত মানুষের ঘরে অক্সিজেন পৌঁছে দিয়েছে, আর আজ নিজেই অক্সিজেন সংকটে মারা গেলো।’

ডা. ইমরান হোসাইন বলেন, মিলন সিকদার করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি হওয়ার পর অবস্থা আশঙ্কাজনক হয়। বারবার অক্সিজেন লেভেল নেমে যাচ্ছিলো। প্রতি মিনিটে ৪০ লিটার অক্সিজেন দেওয়া হলেও, তার অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় স্বজনদের সঙ্গে আলোচনা করে ঢাকায় নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়। স্বজনরা আইসিউ সুবিধা সংবলিত অ্যাম্বুলেন্স জোগাড় করে ঢাকার পথে রওনা দেন। পথে তার মৃত্যু হয়।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

বগুড়ায় আরও ১১ মৃত্যু

বগুড়ায় আরও ১১ মৃত্যু

খুলনায় প্রস্তুত ৩০৭ বুথ, টিকা পাবে ৬১৪০০ জন

খুলনায় প্রস্তুত ৩০৭ বুথ, টিকা পাবে ৬১৪০০ জন

রাঙামাটিতে পর্যটন শিল্পে চার মাসে ক্ষতি ২২ কোটি টাকা

রাঙামাটিতে পর্যটন শিল্পে চার মাসে ক্ষতি ২২ কোটি টাকা

বরিশালে করোনা উপসর্গে ১৭ জনের মৃত্যু

বরিশালে করোনা উপসর্গে ১৭ জনের মৃত্যু

প্যানেল মেয়রের কারখানায় কাঠমিস্ত্রির লাশ

আপডেট : ০৫ আগস্ট ২০২১, ১৭:৩৬

হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ পৌরসভার প্যানেল মেয়র জাহেদ চৌধুরীর মালিকানাধীন কাঠের মালামাল তৈরির কারখানা থেকে বিজয় গোপ (২২) নামে এক কাঠমিস্ত্রির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। 

বৃহস্পতিবার (০৫ আগস্ট) দুপুরে নবীগঞ্জ পৌর এলাকার হাসপাতাল সড়কের ওই কারখানা থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করা হয়। বিজয় গোপ সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার ভবানীপুর গ্রামের মৃত দবুদ গোপের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, বুধবার কারখানায় কাজ করতে আসেন বিজয় গোপ। রাতে কারখানায় অবস্থান করেন। সকালে কারখানার আড়ার সঙ্গে তার ঝুলন্ত লাশ দেখেন সহকর্মীরা। খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হবিগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠায় পুলিশ।

নবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) বলেন, ‘প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে আত্মহত্যা। তবে ময়নাতদন্তের পর বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে।’

/এএম/

সম্পর্কিত

দেশের হয়ে খেলা নাসুম নিজ জেলায় আজীবন নিষিদ্ধ

দেশের হয়ে খেলা নাসুম নিজ জেলায় আজীবন নিষিদ্ধ

সার কারখানার ৩৮ কোটি ৭১ লাখ টাকা আত্মসাৎ, দুদকের মামলা

সার কারখানার ৩৮ কোটি ৭১ লাখ টাকা আত্মসাৎ, দুদকের মামলা

সিলেটে করোনায় একদিনে রেকর্ড মৃত্যু

সিলেটে করোনায় একদিনে রেকর্ড মৃত্যু

স্বামীর ৪ ঘণ্টা পর শ্বাসকষ্টে স্ত্রীরও মৃত্যু

স্বামীর ৪ ঘণ্টা পর শ্বাসকষ্টে স্ত্রীরও মৃত্যু

টিকা ছাড়া শরীরে খালি সিরিঞ্জ পুশ, ২ নার্সকে প্রত্যাহার

আপডেট : ০৫ আগস্ট ২০২১, ১৭:২০

এক মেডিক্যাল কলেজ শিক্ষার্থীর শরীরে করোনাভাইরাসের টিকা ছাড়া খালি সিরিঞ্জ পুশের অভিযোগে পাবনা জেনারেল হাসপাতালের টিকাকেন্দ্রের দুই স্টাফ নার্সকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

বুধবার (৪ আগস্ট) দুপুরের এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার (৫ আগস্ট) বেলা ১২টায় তাদের প্রত্যাহার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডা. কে এম আবু জাফর। তিনি জানান, প্রত্যাহার হওয়া ওই দুই নার্স হলেন- মেরিনা এবং মিতা। তবে তারা খালি সিরিঞ্জ শরীরে পুশের কোনও ঘটনা ঘটেনি বলে দাবি করেছেন বলে জানিয়েছেন।

ভুক্তভোগীর পিতা অ্যাডভোকেট আব্দুল হান্নান বলেন, ‘আমার মেয়ে ঢাকার একটি বেসরকারি মেডিক্যাল কলেজের পঞ্চম বর্ষের ছাত্রী। বুধবার হাসপাতালে কোভিড-১৯ টিকা নিতে যায়। এ সময় কর্তব্যরত নার্সরা তার বাহুতে একটি খালি সিরিঞ্জ পুশ করে। বিষয়টি লক্ষ্য করে প্রতিবাদ জানালে তাড়াহুড়ো করে সিরিঞ্জ বের করায় রক্তপাত হয়। পরে ভ্যাকসিনসহ আরেকটি সিরিঞ্জ অন্য হাতে পুশ করেছেন।’

তিনি বলেন, ‘আমার মেয়ে একজন মেডিক্যাল শিক্ষার্থী বলেই বিষয়টি তাৎক্ষণিক বুঝতে পেরেছে। এটি একটি গুরুতর অপরাধ ও কর্তব্যে অবহেলা। টিকা প্রদান ও গ্রহণে প্রত্যেকেরই আরও সচেতন হওয়া উচিত। দায়িত্বরত নার্সরা কেন এমন করলেন, তা আমি বুঝতেই পারছি না।’

এদিকে, টিকা প্রদানে কর্তব্যরত নার্সদের কোনও অবহেলা ছিল কি না- তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন পাবনা জেনারেল হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডা. কে এম আবু জাফর। এ ঘটনায় তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটিও করা হয়েছে।

পরিচালক বলেন, ‘যদিও আমরা এ বিষয়ে কোনও আনুষ্ঠানিক অভিযোগ পাইনি। এরপরেও পাবনা সদর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মোস্তাফিজুর রহমানকে প্রধান করে তিন সদস্যের কমিটিকে তদন্ত করতে বলা হয়েছে। তারা প্রতিবেদন দিলে এ বিষয়ে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। পাশাপাশি টিকাকেন্দ্রে সার্বিক নজরদারিও বাড়ানো হয়েছে।’

এ বিষয়ে পাবনা জেলা সিভিল সার্জন ডা. মনিসর চৌধুরী বলেন, ‘জেলায় টিকাদানে যারা কাজ করছেন, তারা সবাই স্টাফ নার্স ও অভিজ্ঞ। পাশাপাশি স্বাস্থ্যকর্মীরাও প্রশিক্ষিত। এ ধরনের ভুল হওয়ার কথা নয়। এরপরও, আমরা বিষয়টি তদন্ত করে দেখছি।’ টিকাদান কার্যক্রম নিয়ে বিভ্রান্ত না হয়ে সহযোগিতার অনুরোধও করেন তিনি।

/এফআর/

সম্পর্কিত

বগুড়ায় আরও ১১ মৃত্যু

বগুড়ায় আরও ১১ মৃত্যু

খুলনায় প্রস্তুত ৩০৭ বুথ, টিকা পাবে ৬১৪০০ জন

খুলনায় প্রস্তুত ৩০৭ বুথ, টিকা পাবে ৬১৪০০ জন

রাজশাহী মেডিক্যালে আরও ১৭ মৃত্যু

রাজশাহী মেডিক্যালে আরও ১৭ মৃত্যু

ওয়ার্ড পর্যায়ে টিকাদান কার্যক্রম সীমিত করলো চসিক

ওয়ার্ড পর্যায়ে টিকাদান কার্যক্রম সীমিত করলো চসিক

১০ সহকর্মীকে ছাঁটাই করায় বিক্ষোভ তাদের

আপডেট : ০৫ আগস্ট ২০২১, ১৬:৫৪

১০ জন সহকর্মীকে চাকরি থেকে ছাঁটাইয়ের প্রতিবাদে বিক্ষোভ করেছেন গাজীপুরের একটি পোশাক কারখানার শ্রমিকরা। বৃহস্পতিবার (৫ আগস্ট) ‘ক্রসলাইন নীট ফেব্রিক লিমিটেড’ নামের ওই পোশাক কারখানার শ্রমিকরা বিক্ষোভ করেন। এ সময় ভাদাম-টঙ্গী আঞ্চলিক সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। 

শ্রমিকদের বিক্ষোভ থামাতে ও সড়ক থেকে সরে যেতে পুলিশ অনুরোধ জানায়। এক পর্যায়ে শ্রমিক-পুলিশ বাগবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়ে। এ সময় শ্রমিকরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করলে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে টিয়ারশেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করেছে।

আহত দুই পুলিশ সদস্য

প্রত্যক্ষদর্শী ও শ্রমিকরা জানান, গত কয়েকদিন ধরে বিনা কারণে টঙ্গীর ভাদাম এলাকার ‘ক্রসলাইন নীট ফেব্রিক লিমিটেড’ কারখানার ১০ শ্রমিককে ছাঁটাই করে কর্তৃপক্ষ। তাদের কাজে ফিরিয়ে আনার দাবিতে সহকর্মী শ্রমিকরা গত তিন দিন ধরে কারখানা অভ্যন্তরে বিক্ষোভ করে আসছিলেন। বৃহস্পতিবার ওই দাবির প্রেক্ষিতে উৎপাদন বন্ধ রেখে শ্রমিকরা কারখানার সামনে বিক্ষোভ করেন। এতে ভাদাম-টঙ্গী সড়কে যানচলাচল বন্ধ হয়ে পড়ে।

গাজীপুর শিল্প পুলিশের পুলিশ সুপার (এসপি) সিদ্দিকুর রহমান জানান, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে শিল্প, মেট্রোপলিটন পুলিশ ও আনসার সদস্যরা কমপক্ষে ৬০ রাউন্ড টিয়ারশেল এবং রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। শ্রমিকদের ইটপাটকেলে পুলিশের ছয় এবং আনসার বাহিনীর তিন সদস্য আহত হন। তাদের টঙ্গী আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। তবে শ্রমিক আহতের কোনও ঘটনা নেই বলে দাবি করেন তিনি। ঘটনার পর কর্তৃপক্ষ অনির্দিষ্টকালের জন্য কারখানা ছুটি ঘোষণা করেন।

শ্রমিকরা দাবি করেন, পুলিশের টিয়ারশেল ও রাবার বুলেটের আঘাতে কমপক্ষে ৫০ জন শ্রমিক আহত হয়েছেন। তাদেরকে বিভিন্ন ওষুধের দোকানে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে কারখানার প্রশাসনিক কর্মকর্তার মোবাইলফোনে কল করা হলেও তিনি রিসিভ করেননি।

/এফআর/

সম্পর্কিত

কারখানায় নামাজ আদায় ও টুপি পরতে মানা, শ্রমিকদের ‘বিক্ষোভ’

কারখানায় নামাজ আদায় ও টুপি পরতে মানা, শ্রমিকদের ‘বিক্ষোভ’

সিঙ্গারের গোডাউনের আগুন নিয়ন্ত্রণে, পুড়ে ছাই টিভি-ফ্রিজ

সিঙ্গারের গোডাউনের আগুন নিয়ন্ত্রণে, পুড়ে ছাই টিভি-ফ্রিজ

বিদায়ের মুহূর্তে সহকর্মীদের ভালোবাসায় সিক্ত পুলিশ সদস্য

বিদায়ের মুহূর্তে সহকর্মীদের ভালোবাসায় সিক্ত পুলিশ সদস্য

বগুড়ায় আরও ১১ মৃত্যু

আপডেট : ০৫ আগস্ট ২০২১, ১৬:৪৭

বগুড়ায় গত ২৪ ঘণ্টায় ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে করোনায় ছয় ও উপসর্গে পাঁচ জন মারা গেছেন। বৃহস্পতিবার (৫ আগস্ট) বগুড়ার ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মোস্তাফিজুর রহমান তুহিন এ তথ্য জানান।

করোনায় মৃতদের মধ্যে বগুড়ার চার জন। তারা হলেন- সদরের রূপ কুমার সাহা (৫২), শেরপুরের রেহেনা খাতুন (৪৫), শাজাহানপুরে মঞ্জুফা বেগম (৪৫) ও সারিয়াকান্দির তুলি বেগম (৫৫)। বাকিরা অন্য জেলার।

জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্র জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় বগুড়ার বিভিন্ন এলাকার ৫৯৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। তাদের মধ্যে করোনা শনাক্ত হয়েছে ১০৫ জনের। বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে ২৮২টি নমুনা পরীক্ষায় ৪০ জন, জিন এক্সপার্ট মেশিনে সাত জনের নমুনা পরীক্ষায় ছয় জন ও অ্যান্টিজেন পরীক্ষায় ২৭৪টি নমুনায় ৪৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এছাড়া টিএমএসএস মেডিক্যাল কলেজ ও রফাতুল্লাহ কমিউনিটি হাসপাতালে ৩৫টি নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্ত হয়েছে ১৬ জনের।

সূত্র আরও জানায়, ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তদের মধ্যে সদরে ৫৯, শাজাহানপুরে নয়, শিবগঞ্জ ও শেরপুরে সাত জন করে, সোনাতলায় ছয়, নন্দীগ্রামে পাঁচ, সারিয়াকান্দিতে চার, আদমদীঘি ও দুপচাঁচিয়ায় তিন জন করে এবং ধুনট ও গাবতলীতে একজন করে রয়েছেন। শনাক্তের হার ১৭ দশমিক ৫৫ শতাংশ।

বগুড়ায় এ পর্যন্ত ১৯ হাজার ৩৯৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। তাদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১৭ হাজার ৪৯৯ জন। মারা গেছেন ৫৯১ জন। বর্তমানে হাসপাতাল ও বাড়িতে এক হাজার ৩০৯ জন চিকিৎসাধীন আছেন।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

টিকা ছাড়া শরীরে খালি সিরিঞ্জ পুশ, ২ নার্সকে প্রত্যাহার

টিকা ছাড়া শরীরে খালি সিরিঞ্জ পুশ, ২ নার্সকে প্রত্যাহার

খুলনায় প্রস্তুত ৩০৭ বুথ, টিকা পাবে ৬১৪০০ জন

খুলনায় প্রস্তুত ৩০৭ বুথ, টিকা পাবে ৬১৪০০ জন

রাজশাহী মেডিক্যালে আরও ১৭ মৃত্যু

রাজশাহী মেডিক্যালে আরও ১৭ মৃত্যু

রাঙামাটিতে পর্যটন শিল্পে চার মাসে ক্ষতি ২২ কোটি টাকা

রাঙামাটিতে পর্যটন শিল্পে চার মাসে ক্ষতি ২২ কোটি টাকা

সর্বশেষ

পরীমনির বাসায় নিয়মিত পার্টিতে মাদক সরবরাহ করতেন রাজ

পরীমনির বাসায় নিয়মিত পার্টিতে মাদক সরবরাহ করতেন রাজ

অক্সিজেনের অভাবে অক্সিজেন ব্যবসায়ীর মৃত্যু

অক্সিজেনের অভাবে অক্সিজেন ব্যবসায়ীর মৃত্যু

আফগান ইস্যুতে আলোচনায় যুক্তরাষ্ট্র, চীন, পাকিস্তানকে আমন্ত্রণ রাশিয়ার, বাদ ভারত

আফগান ইস্যুতে আলোচনায় যুক্তরাষ্ট্র, চীন, পাকিস্তানকে আমন্ত্রণ রাশিয়ার, বাদ ভারত

ঢাবি উপাচার্যকে মার্কিন দূতাবাসের অভিনন্দন

ঢাবি উপাচার্যকে মার্কিন দূতাবাসের অভিনন্দন

সব রেকর্ড ভেঙে করোনায় একদিনে ২৬৪ জনের মৃত্যু

সব রেকর্ড ভেঙে করোনায় একদিনে ২৬৪ জনের মৃত্যু

ভারতকে সামরিক ঘাঁটি নির্মাণ করতে দেওয়া হয়নি: মরিশাস

ভারতকে সামরিক ঘাঁটি নির্মাণ করতে দেওয়া হয়নি: মরিশাস

আকবরের কাছে এই পুরস্কার গর্বের, অনুপ্রেরণার

শেখ কামাল ক্রীড়া পুরস্কারআকবরের কাছে এই পুরস্কার গর্বের, অনুপ্রেরণার

প্যানেল মেয়রের কারখানায় কাঠমিস্ত্রির লাশ

প্যানেল মেয়রের কারখানায় কাঠমিস্ত্রির লাশ

মডেল পিয়াসার দুই সহযোগী মিশু ও জিসান রিমান্ডে

মডেল পিয়াসার দুই সহযোগী মিশু ও জিসান রিমান্ডে

নিশিতার কণ্ঠে বঙ্গবন্ধুকে হারানোর শোক

নিশিতার কণ্ঠে বঙ্গবন্ধুকে হারানোর শোক

রাজউক ও অন্যান্য সংস্থাকে মশকনিধন অভিযানের নির্দেশ স্থানীয় সরকারমন্ত্রীর

রাজউক ও অন্যান্য সংস্থাকে মশকনিধন অভিযানের নির্দেশ স্থানীয় সরকারমন্ত্রীর

বিশ্বের সবচেয়ে মোটা গাছ

বিশ্বের সবচেয়ে মোটা গাছ

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ১০ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে যানজট

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ১০ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে যানজট

চট্টগ্রাম নগরীর চেয়ে উপজেলাগুলোতে বেশি মৃত্যু

চট্টগ্রাম নগরীর চেয়ে উপজেলাগুলোতে বেশি মৃত্যু

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ভিমরুলের কামড়ে শিশুর মৃত্যু, হাসপাতালে ২

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ভিমরুলের কামড়ে শিশুর মৃত্যু, হাসপাতালে ২

রাঙামাটিতে পর্যটন শিল্পে চার মাসে ক্ষতি ২২ কোটি টাকা

রাঙামাটিতে পর্যটন শিল্পে চার মাসে ক্ষতি ২২ কোটি টাকা

লক্ষ্মীপুরে আ.লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

লক্ষ্মীপুরে আ.লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

ওয়ার্ড পর্যায়ে টিকাদান কার্যক্রম সীমিত করলো চসিক

ওয়ার্ড পর্যায়ে টিকাদান কার্যক্রম সীমিত করলো চসিক

স্বামীর সহায়তায় গৃহবধূকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার ৪

স্বামীর সহায়তায় গৃহবধূকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার ৪

দেড় কিলোমিটার হেঁটে চাচাকে মাথায় করে হাসপাতালে 

দেড় কিলোমিটার হেঁটে চাচাকে মাথায় করে হাসপাতালে 

ফেনীতে করোনার চেয়ে ৬ গুণের বেশি মৃত্যু উপসর্গে

ফেনীতে করোনার চেয়ে ৬ গুণের বেশি মৃত্যু উপসর্গে

© 2021 Bangla Tribune