X
বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪
৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

ইউক্রেনের খারকিভে হামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে রুশ সেনারা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
২০ এপ্রিল ২০২৪, ১৮:০৬আপডেট : ২০ এপ্রিল ২০২৪, ১৮:০৬

ইউক্রেনের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর খারকিভে সম্ভাব্য অভিযান শুরুর প্রস্তুতি নিচ্ছে রুশ সেনাবাহিনী। মার্চ মাসের শেষ দিকে অঞ্চলটিতে বিমান হামলা জোরদার করেছে রাশিয়া। মার্চের আগ পর্যন্ত এমন হামলা বিরল ছিল সেখানে। ইউক্রেনীয় কর্মকর্তারা বলছেন, খারকিভে ইউক্রেনীয় সেনাবাহিনীর আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থায় ঘাটতির সুযোগ কাজে লাগাতে চাইছে মস্কোর সেনারা। এমন পরিস্থিতিতে কেউ কেউ শহর ছাড়ছেন, অনেকেই শহরে থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। মার্কিন বার্তা সংস্থা এপির এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য উঠে এসেছে।

ইউক্রেনের কর্মকর্তাদের মতে, খারকিভের জ্বালানি অবকাঠামোতে হামলা জোরদার করেছে রাশিয়া। শহরটির ১৩ লাখ মানুষ আতঙ্কের মধ্যে বাস করছেন। প্রায় ২ লাখ শহুরে বাসিন্দা বিদ্যুৎবিহীন হয়ে পড়েছেন। পুরো অঞ্চলের অর্ধেকের বেশি মানুষ বিদ্যুৎ বিপর্যয়ে দুর্ভোগে রয়েছেন।

কয়েকজন কর্মকর্তা ও বিশ্লেষক সতর্ক করে বলছেন, গ্রীষ্মকালে শহরটি দখলের লক্ষ্যে এসব বিমান হামলা হয়ত মস্কোর পরিকল্পনার অংশ।

আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা জোরদার করার প্রয়োজনীয়তার কথা স্বীকার করে খারকিভের গভর্নর ওলেহ সিনিয়েহুবভ বলেছেন, আমরা স্পষ্টভাবে বুঝতে পারছি শত্রুরা আসলেই প্রতিদিন আমাদের দুর্বলতার সুযোগ কাজে লাগাচ্ছে।

তিনি বলেছেন, আমরা প্রতিদিন ঘুম থেকে জেগে উঠি, কিন্তু কোনও ধারণাই থাকে না যে আমাদের বিদ্যুৎ থাকবে কি-না।

খারকিভে সাম্প্রতিক রুশ হামলার তাৎপর্য নিয়ে ইউক্রেনীয় কর্মকর্তাদের মধ্যে বিভাজন রয়েছে।

প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি বলেছেন, রাশিয়া যে অঞ্চলটি দখল করতে চায়, এটি কোনও গোপন বিষয় না। কিন্তু ইউক্রেনের সামরিক গোয়েন্দা সংস্থা রাশিয়ার আসন্ন হামলার প্রস্তুতিকে আতঙ্ক ছড়াতে গুজব ও মনোজাগতিক অভিযান বলে উল্লেখ করছে। বিশ্লেষকরা বলছে, সাম্প্রতিক হামলার তীব্রতার আলোকে বড় আকারের অভিযানের কথা উড়িয়ে দেওয়া যায় না।

ইউক্রেন কোনও সুযোগ দিতে চায় না। ইতোমধ্যে শহরতলীতে প্রতিরক্ষা জোরদার করা হয়েছে। প্রতিরক্ষা কাজে থাকা এক প্রকৌশলী ওলেক্সান্ডার বলেছেন, ক্রুরা ট্যাংক বিধ্বংসী পরিখা খনন করছে, পরিখার একটি নেটওয়ার্ক গড়ে তোলা হচ্ছে। এগুলো রুশ সেনাদের দূরে রাখবে। তাদেরকে মে মাসের মধ্যে এই কাজ সম্পন্ন করতে বলা হয়েছে।

খারকিভের ক্যাফে ও রেস্তোরাঁগুলো এখন খুব ব্যস্ত। স্থানীয়দের কাছে এখন জেনারেটরের শব্দ বিরক্তিকর লাগে না। 

একটি রেস্তোরাঁয় খ্রোমভ নামের এক বাসিন্দা বলেছেন, মানুষ শহরে থাকছে, ব্যবসা চালু রেখেছে এবং কিছু করার চেষ্টা করছে। তারা আশাবাদী।

পাশের একটি বেকারিতে খাবার ঠান্ডা রাখতে বিদ্যুৎ রেশনে ব্যবহার করা হচ্ছে। বেকারির মালিক ওলেক্সান্ডার সিলকিনা (৩৪) বলেন, আমরা মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছি। ২০২২ সাল থেকে হামলার শিকার হচ্ছি আমরা। ফলে এসব হামলাকে এখন আমরা ভয় পাই না। আমরা শহর ছাড়ব না। এটি আমাদের শহর।

 

/এএ/
টাইমলাইন: ইউক্রেন সংকট
২০ এপ্রিল ২০২৪, ১৮:০৬
ইউক্রেনের খারকিভে হামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে রুশ সেনারা
সম্পর্কিত
যুক্তরাজ্যে জাতীয় নির্বাচন ৪ জুলাই
সৌদি আরবের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের নিরাপত্তা চুক্তি চূড়ান্ত হওয়ার পথে: ব্লিঙ্কেন
ফিলিস্তিনকে স্বীকৃতি দেওয়ার মতো পরিস্থিতি আসেনি: ফ্রান্স
সর্বশেষ খবর
সেই শিক্ষকের ‘ওপরের চেহারা’ বিভ্রান্ত করেছে সহকর্মীদেরও
৩০ শিশুকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগে গ্রেফতারসেই শিক্ষকের ‘ওপরের চেহারা’ বিভ্রান্ত করেছে সহকর্মীদেরও
টিভিতে আজকের খেলা (২৩ মে, ২০২৪)
টিভিতে আজকের খেলা (২৩ মে, ২০২৪)
দায়িত্বে অবহেলার কারণে রাজউকের প্রকৌশলী সাময়িক বরখাস্ত
দায়িত্বে অবহেলার কারণে রাজউকের প্রকৌশলী সাময়িক বরখাস্ত
যুক্তরাজ্যে জাতীয় নির্বাচন ৪ জুলাই
যুক্তরাজ্যে জাতীয় নির্বাচন ৪ জুলাই
সর্বাধিক পঠিত
যেভাবে এমপি আনোয়ারুল আজিমকে হত্যা করা হয়
যেভাবে এমপি আনোয়ারুল আজিমকে হত্যা করা হয়
‘খুন’ কিন্তু ‘লাশ নেই’: যা জানা গেলো এমপি আজিমকে নিয়ে
‘খুন’ কিন্তু ‘লাশ নেই’: যা জানা গেলো এমপি আজিমকে নিয়ে
১২০ টাকায় উঠলো ডলারের দাম
১২০ টাকায় উঠলো ডলারের দাম
এমপি আনোয়ারুল আজিম হত্যা নিয়ে বিবিসি বাংলার প্রতিবেদনে যা জানা গেলো
এমপি আনোয়ারুল আজিম হত্যা নিয়ে বিবিসি বাংলার প্রতিবেদনে যা জানা গেলো
যুক্তরাষ্ট্রের নতুন ‘অস্ত্র’ দুর্নীতি
সাবেক সেনাপ্রধানের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞাযুক্তরাষ্ট্রের নতুন ‘অস্ত্র’ দুর্নীতি