X
বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
১৯ মাঘ ১৪২৯

নিউমার্কেটসহ ৫ মার্কেটের গণশৌচাগারগুলো বেহাল

ওবাইদুর সাঈদ, ঢাকা কলেজ
২৫ জানুয়ারি ২০২৩, ১০:০০আপডেট : ২৫ জানুয়ারি ২০২৩, ১৪:১৬

রাজধানীর নিউমার্কেট এলাকায় অবস্থিত ঢাকা নিউ মার্কেট, ঢাকা নিউ সুপার (দক্ষিণ) মার্কেট, ঢাকা নিউ সুপার (উত্তর) ডি ব্লক, চন্দ্রিমা সুপার মার্কেট ও বনলতা নিউ মার্কেটে রয়েছে সিটি করপোরেশনের আলাদা গণশৌচাগার। কিন্তু এই পাঁচটি মার্কেটের সব শৌচাগারেই দেখা গেছে ভিন্ন ভিন্ন দশা।

সরেজমিনে ঢাকা নিউমার্কেটের ১ নং গেট দিয়ে হাতের বাঁয়ে গেলেই দেখা মেলে গণশৌচাগারের। এখানে পুরুষ-নারীভেদে রয়েছে আলাদা টয়লেট। সব টয়লেটই পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন দেখা গেছে। টিস্যু ও সাবানের ব্যবস্থাও রয়েছে। এখানে সেবা নিতে গেলে জনপ্রতি প্রস্রাবের জন্য রাখা হয় ৫ টাকা, পায়খানা ও গোসলের জন্য ১০ টাকা। টাইলসে বাঁধা চকচকে শৌচাগারগুলো বেশ পরিচ্ছন্ন। নারীদের জন্য রয়েছে আলাদা ব্যবস্থা। নিউমার্কেটসহ ৫ মার্কেটের গণশৌচাগারগুলো বেহাল
ওয়াদুদ আহমেদ নামের এক ব্যক্তি নিউমার্কেটে এসেছেন কেনাকাটা করতে। তার সঙ্গে কথা হয় শৌচাগারের গেটে। তিনি বলেন, ‘নিউমার্কেটের শৌচাগারগুলো বেশ পরিচ্ছন্ন দেখলাম। টিস্যুর ব্যবস্থা আছে। তবে মূল্যটা একটু বেশি নিচ্ছে। দেখা প্রস্রাব ও পায়খানা ১০ টাকা। প্রস্রাবের চাপ বেশি।’ এটার জন্য পাঁচ টাকা করে নিলেও পারত বলে তিনি মন্তব্য করেন।
শৌচাগারের ব্যবস্থাপনা নিয়ে জানতে চাইলে ঢাকা নিউমার্কেট দোকান মালিক সমিতির সভাপতি ডা. আমিনুল ইসলাম বলেন, ‘মার্কেট সিটি করপোরেশনের হলেও শৌচাগারগুলো আমরা নিজেদের অর্থায়নে পরিচালিত করি। বিষয়টি হলো, বাসা ভাড়া দিলে তো শৌচাগার দিতে হবে। শৌচাগার মূলত সেবামূলক। আমরা সর্বোচ্চটা দেওয়ার চেষ্টা করছি। সামনে শৌচাগারগুলোর মান আরও উন্নত করার পরিকল্পনা রয়েছে।’

ঢাকা নিউ সুপার (দক্ষিণ) মার্কেটের প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় তলা ঘুরে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন দেখা গেছে। এখানে হাই কমোড ও ফ্লাশের ব্যবস্থা রয়েছে। শৌচাগারগুলো আধুনিক পদ্ধতিতে করা। টিস্যু ও সাবান দেন কি না জানতে চাইলে দায়িত্বে থাকা ব্যক্তি জানান, টিস্যু ও সাবান সব সময় দেওয়া হয়। কিন্তু সাবান নেই জানাতেই তড়িঘড়ি করে সাবান বের করে দেন তিনি।
শৌচাগারগুলোর মান কেমন, জানতে চাইলে হাশেম খান নামের এক কর্মচারী বলেন, ‘মান খুব যে ভালো তা-ও না আবার খারাপও না। টিস্যুর ব্যবস্থা থাকলেও সাবান সব সময় পাওয়া যায় না।’ নিউমার্কেটসহ ৫ মার্কেটের গণশৌচাগারগুলো বেহাল
তবে এসবের উল্টো চিত্রও দেখা গেছে ঢাকা নিউ সুপার (উত্তর) ডি ব্লক মার্কেট, চন্দ্রিমা সুপার মার্কেট ও বনলতা নিউমার্কেটে। চন্দ্রিমা সুপার মার্কটের নিচতলায় গণশৌচাগারগুলোর দরজায় তালা দেখা যায়। তবে পাশে প্রস্রাবের ব্যবস্থা রয়েছে। যেখানে-সেখানে ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে টিস্যু।

আশপাশের দোকানের কয়েকজন জানান, এই শৌচাগারটি দীর্ঘদিন ধরে পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে আছে। এই মার্কেটের দ্বিতীয় ও তৃতীয় তলায় শৌচাগারগুলো সচল রয়েছে।

চন্দ্রিমা সুপার মার্কটের মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. হাফিজুর রহমান রাজু বাংলা ট্রিবিউনকে ফোনে বলেন, ‘নিচতলার শৌচাগার সম্পর্কে সিটি করপোরেশনকে জানানো হয়েছে। তারা টেন্ডার করে এটা ঠিক করার ব্যবস্থা নেবে।’ নিউমার্কেটসহ ৫ মার্কেটের গণশৌচাগারগুলো বেহাল
ঢাকা নিউ সুপার (উত্তর ডি ব্লক) মার্কেটের দ্বিতীয় তলার গণশৌচাগার বন্ধ পাওয়া যায়। শৌচাগারের প্রবেশপথের সাটার বন্ধ পাওয়া যায়, যদিও এটি ২০১৯ সালে দোকান মালিক সমিতির অর্থায়নে সংস্কার করা হয়। মার্কেটের নিচতলা ও তৃতীয় তলায় গণশৌচাগার চালু রয়েছে। কিন্তু এখানে চোখে পড়েনি টিস্যু ও সাবান। অথচ শৌচাগারের দায়িত্ব থাকা ব্যক্তির দাবি, নিয়মিত টিস্যু ও সাবান দেওয়া হয়।

কেন দ্বিতীয় তলার শৌচাগার বন্ধ রয়েছে, জানতে চাইলে ঢাকা নিউ সুপার (উত্তর) ডি ব্লকের দোকান মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. আবু তাহের বলেন, ‘চাইলেও সব বলা যায় না। এগুলো সিটি করপোরেশনের পাবলিক টয়লেট হলেও দোকান মালিক সমিতির অর্থায়নে এগুলো করা হয়েছে। বাড়ি ভাড়া দিলে তো টয়লেট দিতে হয়। আমরা দোকান ভাড়া দিই। সে জন্য টয়লেটের জন্য দোকানের কর্মচারীদের থেকে পয়সা নিতে পারি না। এখন যদি বাইরের কাউকে লিজ দেয় সিটি করপোরেশন, তাহলে দেখা যাবে একটা গন্ডগোল হতে পারে। সে জন্যই আমরা নিজেদের অর্থায়নে এসব চালাই।’ নিউমার্কেটসহ ৫ মার্কেটের গণশৌচাগারগুলো বেহাল
তিনি আরও বলেন, ‘একটা টয়লেট চালাতে অনেক খরচ আছে। পানি ও বিদ্যুৎ বিল। কাউকে দায়িত্বে রাখলে তার বিল দিতে হয়। এত টাকা তো আমাদের বহন করা সম্ভব হয় না। আরও টয়লেট হতো বন্ধ রাখা লাগতে পারে। তা ছাড়া এই মার্কেটের দ্বিতীয় ও তৃতীয় তলার সব দোকান হলো সেলার। কাস্টমার অত আসে না। তাই ব্যয় কমাতে দ্বিতীয় তলার টয়লেট বন্ধ রাখতে হয়েছে।’

বনলতা নিউমার্কেটের দশাও একই। সরেজমিনে দেখা যায় মার্কেটের নিচতলার শৌচাগার অপরিচ্ছন্ন। দ্বিতীয় তলারটি বন্ধ। বাঁশের টাটালি দিয়ে বন্ধ করে রাখা হয়েছে। তৃতীয় তলার শৌচাগারে ঢুকতেই উৎকট গন্ধ নাকে আসে। পানি জমা। শৌচাগারের দরজায় ছিদ্র। তা পলিথিন দিয়ে বন্ধ করা আছে। কোথাও বা আলাদা কাঠ দিয়ে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। নিউমার্কেটসহ ৫ মার্কেটের গণশৌচাগারগুলো বেহাল
দরজা ঠেলে ঢুকতেই অপরিষ্কার দেখা গেল। প্রস্রাবের জায়গায় টিস্যু পড়ে আছে। ময়লা জমে দুর্গন্ধ সৃষ্টি করেছে। টিস্যু ও সাবান সরবরাহ করা হয় কি না জানতে চাইলে দায়িত্বে থাকা ব্যক্তি বলেন, ‘হ্যাঁ করা হয়। কিন্তু ভেতরে গিয়ে টিস্যু বা সাবানের অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি।’ নিউমার্কেটসহ ৫ মার্কেটের গণশৌচাগারগুলো বেহাল
কেন এমন বেহাল, জানতে চাইলে বনলতা নিউমার্কেটের দোকান মালিক সমিতির প্রচার সম্পাদক হাজী মো. রতন পাটওয়ারী বলেন, ‘দ্বিতীয় তলার শৌচাগারটি সংস্কার করে চালু করতে হবে। ওটা ব্যবহার করলে পাইপ বেয়ে ময়লা বাইরে আসে। আগে এই শৌচাগারটি লিজ ছিল। গত মাসে আমাদের দোকান মালিক সমিতি হাতে পেয়েছে।’

সামনে কমিটির নির্বাচন। নির্বাচনের পর নতুন কমিটি এটা ঠিক করবে বলে আশা করেন হাজী মো. রতন পাটওয়ারী।

/এনএআর/
টাইমলাইন: নাগরিক শৌচাগার চিত্র
২৫ জানুয়ারি ২০২৩, ১০:০০
নিউমার্কেটসহ ৫ মার্কেটের গণশৌচাগারগুলো বেহাল
২০ জানুয়ারি ২০২৩, ১০:০১
সর্বশেষ খবর
ভারতে ভিসা জটিলতার সমাধান হয়েছে খাজার
ভারতে ভিসা জটিলতার সমাধান হয়েছে খাজার
‘জাতীয় নেতা’র সংজ্ঞা ও বইমেলায় ‘আদর্শিক’ দ্বন্দ্ব
‘জাতীয় নেতা’র সংজ্ঞা ও বইমেলায় ‘আদর্শিক’ দ্বন্দ্ব
সালিশ চলাকালে ঘরে ঢুকে নারীর বিষপান
সালিশ চলাকালে ঘরে ঢুকে নারীর বিষপান
চীনের প্রতি দেশের উত্তরাঞ্চলে কৃষিভিত্তিক ইন্ডাস্ট্রি স্থাপনের আহ্বান
রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে বাণিজ্যমন্ত্রীর মতবিনিময়চীনের প্রতি দেশের উত্তরাঞ্চলে কৃষিভিত্তিক ইন্ডাস্ট্রি স্থাপনের আহ্বান
সর্বাধিক পঠিত
বগুড়া-৪ আসনের উপনির্বাচনে ৬৩ কেন্দ্রে এগিয়ে হিরো আলম
বগুড়া-৪ আসনের উপনির্বাচনে ৬৩ কেন্দ্রে এগিয়ে হিরো আলম
২৮ হাজার টাকা বেতনে চাকরি দিচ্ছে ইস্টার্ন ব্যাংক
২৮ হাজার টাকা বেতনে চাকরি দিচ্ছে ইস্টার্ন ব্যাংক
‘এবারের জয় ছিল স্মরণকালের, সরকারের প্রতি সমর্থন থাকবে’
‘এবারের জয় ছিল স্মরণকালের, সরকারের প্রতি সমর্থন থাকবে’
বগুড়া-৬ আসনের উপনির্বাচনে ১৩২ কেন্দ্রে এগিয়ে নৌকার প্রার্থী, হিরো আলম তৃতীয়
বগুড়া-৬ আসনের উপনির্বাচনে ১৩২ কেন্দ্রে এগিয়ে নৌকার প্রার্থী, হিরো আলম তৃতীয়
সংসদ থেকে পদত্যাগ করে আবারও এমপি হলেন সাত্তার ভূঁইয়া
ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনে উপনির্বাচনসংসদ থেকে পদত্যাগ করে আবারও এমপি হলেন সাত্তার ভূঁইয়া