X
বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪
২ শ্রাবণ ১৪৩১

নিত্যপণ্যের দাম বাড়ার পেছনে কৃষকরাও দায়ী: বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
০৭ জুন ২০২৪, ১৮:২৯আপডেট : ০৭ জুন ২০২৪, ১৯:২৫

বাজারে নিত্যপণ্যের দাম বাড়ার পেছনে কৃষকরাও দায়ী বলে মন্তব্য করেছেন বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম টিটু। তিনি বলেন, আপনারা জানেন এখন কৃষকরাও অনেক স্মার্ট। দেশে ধানের উৎপাদন বাড়লে কৃষকরা ধান বিক্রি করে তেল কিনে, সবজি কিনে। সবজি আর তেল কেনার জন্য দেখা গেলো ধান বেশি করে বিক্রি করছেন। এতে চালের দাম বেড়ে যাচ্ছে। 

শুক্রবার (৭ জুন) রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে বাজেট পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে প্রতিমন্ত্রী এ কথা বলেন।

বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী বলেন, রমজানের পর থেকে এখনও তেল-চিনির দামে ভারসাম্য আছে। ধান-চাল আমদানিতে কর দুই-এক শতাংশ করা হয়েছে বাজেটে। এখন এক কোটি নাগরিক ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) মাধ্যমে ভর্তুকি মূল্যে পণ্য পাচ্ছেন। আসন্ন বাজেটের মেয়াদে ন্যায্যমূল্যে পণ্য দিতে স্থায়ী দোকানের মাধ্যমে টিসিবির পণ্য দেওয়ার কাজ চলছে। এটা হলে আরও বেশি সংখ্যক মানুষ এর মাধ্যমে উপকৃত হবেন।

২০২৪-২৫ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে মূল্যস্ফীতিকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নেওয়া হয়েছে বলে জানান বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী। তিনি আরও বলেন, এবারের বাজেটে এমন কিছু রাখা হয়নি যাতে বাজার অস্থির হবে। আপনারা জানেন, আমাদের ভোক্তা অধিকার অধিদফতর রয়েছে। সেটির মাধ্যমে আমরা বাজার মনিটরিং করি। ঈদকে সামনে রেখে সেটি অব্যাহত রেখেছি। বাজেটে কর মওকুফ করায় নিত্যপণ্যের দাম কমবে। বাজার নিয়ন্ত্রণের পাশাপাশি দেশে বিভিন্ন ঋতুতে আবহাওয়ার বিপর্যয় ঘটে। এতে আমরা যখন দেখতে পাই নিত্যপণ্যের দাম বৃদ্ধি পাচ্ছে, তখন ট্যাক্স কমিয়ে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করবো। এবারের বাজেটে ১৭২টি পণ্যের ওপর থেকে শুল্ক কর কমানো হয়েছে বলে উল্লেখ করেন প্রতিমন্ত্রী। 

/জিএম/এমএস/এমওএফ/
টাইমলাইন: বাজেট ২০২৪-২৫
৩০ জুন ২০২৪, ২০:৩০
০৭ জুন ২০২৪, ১৮:২৯
নিত্যপণ্যের দাম বাড়ার পেছনে কৃষকরাও দায়ী: বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী
সম্পর্কিত
এপিএ কার্যকরে কাজ করতে হবে: বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী
দক্ষতার সঙ্গে বাজেট বাস্তবায়নের পরামর্শ ইউজিসি’র
বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রীও দায়ী করলেন বৃষ্টিকে
সর্বশেষ খবর
জবি ক্যাম্পাস আন্দোলনকারীদের দখলে, মূল ফটকে ‘ছাত্রলীগ প্রবেশ নিষেধ’ বিজ্ঞপ্তি
জবি ক্যাম্পাস আন্দোলনকারীদের দখলে, মূল ফটকে ‘ছাত্রলীগ প্রবেশ নিষেধ’ বিজ্ঞপ্তি
৬ শিক্ষার্থী হত্যায় বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিটি গঠনের দাবি বিরোধীদলীয় নেতার
৬ শিক্ষার্থী হত্যায় বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিটি গঠনের দাবি বিরোধীদলীয় নেতার
ছারছীনার পীরের মৃত্যুতে ধর্মমন্ত্রীর শোক
ছারছীনার পীরের মৃত্যুতে ধর্মমন্ত্রীর শোক
ছাত্রদলের সাবেক সভাপতিসহ ৭ জন রিমান্ডে
ছাত্রদলের সাবেক সভাপতিসহ ৭ জন রিমান্ডে
সর্বাধিক পঠিত
সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা
সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা
কী আছে ড. জাফর ইকবালের মূল লেখায়
কী আছে ড. জাফর ইকবালের মূল লেখায়
ছাত্রলীগের ১৫ কর্মীকে ছয়তলা থেকে ফেলে দেওয়ার অভিযোগ
ছাত্রলীগের ১৫ কর্মীকে ছয়তলা থেকে ফেলে দেওয়ার অভিযোগ
রোকেয়া হল ছাত্রলীগের নেত্রীর কক্ষে হামলা, মারধর
রোকেয়া হল ছাত্রলীগের নেত্রীর কক্ষে হামলা, মারধর
ছাত্রলীগ থেকে পদত্যাগ করলেন আরেক নেতা, লিখলেন ‘আর পারলাম না’
ছাত্রলীগ থেকে পদত্যাগ করলেন আরেক নেতা, লিখলেন ‘আর পারলাম না’