X
রবিবার, ১৯ মে ২০২৪
৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
সিনেমা সমালোচনা

কাজলরেখা: ঘোড়া, গরু, হাতিগুলো স্বাস্থ্যবান নয়

আহসান কবির
আহসান কবির
১৬ এপ্রিল ২০২৪, ১৩:৩৫আপডেট : ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ১৯:০৪

ঘোষণা দেওয়ার প্রায় ১৫ বছর পরে মুক্তি পাওয়া গিয়াস উদ্দিন সেলিমের নতুন ছবি ‘কাজলরেখা’। সরকারি অনুদানে নির্মিত ২৪টি লোকজ গানের ছবি ‘কাজলরেখা’। আয়োজনগত দিক থেকে রাজা, জমিদার, দাস-দাসীদের সত্যি মনে না হওয়া ধীরগতির এক ছবি ‘কাজলরেখা’। সুন্দর ফটোগ্রাফি আর প্রকৃতি প্রিয়তার এক ছবি ‘কাজলরেখা’। প্রতিবাদ না করে মুখ বুজে সহ্য করা যে নারীদের নিয়তি তেমন লোককাহিনির ছবি ‘কাজলরেখা’। খাঁটি বাংলা রূপকথার একালের ছবি ‘কাজলরেখা’।

নারীপ্রধান মৈমনসিংহ গীতিকার এক পালা কাজলরেখা, যার গল্প অনেকেরই জানা। কারণ এটি একসময় পাঠ্যবইয়ের অন্তর্ভুক্ত ছিল। ধনাঢ্য ব্যবসায়ী ধনেশ্বর তার ব্যবসা, ধন, হাতি, ঘোড়া, নৌকা, দাসী সব হারায় জুয়া খেলে। কন্যা কাজলরেখা আর পুত্র রত্নেশ্বরকে নিয়ে ধনেশ্বর অভাব আর বিপদে দিনাতিপাত করতে থাকে। তাকে দেখে দয়া হয় এক সাধুর। একটা আংটি দেয়। শুরু হয় সিনেমার মূল গল্প।

বিভিন্ন দৃশ্য পরিচালক গিয়াস উদ্দিন সেলিমের বহু দিনের চেষ্টার ফসল এই ‘কাজলরেখা’। বাংলার সমৃদ্ধ সময়ের রূপকথা ‘কাজলরেখা’। সুলতানি বা মুঘল আমলে বাংলায় যে পরিমাণ রাজস্ব আদায় হতো তা ইংল্যান্ড বা আমেরিকায়ও তখন হতো না। গোলাভরা ধান বা পুকুর ভরা মাছ প্রবাদের চলন হয়েছিল সম্ভবত তখনই। মৈমনসিংহ গীতিকার পালা বা গল্পগুলো তখনকার এবং খাঁটি বাংলার চিরায়ত গল্প। বাংলা ছবির ‘অ্যারেঞ্জমেন্ট’ বা পুঁজি সমস্যা দীর্ঘদিনের। মুক্তি পাওয়া ‘কাজলরেখা’ ছবির ঘোড়া, গরু, হাতিগুলো স্বাস্থ্যবান নয়। রাজকুমারদের ভার যেমন ঘোড়া নিতে পারেনি, তেমনি সুচ কুমারের গায়েও তেমন সুচ ছিল না! ডাকাতির দৃশ্যে এক কোপে মুণ্ডু ফেলে দেবার দৃশ্যটাও হাস্যকর, কারণ বানানো মাথাটা পড়ে যাওয়ার সময় সেটা স্পষ্ট হয়ে ওঠে। 

এই ছবির অন্যতম চরিত্র হচ্ছে ‘সুখ পাখি’। বিধাতার নির্দেশে যেমন সব কিছু হয় এই ছবিতে সেই ভূমিকায় যেন সুখপাখির আগমন। সুখপাখির রঙ, কণ্ঠ কিংবা উধাও হয়ে যাওয়ার দৃশ্য নিয়েও প্রশ্ন তোলা যায়!

ছবিতে সুচ কুমারের চরিত্রে শরিফুল রাজ এবং কাজলরেখার চরিত্রে অভিনয় করেছেন মন্দিরা চক্রবর্তী। কাজলরেখার কিশোরী বয়সের অভিনয়ে ছিলেন সাদিয়া আয়মান। মন্দিরা ও সাদিয়ার প্রথম ছবি এটি, তাদের জন্য শুভকামনা। কংকন দাসীর চরিত্রে অভিনয় করেছেন রাফিয়াত রশীদ মিথিলা। ধনেশ্বরের চরিত্রে ইরেশ যাকের, মন্ত্রীর ভূমিকায় গাউসুল আলম শাওন, সুচ কুমারের বন্ধুর চরিত্রে খায়রুল বাশার এবং ব্রাহ্মণের চরিত্রে অভিনয় করেছেন ঝুনা চৌধুরী। কখনও বিবেক, কখনও সাধু, কখনও মন্দিরের পুরোহিত, কখনও পথপ্রদর্শক এমন বহুমাত্রিক এক চরিত্রে দুর্দান্ত অভিনয় করেছেন আজাদ আবুল কালাম। 

২০০৯-১০ সালের দিকে যখন ছবির পরিকল্পনা করা হয় তখন সুচ কুমারের ভূমিকায় অভিনয় করার কথা ছিল ইরেশ যাকেরের। ছবির শুটিংকালে ইরেশ ধনেশ্বর আর শরিফুল রাজ সুচ কুমার চরিত্রে অভিনয় করেন। ইরেশ তার অভিনয়ে সপ্রতিভ ছিলেন। সেই তুলনায় রাজ ছিলেন অনেকটাই ম্লান!

গিয়াস উদ্দিন সেলিম ছবিতে চব্বিশটির মতো লোক ধাঁচের গান ব্যবহৃত হয়েছে। প্রচলিত কথার গান ছাড়াও পিয়াস উদ্দিন সেলিম নিজেও লিখেছেন। পরিচালনার পাশাপাশি ছবির চিত্রনাট্যও লিখেছেন তিনি। নেত্রকোনার সুসং দুর্গাপুর, সুন্দরবন, সিলেটের হাওর অঞ্চলে ‘কাজলরেখা’র শুটিং হয়েছে। বাংলাদেশের বাস্তবতায় এমন ছবি তৈরি করার সাহসের জন্য গিয়াস উদ্দিন সেলিমকে ধন্যবাদ জানানো যেতে পারে। 

ছবির সংগীত পরিচালক ছিলেন ইমন চৌধুরী। অবন্তী সিঁথি, হুমায়রা ঈশিকা এবং অন্তরা মণ্ডল কণ্ঠ দিয়েছেন গানে। ছবির চিত্রায়ণ করেছেন কামরুল হাসান খসরু। প্রকৃতি প্রিয়তার সুন্দর দৃশ্যায়নের জন্য তাকে ধন্যবাদ জানানোই যেতে পারে। 

বিশেষ দ্রষ্টব্য: দেশে ‘কাজলরেখা’ নামে আরেকটি ছবি মুক্তি পেয়েছিল চার দশক আগে, যার পরিচালক ছিলেন সফগার আলি। ছবিতে জাভেদ, কল্পনা, জসিমসহ অনেকেই অভিনয় করেছিলেন।

আহসান কবির কাজলরেখা: ৬/১০
পরিচালক: গিয়াস উদ্দিন সেলিম
সংগীত পরিচালক: ইমন চৌধুরী
চিত্রায়ণ: কামরুল হাসান খসরু
ব্যানার: তথ্য মন্ত্রণালয় ও বাঙাল সিনেমা
মুক্তি: ১১ এপ্রিল ২০২৪

সমালোচক: রম্যলেখক, সাংবাদিক ও কবি

*** প্রকাশিত মতামত লেখকের একান্তই নিজস্ব।

আরও সমালোচনা:

হুব্বা: সামথিং লাইক আ ক্রিমিনাল’স অটোবায়োগ্রাফি!

খুফিয়া: বাংলাদেশ নিয়ে ‘শঙ্কা ও ভাবনার’ ভারতীয় ছবি!

অন্তর্জাল: সাইবার থ্রিলার নিয়ে স্মার্ট ছবি

এমআর-৯: ‘মাসুদ রানা’ আছে ‘মাসুদ রানা’ নেই!

১৯৭১ সেই সব দিন: ৫৩ বছর আগের বাস্তবতা ফিরিয়ে আনার চেষ্টা

আম কাঁঠালের ছুটি: দুরন্ত শৈশব মনে করিয়ে দেয়া এক ছবি

প্রিয়তমা: পরিচিত গল্প আর ‘তাড়াহুড়ো’য় নির্মিত ছবি!

প্রহেলিকা: ছবিটি দেখলে কিছু প্রশ্ন উঠবেই

‘পরাণ’-এর আরেক ভার্সন ‘সুড়ঙ্গ’!

সুলতানপুর: ফর্মুলায় আক্রান্ত ধারাবাহিকতাহীন ছবি

আদিম: ‘বস্তি ঘনিষ্ঠ’ এক অপরূপ ছবি!

পাপ: শেষ না হওয়া এক থ্রিলার গল্পের ছবি

কিল হিম: বড়শি দিয়ে মাছ ধরেন অনন্ত, কিন্তু সেটা নড়ে না!

লিডার: স্বস্তি আর অস্বস্তির পাঁচ-ছয়

লোকাল: রাজনীতির ব্যানারে প্রেম ও প্রতিশোধের ছবি!

জ্বীন: ‘জিন ছাড়ানো’র কুসংস্কারাচ্ছন্ন ছবি!

মুজিব: ইতিহাস হয়ে থাকার মতো ছবি

/এমএম/এমওএফ/
সম্পর্কিত
দেয়ালের দেশ: মন খারাপ করা সিনেমা
সিনেমা সমালোচনাদেয়ালের দেশ: মন খারাপ করা সিনেমা
ওমর: ‘নায়িকাবিহীন’ এক থ্রিলার
সিনেমা সমালোচনাওমর: ‘নায়িকাবিহীন’ এক থ্রিলার
রাজকুমার: ‘প্রশ্নবিদ্ধ’ এক বিয়োগান্তক ছবি
সিনেমা সমালোচনারাজকুমার: ‘প্রশ্নবিদ্ধ’ এক বিয়োগান্তক ছবি
হুব্বা: সামথিং লাইক আ ক্রিমিনাল’স অটোবায়োগ্রাফি!
সিনেমা সমালোচনাহুব্বা: সামথিং লাইক আ ক্রিমিনাল’স অটোবায়োগ্রাফি!
বিনোদন বিভাগের সর্বশেষ
কানে ঝুলছে বাংলাদেশের দুল!
কান উৎসব ২০২৪কানে ঝুলছে বাংলাদেশের দুল!
কানের লাল গালিচায় হাঁটতে কী লাগে, জানালেন প্রিয়তী
কানের লাল গালিচায় হাঁটতে কী লাগে, জানালেন প্রিয়তী
অনুরাগ কাশ্যপের সিনেমায় ঋদ্ধি!
অনুরাগ কাশ্যপের সিনেমায় ঋদ্ধি!
কান থেকে ভাবনা: নিজেকে ছোট অনুভব করাটাও দরকার
কান থেকে ভাবনা: নিজেকে ছোট অনুভব করাটাও দরকার
আমরা একে-অপরের খুব কাছের: জাহ্নবী
আমরা একে-অপরের খুব কাছের: জাহ্নবী