X
সকল বিভাগ
সেকশনস
সকল বিভাগ

ইভ্যালির রাসেল ও তার স্ত্রীর রিমান্ড শুনানিতে যা বললেন আইনজীবীরা 

আপডেট : ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২০:০৪

ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির প্রধান নির্বাহী মোহাম্মদ রাসেল এবং তার স্ত্রী ও প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান শামীমা নাসরিনের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের মামলায় প্রত্যেকের ৩ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) গুলশান থানার মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সাব-ইন্সপেক্টর ওহিদুল ইসলাম আসামিদের ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করে প্রত্যেকের ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন করেন।

রিমান্ড আবেদনে তদন্ত কর্মকর্তা উল্লেখ করেন, রাসেল ও শামীমা সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্রের লিডার এবং অত্যন্ত ধুরন্ধর ও কৌশলী। আসামিরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে একেক সময় একেক রকম কথাবার্তা বলেছেন। গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নের উত্তর কৌশলে এড়িয়ে যান তারা। আসামিরা তাদের সহযোগী অজ্ঞাতনামা প্রতারকসহ ইভ্যালির পণ্য বিক্রয়ের নামে নানা প্রতারণার আশ্রয় নিয়ে এক গ্রাহকের তিন লাখ ১০ হাজার ৫৯৭ টাকা আত্মসাৎ করেন। তাই আসামিদের কাছ থেকে টাকা উদ্ধারসহ তাদের সহযোগী অজ্ঞাতনামা আসামিদের পূর্ণাঙ্গ নাম-ঠিকানা শনাক্ত করে তাদের গ্রেফতারের লক্ষ্যে তাদের রিমান্ডে নেওয়া প্রয়োজন।

অন্যদিকে আসামি পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট মো. মনিরুজ্জামান আসাদ রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিনের আবেদনে বলেন, ইভ্যালি গ্রাহকের কাছ থেকে পণ্যের টাকা নিয়ে তা সাপ্লাইয়ারকে দেয়। এরপর সাপ্লাইয়ার পণ্য দিলে ইভ্যালি গ্রাহককে সেই পণ্য বুঝিয়ে দেয়। বর্তমান করোনা মহামারির কারণে সারা বিশ্বের ব্যবসা ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে আছে। সাপ্লাইয়ার সময় মতো মালামাল দিতে পারেনি বলে ডেলিভারিতে কিছুটা বিলম্ব হয়েছে। ইভ্যালি অনেককে পণ্যের টাকা ফেরত দিয়েছে এবং অনেকের কাছ থেকে আবার সময় চেয়েছে। তবে টাকা দেবে না এমন কথা কখনও বলেনি। 

তিনি আরও বলেন, ইভ্যালির বিরুদ্ধে প্রতারণা ও বিশ্বাসঘাতকতার মামলা করা হয়েছে; তবে এ অভিযোগগুলো ঠিক নয়। তারা টাকা দিয়ে দেবে। তবে কিছু সময় লাগবে তাদের। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ইভ্যালিকে কারণ দর্শানোর চিঠি দিয়েছে। এরপর ইভ্যালি সেই চিঠির জবাব দেয়। গ্রাহকের টাকা ফেরতের বিষয়ে ৬ মাস সময় নিয়েছে তারা। ইভ্যালির উদ্দেশ্য যদি প্রতারণা হতো তাহলে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের চিঠির জবাব তারা দিতো না। 

অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর মো. আবদুল্লাহ আবু জামিনের বিরোধিতা করে বলেন, ইভ্যালি বিজ্ঞাপন দিয়ে লাখ লাখ মানুষের কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। তারা গ্রাহকদের কাছ থেকে টাকা নিয়েও চিট করেছে। এই মামলার বাদী টাকা পরিশোধের সাত মাস পরেও অর্ডার দেওয়া পণ্য হাতে পাননি। পণ্য তো দিচ্ছে না, তাদের কাছে টাকা চাওয়ার কথা বললে তারা টাকাও দিচ্ছে না। বরং তারা মামলার বাদীকে হুমকি দেয়। তাই তাদের রিমান্ডে নেওয়া প্রয়োজন।

এরপর ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আতিকুল ইসলামের আদালত উভয় পক্ষের শুনানি শেষে প্রত্যেক আসামির তিন দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) বিকালে রাসেলের মোহাম্মদপুরের স্যার সৈয়দ রোডের বাসায় অভিযান পরিচালনা শেষে তাদের গ্রেফতার করা হয়। বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) রাতে আরিফ বাকের নামে একজন ভুক্তভোগী গুলশান থানায় মামলাটি করেছেন। মামলায় অর্থ আত্মসাৎ ও ভয়ভীতি দেখানোর অভিযোগ করা হয়েছে।

/এমএইচজে/এনএইচ/এমওএফ/
টাইমলাইন: ইভ্যালি
৩১ জানুয়ারি ২০২২, ১৬:১২
১৮ অক্টোবর ২০২১, ১৯:১২
১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:৩৮
ইভ্যালির রাসেল ও তার স্ত্রীর রিমান্ড শুনানিতে যা বললেন আইনজীবীরা 
১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৬:৪৯
১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪:২০
১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩:৪২
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত ৩০
২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত ৩০
একরাম হত্যা মামলা: ৪ বছরেও হয়নি আপিলের নিষ্পত্তি
একরাম হত্যা মামলা: ৪ বছরেও হয়নি আপিলের নিষ্পত্তি
যাত্রীর পেট থেকে বের হলো ৩ স্বর্ণের বার
যাত্রীর পেট থেকে বের হলো ৩ স্বর্ণের বার
গণকমিশনের আয়-ব্যয়ের অনুসন্ধান করতে হবে: জাপা মহাসচিব
গণকমিশনের আয়-ব্যয়ের অনুসন্ধান করতে হবে: জাপা মহাসচিব
এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত