X
বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪
১ শ্রাবণ ১৪৩১

বাজেটে মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যমাত্রা পূরণের যথেষ্ট সুযোগ নেই: বিসিআই

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
০৮ জুন ২০২৪, ১৭:৪৯আপডেট : ০৮ জুন ২০২৪, ১৭:৫৫

প্রস্তাবিত বাজেটে মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণ প্রধান লক্ষ্য বলা হলেও টানা ১৪ মাস ধরে ৯ শতাংশের ওপরে থাকা মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যমাত্রা পূরণের পর্যাপ্ত পদক্ষেপ ২০২৪-২৫ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে পরিলক্ষিত হচ্ছে না বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ চেম্বার অব ইন্ডাস্ট্রিজের (বিসিআই) সভাপতি  আনোয়ার-উল আলম চৌধুরী (পারভেজ)।

শনিবার (৮ জুন) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে  প্রস্তাবিত বাজেটের প্রাথমিক প্রতিক্রিয়ায় তিনি এমন মন্তব্য করেন।

বিসিআই সভাপতি বলেন, প্রস্তাবিত বাজেটে মূল্যস্ফীতি সাড়ে ৬ শতাংশের মধ্যে রাখার কথা উল্লেখ করা হয়েছে এবং আগামী অর্থবছরে জিডিপি প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করা হয়েছে ৬ দশমিক ৭৫ শতাংশ, যা বাস্তবায়ন চ্যালেঞ্জিং হবে।

তিনি উল্লেখ করেন, আমরা বাজেটে বর্তমান শিল্পগুলোকে টিকিয়ে রাখার মতো কোনও নির্দেশনা দেখতে পাচ্ছি না। দেশের শিল্প খাত বর্তমানে একটি চ্যালেঞ্জিং সময় অতিবাহিত করছে। দেশে শিল্প প্রতিষ্ঠানগুলো তার ৬০-৭০ শতাংশ সক্ষমতায় চলছে, উচ্চ মূদ্রাস্ফীতির কারণে সব প্রতিষ্ঠানের সেলস ড্রপ করেছে, গ্যাস ও বিদ্যুতের মূল্য বৃদ্ধি পাচ্ছে নিয়মিত। কিন্তু নিরবচ্ছিন্ন সেবা পাচ্ছে না শিল্প প্রতিষ্ঠান। সরকারের সংকোচন নীতি এবং বাংলাদেশ ব্যাংকের ড্রাই আপ পলিসির কারণে ব্যাংকগুলো বন্ডে বিনিয়োগের দিকে উৎসাহিত হচ্ছে। আবার সরকারও ব্যাংক থেকে টাকা নিচ্ছে। ব্যাংকের উচ্চ সুদহার প্রতিনিয়ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। এর ফলে ব্যাংকে তারল্য সংকট দেখা দিচ্ছে। নতুন বিনিয়োগে ভাটা পড়েছে। এবছর প্রবৃদ্ধি মাত্র ৬.৬ শতাংশ। বেকারত্ব বৃদ্ধি পাচ্ছে। নতুন করে প্রায় ১ লাখ ২০ হাজার বেকার হয়েছে। এর ফলে বর্তমানে শিল্পের কস্ট অব ডুইং বিজনেস বেড়ে যাচ্ছে। ফলে মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণ সম্ভব হবে না। দেশের অর্থনীতিকে টিকিয়ে রাখতে গেলে আমদানির বিকল্প শিল্প এবং কারখানাগুলোর সক্ষমতা টিকিয়ে রাখার দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। প্রস্তাবিত বাজেটে এর কোনও দিকনির্দেশনা পরিলক্ষিত হচ্ছে না।   

 আবার রফতানি খাতে ইপিবির তথ্য অনুসারে দেখা যাচ্ছে, প্রবৃদ্ধি হচ্ছে কিন্তু বাংলাদেশ ব্যাংক ও কাস্টমসের তথ্যে প্রবৃদ্ধি দেখা যাচ্ছে না। বিজিএমইএ ও বিকেএমই-এর তথ্য বিশ্লেষণ করলে দেখা যায়, রফতানি খাতের অবস্থা আশানুরূপ নয়। অপরদিকে ইপিজেডের শিল্পে কাঁচামাল ও মূলধনী যন্ত্রপাতির আমদানির ক্ষেত্রে ১ শতাংশ শুল্ক আরোপ করা হয়েছে। একদিকে রফতানি আশানুরূপ বৃদ্ধি পাচ্ছে না, রেমিট্যান্সের প্রবাহ কম, রিজার্ভের স্বল্পতার মধ্যে এ ধরনের সিদ্ধান্ত অর্থনীতিকে আরও চাপে ফেলবে। আমরা এ প্রস্তাব পুনর্বিবেচনার দাবি জানাচ্ছি। আমরা রফতানি খাতের সক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য একটা দিকনির্দেশনা আশা করেছিলাম এ বাজেটে। বৃহৎ ও মাঝারি শিল্পের সঙ্গে দেশের মাইক্রো, কুটির ও ক্ষুদ্র শিল্পের প্রবৃদ্ধি নির্ভর করে। এমন পরিস্থিতিতে সব থেকে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে মাইক্রো, কুটির ও ক্ষুদ্র শিল্প খাত। প্রস্তাবিত বাজেটে মাইক্রো, কুটির ও ক্ষুদ্র শিল্পের টিকিয়ে রাখার কোনও দিকনির্দেশনা পরিলক্ষিত হচ্ছে না।

বিসিআই সভাপতি বিবৃতিতে বলেন, আমরা মনে করি, সরকারের ব্যয় কমিয়ে এবং বিদেশি উৎস হতে ঋণ গ্রহণের মাধ্যমে ঘাটতি মেটানোর দিকে জোর দেওয়া উচিত, যাতে করে ব্যাংক ব্যবস্থা থেকে তুলনামূলক কম হারে ঋণ নেওয়ার প্রয়োজন হয়। এই বিপুল অর্থ যদি ব্যাংক ও অন্যান্য অভ্যন্তরীণ উৎস থেকে নেওয়া হয়, তাহলে বেসরকারি খাতের বিনিয়োগে চাপ তৈরি হবে।

প্রস্তাবিত বাজেটে ১৫ শতাংশ আয়কর প্রদানে কালো টাকা সাদা করার বিধান রাখা হয়েছে— যা বিসিআই কোনোভাবেই সমর্থন করে না। এতে করে বৈধ অর্থ উপার্জনকারীরা নিরুৎসাহিত হবেন এবং এটা তাদের জন্য শাস্তি স্বরূপ। তাছাড়া, জমি, প্লট, ফ্ল্যাট কেনার মতো অনুৎপাদশীল খাতে এ কালো টাকা ব্যবহারের সুযোগ প্রদান করা হয়েছে, যা যুক্তিসঙ্গত নয়। জমি ও ফ্ল্যাট কেনায় কালো টাকা ব্যবহার হলে— জমির দাম বাড়বে এবং শিল্পায়নে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হবে। কালো টাকা দেশের অর্থনীতিতে অন্তর্ভুক্ত করতে চাইলে সেটা শিল্প ও উৎপাদনশীল খাতে বিনিয়োগের ব্যবস্থা করা উচিত। এর ফলে অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড ও কর্মসংস্থান বৃদ্ধির সুযোগ থাকে।

/জিএম/এপিএইচ/
টাইমলাইন: বাজেট ২০২৪-২৫
৩০ জুন ২০২৪, ২০:৩০
০৮ জুন ২০২৪, ১৭:৪৯
বাজেটে মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যমাত্রা পূরণের যথেষ্ট সুযোগ নেই: বিসিআই
সম্পর্কিত
দক্ষতার সঙ্গে বাজেট বাস্তবায়নের পরামর্শ ইউজিসি’র
এবারের মুদ্রানীতি কি মূল্যস্ফীতি কমাতে পারবে?
৫ হাজার কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা ডিএনসিসির
সর্বশেষ খবর
বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ডিবি
বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ডিবি
রোকেয়া হল ছাত্রলীগের নেত্রীর কক্ষে হামলা, মারধর
রোকেয়া হল ছাত্রলীগের নেত্রীর কক্ষে হামলা, মারধর
‘শূন্য’ রানে আউট হৃদয়, ছিটকে গেলো ডাম্বুলা
‘শূন্য’ রানে আউট হৃদয়, ছিটকে গেলো ডাম্বুলা
জাতীয় বায়ুমান ব্যবস্থাপনা পরিকল্পনা প্রণয়ন করা হচ্ছে
জাতীয় বায়ুমান ব্যবস্থাপনা পরিকল্পনা প্রণয়ন করা হচ্ছে
সর্বাধিক পঠিত
মেট্রো স্টেশনে সংঘর্ষ!
মেট্রো স্টেশনে সংঘর্ষ!
সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা
সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা
ঢাবিতে ছাত্রলীগ থেকে পদত্যাগের হিড়িক
ঢাবিতে ছাত্রলীগ থেকে পদত্যাগের হিড়িক
ছাত্রলীগ থেকে পদত্যাগ করলেন আরেক নেতা, লিখলেন ‘আর পারলাম না’
ছাত্রলীগ থেকে পদত্যাগ করলেন আরেক নেতা, লিখলেন ‘আর পারলাম না’
কোটা আন্দোলনে কে এই অস্ত্রধারী!
কোটা আন্দোলনে কে এই অস্ত্রধারী!