X
রবিবার, ২৬ জুন ২০২২
১২ আষাঢ় ১৪২৯

ইউক্রেন ইস্যুতে কৌশলে অবস্থান পাল্টাচ্ছে ভারত?

আপডেট : ২০ মার্চ ২০২২, ২০:২০

ইউক্রেন ইস্যুতে কৌশলে অবস্থান কিছুটা পাল্টানোর ইঙ্গিত দিয়েছে ভারত। শনিবার জাপানের প্রধানমন্ত্রী ফুমিও কিশিদার দিল্লি সফরকালে এমন ইঙ্গিত দেয় মোদি প্রশাসন। ফুমিও কিশিদার সঙ্গে সংঘাতের ‘বিশদ প্রভাব’ মূল্যায়নের কথা জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী। বিশেষ করে ইন্দো প্যাসিফিক অঞ্চলে চীনের ক্রমবর্ধমান যুদ্ধংদেহী অবস্থান নিয়ে কথা বলেছেন দুই নেতা।

ভারত এখনও পর্যন্ত ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসন এবং ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চলে চীনের যুদ্ধংদেহী মনোভাবকে একই দৃষ্টিতে দেখার যে কোনও প্রচেষ্টা প্রত্যাখ্যান করে আসছে। রাশিয়া যদি ইউক্রেনের বিরুদ্ধে আগ্রাসন চালিয়ে পার পেয়ে যায় তাহলে চীনও ইন্দো প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে যুদ্ধের জন্য উৎসাহিত হবে; যুক্তরাষ্ট্রের এমন যুক্তিও প্রত্যাখ্যান করে আসছে দিল্লি।

অবিলম্বে সহিংসতা বন্ধের আহ্বান

ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসন নিয়ে পুতিনের সঙ্গে সরাসরি আলোচনার বিষয়টি শনিবারও এড়িয়ে গেছেন মোদি। তবে এই আগ্রাসনের জন্য পুতিনের নিন্দা জানিয়েছেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী ফুমিও কিশিদা। দুই প্রধানমন্ত্রী একসঙ্গে ইউক্রেনে ‘অবিলম্বে সহিংসতা বন্ধের’ আহ্বান জানিয়েছেন। উল্লেখ করেছেন যে, সংলাপ ও কূটনীতিই সংঘাত সমাধানের একমাত্র পথ।

আগামী পাঁচ বছরে ভারতে ৫ ট্রিলিয়ন ইয়েন (৪২ বিলিয়ন ডলার) বিনিয়োগের ঘোষণা দিয়েছেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী। বেঙ্গালুরুতে পানি সরবরাহ ও পয়ঃনিষ্কাশন প্রকল্পের তৃতীয় ধাপসহ ভারতজুড়ে সাতটি প্রকল্পের জন্য ৩০০ বিলিয়ন ইয়েন দেওয়ার অঙ্গীকার করেছে জাপান ইন্টারন্যাশনাল কোঅপারেশন এজেন্সি (জেআইসিএ)।

দুই নেতার শীর্ষ সম্মেলনের সাইডলাইনে উভয় পক্ষ মোট ছয়টি নথিতে স্বাক্ষর করেছে। এসব নথি সাইবার নিরাপত্তা এবং টেকসই নগর উন্নয়নের পাশাপাশি অর্থনৈতিক অংশীদারিত্বকে এগিয়ে নেওয়ার ক্ষেত্রে পারস্পরিক সহযোগিতা বাড়ানোর ক্ষেত্র তৈরি করেছে।

ভারতের পররাষ্ট্র সচিব হর্ষ শ্রিংলা পরে সাংবাদিকদের বলেন, দুই প্রধানমন্ত্রী রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যকার সংঘাত নিয়ে মতবিনিময় করেছেন। কিশিদার প্রেস সেক্রেটারি হিকারিকো ওনো বলেছেন, জাপান ও ভারত একই পৃষ্ঠায় ছিল এবং দুই প্রধানমন্ত্রী একমত হয়েছেন যে, বিশ্বের যে কোনও জায়গায় বলপ্রয়োগ করে স্থিতাবস্থা পরিবর্তনের যে কোনও প্রচেষ্টা কখনও সহ্য করা যাবে না।

যুক্তরাষ্ট্রসহ অন্য পশ্চিমা দেশগুলো ইউক্রেনের বিরুদ্ধে রাশিয়ার আগ্রাসন এবং এ অঞ্চলে ভারত ও জাপানসহ অন্য দেশগুলোর সঙ্গে চীনের বিবাদকে সমান্তরাল হিসেবে দেখাতে চাইছে। দিল্লি অবশ্য বাইডেনের প্রশাসনের এমন চিন্তাভাবনা প্রত্যাখ্যান করেছে। ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, উভয় পরিস্থিতিকে এক করে দেখার সুযোগ নেই।

দিল্লিতে শীর্ষ সম্মেলনের পর জারি করা যৌথ বিবৃতির তথ্য অনুযায়ী, ‘ইউক্রেনের চলমান সংঘাত এবং মানবিক সংকট সম্পর্কে গুরুতর উদ্বেগ প্রকাশ এবং বিশেষ করে ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চলে এর বৃহত্তর প্রভাব’ মূল্যায়নের জন্য শনিবার কিশিদার সঙ্গে যোগ দেন মোদি।

জাতিসংঘ সনদ, আন্তর্জাতিক আইন, বিভিন্ন রাষ্ট্রের সার্বভৌমত্ব এবং আঞ্চলিক অখণ্ডতার প্রতি শ্রদ্ধার ভিত্তিতে সমসাময়িক যে বিশ্ব ব্যবস্থা তৈরি হয়েছে তার প্রতি জোর দিয়েছেন দুই নেতা।

যৌথ বিবৃতিতে অবশ্য সরাসরি রাশিয়ার নাম নেওয়া হয়নি। ইউক্রেনে ‘বিশেষ সামরিক অভিযান’ শুরুর নির্দেশ দেওয়ার জন্য রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের কোনও সমালোচনাও এতে ছিল না।

মোদি এবং কিশিদা ইউক্রেনের পারমাণবিক স্থাপনাগুলোর নিরাপত্তার ওপর জোর দিয়েছেন। এ ব্যাপারে আন্তর্জাতিক পারমাণবিক শক্তি সংস্থার সক্রিয় প্রচেষ্টার কথাও স্বীকার করেছেন তারা। অবিলম্বে সহিংসতা বন্ধের আহ্বান পুনর্ব্যক্ত করে দুই নেতা বলেছেন, সংঘাত অবসানে সংলাপ ও কূটনীতির পথ ছাড়া ভিন্ন কোনও বিকল্প নেই।

চীন ফ্যাক্টর

দুই প্রধানমন্ত্রী নিশ্চিত করেছেন যে, তারা ইউক্রেনের মানবিক সংকট মোকাবিলায় যথাযথ পদক্ষেপ নেবেন। ফুমিও কিশিদাকে পূর্ব লাদাখে ভারত ও চীনের সামরিক অবস্থানের বিষয়টি সম্পর্কে অবহিত করেন মোদি। অন্যদিকে বিশেষ করে পূর্ব চীন সাগর এবং দক্ষিণ চীন সাগরে জাপানের বিরুদ্ধে চীনের যুদ্ধংদেহী তৎপরতার বিষয়ে মোদিকে অবহিত করেন কিশিদা। সোমবার অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসনের সঙ্গেও ভার্চুয়াল বৈঠক করবেন মোদি।

ইউক্রেন ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্র, ভারত, জাপান ও অস্ট্রেলিয়ার সমন্বয়ে গঠিত কৌশলগত জোট কোয়াডেও মতপার্থক্য দেখা দিয়েছে। ভারত ছাড়া এই জোটের অন্য দেশগুলো ইউক্রেন ইস্যুতে সরব হয়েছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন কোয়াডের ভার্চুয়াল শীর্ষ সম্মেলন আহ্বানের কদিনের মাথায় জাপান ও অস্ট্রেলিয়ার নেতাদের সঙ্গে কথা বলেছেন নরেন্দ্র মোদি। তার যুক্তি, কোয়াডের উচিত ইন্দো-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে চীনের মোকাবিলায় তার ফোকাস রাখা। একইসঙ্গে ইউক্রেনে হামলার জন্য কোয়াডের পক্ষ থেকে রাশিয়ার নিন্দা জানানোর মার্কিন প্রচেষ্টারও বিরোধিতা করছে দিল্লি। অস্ট্রেলিয়া ও জাপান যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থানকে সমর্থন করলেও ভারতের আপত্তির কারণেই কোয়াডের শীর্ষ সম্মেলনের পর জারি করা যৌথ বিবৃতিতে ইউক্রেনে সামরিক অভিযানের জন্য রাশিয়ার সরাসরি নিন্দা জানানো হয়নি।

ডেকান হেরাল্ড অবলম্বনে। 

/এমপি/
টাইমলাইন: ইউক্রেন সংকট
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
সেতু চালুর প্রথম দিনেই কমে গেছে লঞ্চযাত্রী
সেতু চালুর প্রথম দিনেই কমে গেছে লঞ্চযাত্রী
বাংলাদেশকে অনেক ভুগিয়ে থামলেন মায়ার্স
বাংলাদেশকে অনেক ভুগিয়ে থামলেন মায়ার্স
হ্যাকিংয়ের শিকার অ্যাপল ও অ্যান্ড্রয়েড ফোন
হ্যাকিংয়ের শিকার অ্যাপল ও অ্যান্ড্রয়েড ফোন
পদ্মা সেতুর নাট খোলা বায়েজিদ ছাত্রদল কর্মী 
পদ্মা সেতুর নাট খোলা বায়েজিদ ছাত্রদল কর্মী 
এ বিভাগের সর্বশেষ
সস্তায় তেল কিনতে মন্ত্রীদের রাশিয়া পাঠাচ্ছে শ্রীলঙ্কা
সস্তায় তেল কিনতে মন্ত্রীদের রাশিয়া পাঠাচ্ছে শ্রীলঙ্কা
ইউক্রেন যুদ্ধ শুরুর পর প্রথম বিদেশ সফরে যাচ্ছেন পুতিন
ইউক্রেন যুদ্ধ শুরুর পর প্রথম বিদেশ সফরে যাচ্ছেন পুতিন
বেলারুশ থেকে বিমান হামলা চালিয়েছে রাশিয়া: ইউক্রেন
বেলারুশ থেকে বিমান হামলা চালিয়েছে রাশিয়া: ইউক্রেন
গুরুতর অসুস্থতায় মারা যাবেন পুতিন: ইউক্রেনীয় জেনারেল
গুরুতর অসুস্থতায় মারা যাবেন পুতিন: ইউক্রেনীয় জেনারেল
সেভেরোডনেস্কের পতন: মারিউপোলের পর রাশিয়ার বড় জয়
সেভেরোডনেস্কের পতন: মারিউপোলের পর রাশিয়ার বড় জয়