X
রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪
১৯ ফাল্গুন ১৪৩০

স্মৃতিসুধায় লেখা যত এপিটাফ

উদিসা ইসলাম
২৯ আগস্ট ২০২৩, ০৪:০৪আপডেট : ২৯ আগস্ট ২০২৩, ০৪:০৪

মানুষ নিজ নিয়মে জীবন অতিবাহিত করেন, প্রকৃতির অমোঘ নিয়মে পৃথিবী ছেড়ে চলে যান। সেই মানুষের চলে যাওয়া অন্যরা তখনই মনে রাখেন যখন কেউ পিছে রেখে যান অনেক অবদান। রেখে যান এমন অনেককে, যাদের এই থাকাটা অর্থবহ করেছেন তিনি। দৈনিক আজকের কাগজের প্রকাশক ও সম্পাদক, জেমকন গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা কাজী শাহেদ আহমেদ তেমনই একজন। সোমবার রাতে যখন তার মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়ে তখন কলম তুলে নিতে দেরি করেন না সেই সৈনিকেরা, যাদের হাতে তিনি তুলে দিয়েছিলেন সৃজনশীল সাংবাদিকতার সাহসী কলম।

সিনিয়র সাংবাদিক অঞ্জন রায় বিদায় জানিয়ে লিখেছেন, বাংলাদেশের সংবাদমাধ্যম আপনাকে মনে রাখবে ৯০ দশকে বদলে যাওয়া বাংলা খবরের কাগজের পৃষ্ঠপোষক ও অভিভাবক হিসাবে। আমি ভাগ্যবান– আপনার স্নেহ আর প্রশ্রয়ে আজকের কাগজের পাবনা প্রতিনিধি থেকে স্টাফ রিপোর্টার পর্যন্ত কাজ করতে পেরেছি। ১৯৯৩ সালে আমার একটা রিপোর্টের কারণে আপনাকে একসঙ্গে প্রায় ২০টি মামলা মোকাবিলা করতে হয়েছিল। কিন্তু একবারও আপনি সেই ভোগান্তির জন্য বিরক্ত হননি, উল্টো উৎসাহ দিয়ে আমাকে বলেছিলেন– ‘আরও লেখ’।

আজকের কাগজে যারাই সে সময় কাজ করেছেন তারা সকলেই এখন যার যার জায়গা থেকে সাংবাদিকতাকে এগিয়ে নিয়ে চলেছেন।

আনোয়ার হক ফেসবুকে লিখেছেন, চলে গেলেন কাজী শাহেদ আহমেদ, আজকের কাগজ-এ আমার সম্পাদক। আমার মতো অনেকের-ই সাংবাদিকতায় শাণিত যাত্রা শুরু আধুনিক সাংবাদিকতার 'সূতিকাগার' অধুনাবিলুপ্ত আজকের কাগজ-এর পথ ধরে। আজকের বাংলাদেশে প্রকাশিত পত্রিকায় যে আধুনিকতার উপস্থিতি, তার শুরুই হয়েছিল কাজী শাহেদ আহমেদের সম্পাদনায় প্রকাশিত ‘আজকের কাগজ’ পত্রিকার মাধ্যমে।

জ ই মামুন দীর্ঘ শোকগাঁথায় লিখেছেন, তার প্রতিষ্ঠান আজকের কাগজ এবং সাপ্তাহিক খবরের কাগজ পত্রিকা দিয়ে আমার সাংবাদিকতার হাতেখড়ি। এক্ষেত্রে মূল ভূমিকা যদিও পালন করেছেন নাঈম ভাই, সম্পাদক নাঈমুল ইসলাম খান। নইলে শাহেদ ভাইয়ের তো আর আমাকে চেনার কথা না। তবে সাংবাদিকতা করতে করতেই শাহেদ ভাইয়ের স্নেহস্পর্শ পাওয়া। পিতৃতুল্য হলেও আমরা তাকে শাহেদ ভাই ডাকতাম। তিনি সন্তানের মতোই স্নেহ করতেন আমাদেরকে।

৯১ সালে প্রথম দিকে অফিসে তাকে দেখতাম সাফারি স্যুট পরা গোঁফওয়ালা রাগী ব্যক্তি হিসেবে। তারপর হঠাৎ ওনার মায়ের মৃত্যুর পর সেই যে শাহেদ ভাই সাফারি ছেড়ে পাঞ্জাবি ধরলেন, আর তাকে অন্য পোশাকে দেখিনি। তার সিগনেচার ছিল হাতের বাঁকা কাঠের লাঠি। বৃদ্ধ হওয়ার বহু আগে থেকেই তিনি ওই লাঠি ধরেছেন। তার প্রতিষ্ঠানে অল্প দিন কাজ করলেও আজীবন তিনি তার স্নেহের ছায়া বিছিয়ে রেখেছেন আমাদের ওপরে।

আজকের কাগজ কেবল একঝাঁক সাংবাদিক তৈরি করেছিল তাই নয়, পত্রিকাটি পাঠক তৈরি করেছিল। তেমনই একজন পাঠক আবু আহমেদ ফয়জুল কবীর। তিনি স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে লিখেছেন, আজকের কাগজ। আমাদের তরুণ বয়সের একটি আধুনিক দৈনিক। কাজী শাহেদ আহমেদ ছিলেন কাগজটির কর্ণধার। প্রচলিত কাগজের ধারণার বাইরে ছিল এর গেটআপ, বর্ণসজ্জা আর অক্ষর বিন্যাস। বোধকরি কাগজের প্রতি আকর্ষণের এটিও একটি কারণ। দেশের সংবাদ, সম্পাদকীয়, উপ সম্পাদকীয় ছিল সমসাময়িক এবং ভিন্নতায় ভরা। মনোযোগ দিয়ে কাগজটি পড়া ছিল প্রাত্যহিক নিয়ম।

পঞ্চগড়ের রাজনীতিবিদ নাঈমুজ্জামান মুক্তা লিখেছেন, একজন অসামান্য উদ্যোক্তা এবং দেশে প্রথম সমতলে চা চাষের জন্য পঞ্চগড়কে বেছে নিয়ে যিনি বিশ্বে পঞ্চগড়কে নুতন পরিচয় দিয়েছেন। পঞ্চগড়ের পরম বন্ধু কাজী শাহেদ আহমেদের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করছি! পঞ্চগড়ে বিনিয়োগ নিরাপদ, বাংলাদেশর বড় বড় উদ্যোক্তাদের এমন ধারণা দিতে নিজে বৈদ্যুতিক পিলার, চা, জুট মিল, ডেইরিসহ নানা ব্যাবসায় বিনিয়োগ করে দেশের অন্যতম বিনিয়োগবান্ধব এলাকা হিসেবে তুলে ধরার জন্য পঞ্চগড়বাসী সবসময় আপনাকে শ্রদ্ধার সঙ্গে মনে রাখবে।

মৃত্যু অনিবার্য। কিন্তু অন্যের জন্য করা, নতুন কিছুতে অবদান রাখার পরে নিয়ম মেনে যে চলে যাওয়া তাতে শ্রদ্ধায় মাথা নত হয়।

/আরআইজে/
টাইমলাইন: কাজী শাহেদ আহমেদের জীবনাবসান
২৯ আগস্ট ২০২৩, ০৪:০৪
স্মৃতিসুধায় লেখা যত এপিটাফ
সম্পর্কিত
স্মরণসভায় বক্তারাস্রোতের বিপরীতে নির্ভয়ে কাজ করে গেছেন কাজী শাহেদ আহমেদ
কাজী শাহেদ আহমেদের স্মরণসভা শুক্রবার
স্মরণসভায় বক্তারা‘নিষ্ঠা ও প্রেরণার বাতিঘর কাজী শাহেদ আহমেদ’
সর্বশেষ খবর
ডিসি সম্মেলন শুরু
ডিসি সম্মেলন শুরু
মেসি, সুয়ারেজের জোড়ায় ডার্বি জিতলো মায়ামি  
মেসি, সুয়ারেজের জোড়ায় ডার্বি জিতলো মায়ামি  
রিপাবলিকান মনোনয়ন দৌড়ে আরও এক ধাপ এগোলেন ট্রাম্প
রিপাবলিকান মনোনয়ন দৌড়ে আরও এক ধাপ এগোলেন ট্রাম্প
পশুর হাটে চাঁদাবাজি, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান বললেন ‘আমার সম্পদের ওপর বাজার’
পশুর হাটে চাঁদাবাজি, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান বললেন ‘আমার সম্পদের ওপর বাজার’
সর্বাধিক পঠিত
ডিপ্লোমা প্রকৌশলীদের বিএসসি পাস মর্যাদা দেওয়ার উদ্যোগ
ডিপ্লোমা প্রকৌশলীদের বিএসসি পাস মর্যাদা দেওয়ার উদ্যোগ
স্কুলে গণিত ও বিজ্ঞানের শিক্ষক হতে পারেন ডিপ্লোমা প্রকৌশলীরা: শিক্ষামন্ত্রী
স্কুলে গণিত ও বিজ্ঞানের শিক্ষক হতে পারেন ডিপ্লোমা প্রকৌশলীরা: শিক্ষামন্ত্রী
ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে ছিল ‘এএমপিএম’, পলাতক কর্মকর্তারা
বেইলি রোড ট্র্যাজেডিব্যবস্থাপনার দায়িত্বে ছিল ‘এএমপিএম’, পলাতক কর্মকর্তারা
বিদেশের সম্পদ দেশের টাকায় করিনি: সাবেক ভূমিমন্ত্রী
বিদেশের সম্পদ দেশের টাকায় করিনি: সাবেক ভূমিমন্ত্রী
পূর্ব ইউক্রেনের একটি শহর ঘেরাও করেছে রুশ সেনাবাহিনী
পূর্ব ইউক্রেনের একটি শহর ঘেরাও করেছে রুশ সেনাবাহিনী