X
শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪
১৬ ফাল্গুন ১৪৩০
সামরিক অনুষ্ঠানে রুশ হামলা

সেনা হতাহতের ঘটনায় সমালোচনার মুখে ইউক্রেনের সামরিক কর্মকর্তারা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
০৬ নভেম্বর ২০২৩, ১৭:৩৭আপডেট : ০৭ নভেম্বর ২০২৩, ০৯:১৭

দক্ষিণাঞ্চলীয় জাপোরিজ্জিয়ায় সেনাবাহিনীর এক অনুষ্ঠানে রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় বেশ কয়েকজন হতাহতের ঘটনায় সমালোচনার মুখে পড়েছেন ইউক্রেনের সামরিক কর্মকর্তারা। রণক্ষেত্রের ঝুঁকিপূর্ণ সম্মুখভাগে ওই অনুষ্ঠানের আয়োজন করায় তাদের দায়িত্ববোধ নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন সামরিক বিশেষজ্ঞরা। ব্রিটিশ সম্প্রচার মাধ্যম বিবিসি এই খবর জানিয়েছে।

রবিবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রকাশ করা এক বার্তায় ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি বলেন, দুঃখজনক এই পরিস্থিতি ‘এড়ানো যেত’। অপরাধমূলক এই ঘটনায় তদন্ত শুরু হয়েছে।

তিনি আরও বলেছেন, রণাঙ্গনে শত্রুর গুলি ও আকাশ নজরদারিতে থাকা সব সেনার জানা উচিত উন্মুক্ত স্থানে কেমন আচরণ করতে হবে এবং কীভাবে সুরক্ষা নিশ্চিত করতে হয়।

শুক্রবার ইউক্রেনীয় সেনাবাহিনীর ১২৮তম মাউন্টেন অ্যাসল্ট ব্রিগেডের ‘জাকারপাত্তিয়া’ অনুষ্ঠানের চলাকালে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় রাশিয়া। এমন অনুষ্ঠানে সেনাদের পদক প্রদান করা হয়। ইউক্রেনের সংবাদমাধ্যম ও রুশ সামরিক ব্লগারদের দাবি, ওই ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় ২০ জনের বেশি ইউক্রেনীয় সেনা নিহত হয়েছেন। হতাহতের নির্দিষ্ট তথ্য এখনও প্রকাশ করেনি ইউক্রেন। রুশ সামরিক বাহিনীও এখন পর্যন্ত আনুষ্ঠানিকভাবে কোনও মন্তব্য করেনি। রবিবার ইউক্রেনীয় আইনপ্রণেতা মিখাইলো ভলিনেট বলেছেন, মোট ২৮ জন নিহত ও ৫৩ জন আহত হয়েছেন। তবে এই তথ্য আনুষ্ঠানিকভাবে নিশ্চিত করা হয়নি।

সম্প্রতি, রাশিয়ার একটি টেলিগ্রাম চ্যানেলে ওই অনুষ্ঠানে হামলার একটি ড্রোন ফুটেজ প্রকাশ করা হয়েছে। এতে বেশ কিছু ইউক্রেন সেনার মরদেহ মাটিতে পড়ে থাকতে দেখা গেছে। এই ভিডিও প্রকাশ পাওয়ার পর সমালোচনার ঝড় ওঠে।

ইউক্রেনের বেশ কয়েকজন সেনা ও সামরিক বিশেষজ্ঞ বলেছেন, অনুষ্ঠানটি আক্রমণের ঝুঁকিতে থাকা এলাকায় আয়োজন করা উচিত হয়নি। তারা বলছেন, ইউক্রেনীয় কর্মকর্তাদের সচেতন থাকা উচিত ছিল। কারণ, রাশিয়ার ক্রমাগত ড্রোন নজরদারি ও বিমান হামলার মধ্যে রয়েছেন তারা। রুশ সেনারা সব সময় রণক্ষেত্রের কাছাকাছি ইউক্রেনীয় সেনাদের কার্যকলাপ পর্যবেক্ষণ করছে।

জেলেনস্কি বলেছেন, যা ঘটেছে তা সম্পর্কে সম্পূর্ণ সত্য প্রকাশ এবং এই ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঠেকাতে চান তিনি।

অজ্ঞাত এক ইউক্রেনীয় সেনার একটি ভিডিও প্রকাশিত হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, এই সেনা হামলাস্থলের কাছাকাছি একটি ব্রিগেডের সদস্য। ভিডিওতে পুরস্কার অনুষ্ঠান আয়োজন করায় প্রকাশ্যে কর্মকর্তাদের সমালোচনা করেছেন তিনি। বলেছেন, স্থানীয়রাও জানেন রণক্ষেত্রের সামনের সারির গ্রামগুলো নিয়মিত আক্রমণের শিকার হচ্ছে। এই অনুষ্ঠানের কারণে ইউক্রেনের অনেক সেনা ও বেসামরিককে প্রাণ দিত হলো।

তিনি প্রশ্ন তুলেছেন, যে কর্মকর্তারা এই আয়োজন করেছিলেন তারা কী ভাবছিলেন। কারণ, সম্মুখভাগে থাকা সবাই জানেন দুজনের বেশি সেনার সমাবেশ শত্রুকে হামলার জন্য উসকে দেয়।

ইউক্রেনীয় স্বেচ্ছাসেবক সেরহি স্টারনেনকো পরামর্শ দিয়েছেন, এই অনুষ্ঠান আয়োজনকারী কমান্ডারকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া উচিত। তিনি বলেন, ইতোমধ্যে এমন আরও ঘটনা ঘটেছে। দুর্ভাগ্যজনক। পদ্ধতি পরিবর্তন না হলে এই ধরনের ঘটনা আরও ঘটবে।

ইউক্রেনের বেশ কিছু সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারকারীও পুরস্কার অনুষ্ঠান আয়োজকদের শাস্তি দাবি করে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

/এএকে/এএ/এমওএফ/
টাইমলাইন: ইউক্রেন সংকট
২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৮:৩০
২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৭:০২
২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০৯:০৪
২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৮:০১
২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১:০৪
০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ২৩:০১
সম্পর্কিত
মস্কোতে হামাস-ফাত্তাহ বৈঠক, আলোচনায় ফিলিস্তিনি ঐক্য
আরও ২টি রুশ যুদ্ধবিমান ভূপাতিত করার দাবি ইউক্রেনের
পারমাণবিক যুদ্ধের ঝুঁকির বিষয়ে পশ্চিমাদের সতর্ক করলেন পুতিন
সর্বশেষ খবর
আগুন লাগা ভবনের রেস্টুরেন্টে যাওয়া মা-মেয়ে নিখোঁজ
আগুন লাগা ভবনের রেস্টুরেন্টে যাওয়া মা-মেয়ে নিখোঁজ
তিশার বাবাকে লিগ্যাল নোটিশ
তিশার বাবাকে লিগ্যাল নোটিশ
আগুন নিয়ন্ত্রণে, ভিড়ে উদ্ধারকাজ ব্যাহত
আগুন নিয়ন্ত্রণে, ভিড়ে উদ্ধারকাজ ব্যাহত
ছাদে আটকে আছেন অনেকে, ৬৮ জনকে উদ্ধার
বেইলি রোডে ভবনে আগুনছাদে আটকে আছেন অনেকে, ৬৮ জনকে উদ্ধার
সর্বাধিক পঠিত
বিপিএলে চ্যাম্পিয়ন দল কত টাকা পাবে জানালো বিসিবি
বিপিএলে চ্যাম্পিয়ন দল কত টাকা পাবে জানালো বিসিবি
প্রাণিসম্পদ অধিদফতরে নতুন ডিজি
প্রাণিসম্পদ অধিদফতরে নতুন ডিজি
গাজায় যুদ্ধবিরতি: কী বলছে হামাস, ইসরায়েল ও যুক্তরাষ্ট্র
গাজায় যুদ্ধবিরতি: কী বলছে হামাস, ইসরায়েল ও যুক্তরাষ্ট্র
মুরাদের ফোন ও ল্যাপটপে যৌন হয়রানির প্রমাণ মিলেছে
মুরাদের ফোন ও ল্যাপটপে যৌন হয়রানির প্রমাণ মিলেছে
বিদ্যুতের বর্ধিত দাম কার্যকর হবে ফেব্রুয়ারি থেকেই
বিদ্যুতের বর্ধিত দাম কার্যকর হবে ফেব্রুয়ারি থেকেই