X
বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪
৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

হোটেল-রেস্তোরাঁয় অভিযান: শ্রমিকরা আটক হলেও মালিকেরা অধরা

আবির হাকিম
০৬ মার্চ ২০২৪, ২২:০০আপডেট : ০৬ মার্চ ২০২৪, ২২:০০

বেইলি রোডের গ্রিন কোজি কটেজে অগ্নিকাণ্ডের পর থেকেই রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় হোটেল-রেস্তোরাঁয় অভিযান চালানো শুরু করে সিটি করপোরেশন, রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃডক্ষ (রাজউক) ও পুলিশ। এসব অভিযানে এখন পর্যন্ত শতাধিক ব্যক্তি গ্রেফতার হলেও তারা মূলত বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের শ্রমিক ও কর্মী। অভিযানে যেসব প্রতিষ্ঠান সিলগালা করা হয়েছে এবং যেসব গ্রেফতারের ঘটনা ঘটেছে তার সবকটিতেই ভবন মালিকেরা রয়ে গেছেন ধরা ছোঁয়ার বাইরে।

অভিযান পরিচালনাকারী আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, রাজউক ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) কর্তৃপক্ষ বলছে, অভিযানের সময় মালিকেরা পলাতক থাকায় তাদের গ্রেফতার করা বা আইনের আওতায় আনা সম্ভব হচ্ছে না।

বেইলি রোডের অগ্নিকাণ্ডের পর রাজধানীর বিভিন্ন রেস্তোরাঁয় অভিযান চলছে

গত এক সপ্তাহে বিভিন্ন হোটেল, রেস্টুরেন্ট ও ভবনে অভিযান চালিয়ে শতাধিক ব্যাক্তিকে আটক করা হয়েছে। এর মধ্যে সোমবার (৪ মার্চ) মোহাম্মদপুরের জেনেভা ক্যাম্প, রিং রোড, তাজমহল রোডসহ বিভিন্ন এলাকায় হোটেল-রেস্তোরাঁয় অনিরাপদ সিলিন্ডার ব্যবহারের কারণে বিশেষ অভিযান চালিয়ে ৩৫ জনকে আটক করা হয়েছে। পরদিন মঙ্গলবার (৫ মার্চ) রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরে বিভিন্ন হোটেল-রেস্তোরাঁয় অভিযান চালিয়ে অনিয়ম, অব্যবস্থাপনার কারণে শ্রমিক ও ম্যানেজারসহ ২৪ জনকে আটক করেছে পুলিশ। একই দিনে ওয়ারী থানার রেংকিন স্ট্রিট সড়কের কাচ্চি ভাই রেস্টুরেন্ট, ফুড স্টোভ, শর্মা কিং, দি ডাইনিং লাঞ্চসহ অন্তত ২০টি হোটেল-রেস্তোরাঁয় অভিযান চালিয়ে সেখানে কর্মরত ৪৯ জনকে আটক করে পুলিশ ও ডিএসসিসির নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।

সরকারি সংস্থাগুলোর এসব অভিযানে গ্রেফতারের বাইরেও এখন পর্যন্ত কয়েক ডজন রেস্তোরাঁ সিলগালা করে দেওয়া হয়েছে। এতে করে অভিযান আতঙ্কে অধিকাংশ মালিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে গা ঢাকা দিয়েছেন বলে জানা গেছে।

অভিযানের বিষয়ে জানতে চাইলে ডিএসসিসির নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জাহাঙ্গীর আলম বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, কাউকে গ্রেফতার করা বা ভবন সিলগালা করা আমাদের অভিযানের উদ্দেশ্য নয়। আমাদের উদ্দেশ্য হলো মানুষের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা। এ কারণে কোথাও অনিয়ম, অব্যবস্থাপনা দেখলেই আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

অভিযানে অরক্ষিত ও ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় পাওয়া যাচ্ছে রাজধানীর হোটেল-রেস্তোরাঁগুলো

তিনি জানান, অভিযানের সময় হোটেল-রেস্তোরাঁর যথাযথ অনুমোদন রয়েছে কিনা, নিরাপদ স্থানে গ্যাস সিলিন্ডার ব্যবহার হচ্ছে কিনা, নিরাপত্তা ব্যবস্থা কতটুকু টেকসই, অগ্নিনির্বাপণ যন্ত্র এবং ঝুঁকির বিষয়গুলো যথাযথভাবে যাচাই করা হচ্ছে।

এসব অভিযানে শুধু শ্রমিকদেরই গ্রেফতার করা হচ্ছে কেন– জানতে চাইলে জাহাঙ্গীর আলম বলেন, অনিয়মের সঙ্গে জড়িত সবাইকেই আইনের আওতায় আনার নির্দেশ দিচ্ছি আমরা। তবে অধিকাংশ ক্ষেত্রেই ভবন মালিকেরা অভিযানের খবর পেলেই গা ঢাকা দেন।

এদিকে পুলিশ বলছে, হোটেল-রেস্তোরাঁ খাতের শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনা পর্যন্ত তাদের এসব অভিযান অব্যাহত থাকবে। ঢাকা মহানগর অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার ড. খন্দকার মহিদ উদ্দিন বাংলা্ ট্রিবিউনকে বলেন, সরকারি সংস্থাগুলোর অভিযান পরিচালনার সময় সেখানে কর্মরত শ্রমিকেরা তথ্য লুকানো এবং ভুল তথ্য দেওয়ার মতো ঘটনা ঘটেছে। এ কারণে তাদের আটক করা হয়েছে। তবে যেসব প্রতিষ্ঠানে অনিয়ম পাওয়া গেছে সেগুলোর মালিকদেরও আইনের আওতায় আনা হবে বলে জানান তিনি।

বেশিরভাগ রেস্তোরাঁয় অগ্নিনির্বাপণ ব্যবস্থা নেই বললেই চলে

মঙ্গলবার (৫ মার্চ) রাজধানীর বিজয়নগরে এক সংবাদ সম্মেলনে রেস্তোরাঁ মালিক সমিতির মহাসচিব ইমরান হাসান বলেন, রাজধানীতে গত কয়েক দিনের অভিযানে প্রায় ৪০টির মতো রেস্তোরাঁ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। আমরা প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতের অপেক্ষায় আছি। যদি সাক্ষাৎ না পাই, তাহলে সব রেস্টুরেন্টের চাবি প্রধানমন্ত্রীর দফতরে পাঠিয়ে দিয়ে অন্য কাজে চলে যাবো।

তিনি আরও বলেন, ‘গ্যাসের পর্যাপ্ততা নেই। সংযোগ থাকলেও লাইনে গ্যাস নেই। বিকল্প ব্যবস্থা হলো গ্যাস সিলিন্ডার বা লাকড়ি ব্যবহার। লাকড়ি ব্যবহার করলে কিচেনসহ পুরো রেস্টুরেন্ট কালো হয়ে যায়, পরিবেশ ঠিক থাকে না। পুরো বিষয়টি নিয়ে উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন একটি টাস্কফোর্স গঠন করে ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত চাচ্ছি। ভবিষ্যতের জন্য নির্দিষ্ট একটি গাইডলাইন তৈরি করতে হবে, যাতে ব্যাঙের ছাতার মতো রেস্তোরাঁ গজিয়ে উঠতে না পারে।’

অন্যান্য ব্যবসার মতো রেস্তোরাঁ ব্যবসাকে নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নিতে কিছু লোক গভীর ষড়যন্ত্র করছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

আরও পড়ুন-

রেস্তোরাঁয় ডিএনসিসির অভিযান: অগ্নিনিরাপত্তা ব্যবস্থা না থাকায় সিলগালা ও জরিমানা

রাজধানীর বিভিন্ন রেস্তোরাঁ ও ভবনে রাজউক-ডিএসসিসির অভিযান

সব রেস্টুরেন্টের চাবি প্রধানমন্ত্রীর দফতরে পাঠিয়ে দেবো, বলছেন মালিকরা

সাত মসজিদ রোডের সব বুফে রেস্তোরাঁ বন্ধ

‘রেস্তোরাঁ পাড়া’র ভবনগুলোতে অগ্নিনিরাপত্তা কেমন

/এফএস/
টাইমলাইন: বেইলি রোডে আগুন
০৬ মার্চ ২০২৪, ২২:০০
হোটেল-রেস্তোরাঁয় অভিযান: শ্রমিকরা আটক হলেও মালিকেরা অধরা
০২ মার্চ ২০২৪, ২১:৫১
সম্পর্কিত
দায়িত্বে অবহেলার কারণে রাজউকের প্রকৌশলী সাময়িক বরখাস্ত
তিন সূচক পূরণ হলেই ঢাকা বাসযোগ্য হবে: তাপস
রাজধানীতে মাদকসহ গ্রেফতার ৩৮
সর্বশেষ খবর
সেই শিক্ষকের ‘ওপরের চেহারা’ বিভ্রান্ত করেছে সহকর্মীদেরও
৩০ শিশুকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগে গ্রেফতারসেই শিক্ষকের ‘ওপরের চেহারা’ বিভ্রান্ত করেছে সহকর্মীদেরও
টিভিতে আজকের খেলা (২৩ মে, ২০২৪)
টিভিতে আজকের খেলা (২৩ মে, ২০২৪)
দায়িত্বে অবহেলার কারণে রাজউকের প্রকৌশলী সাময়িক বরখাস্ত
দায়িত্বে অবহেলার কারণে রাজউকের প্রকৌশলী সাময়িক বরখাস্ত
যুক্তরাজ্যে জাতীয় নির্বাচন ৪ জুলাই
যুক্তরাজ্যে জাতীয় নির্বাচন ৪ জুলাই
সর্বাধিক পঠিত
যেভাবে এমপি আনোয়ারুল আজিমকে হত্যা করা হয়
যেভাবে এমপি আনোয়ারুল আজিমকে হত্যা করা হয়
‘খুন’ কিন্তু ‘লাশ নেই’: যা জানা গেলো এমপি আজিমকে নিয়ে
‘খুন’ কিন্তু ‘লাশ নেই’: যা জানা গেলো এমপি আজিমকে নিয়ে
১২০ টাকায় উঠলো ডলারের দাম
১২০ টাকায় উঠলো ডলারের দাম
এমপি আনোয়ারুল আজিম হত্যা নিয়ে বিবিসি বাংলার প্রতিবেদনে যা জানা গেলো
এমপি আনোয়ারুল আজিম হত্যা নিয়ে বিবিসি বাংলার প্রতিবেদনে যা জানা গেলো
যুক্তরাষ্ট্রের নতুন ‘অস্ত্র’ দুর্নীতি
সাবেক সেনাপ্রধানের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞাযুক্তরাষ্ট্রের নতুন ‘অস্ত্র’ দুর্নীতি