X
মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪
৪ আষাঢ় ১৪৩১

সেন্টমার্টিন-শাহপরীর দ্বীপে উড়ে গেছে বাড়িঘর, ভেঙেছে গাছপালা

টেকনাফ প্রতিনিধি
২৭ মে ২০২৪, ২০:১৬আপডেট : ২৭ মে ২০২৪, ২০:১৬

ঘূর্ণিঝড় রিমালের প্রভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সেন্টমার্টিন ও টেকনাফ উপকূলীয় কয়েকটি এলাকা। এরই মধ্যে টেকনাফ উপজেলার শাহপরীর দ্বীপ ও সেন্টমার্টিন দ্বীপের ৫০০ বাড়িঘর উড়ে গেছে। ভেঙে গেছে গাছপালা। সমুদ্রের পানির উচ্চতা বৃদ্ধির কারণে দ্বীপের চারপাশে ভাঙন ধরেছে। এ ছাড়া শাহপরীর দ্বীপে পশ্চিম বাঁধের দেড় কিলোমিটার ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

সোমবার (২৭ মে) দুপুরে রবিবার এসব তথ্য জানিয়ে সেন্টমার্টিন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মুজিবুর রহমান। তিনি বলেন, ‘ঘূর্ণিঝড় রিমালের প্রভাবে সমুদ্রে পানির উচ্চতা বৃদ্ধির কারণে দ্বীপের ডেইলপাড়া, পশ্চিমপাড়া, দক্ষিণপাড়া, পূর্বপাড়ার কিছু অংশ সমুদ্রে তলিয়ে গেছে। এ ছাড়া দেড়শ ঘরবাড়িসহ বিপুল পরিমাণ গাছপালা ভেঙে গেছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘কিছু ঘরবাড়ি পুরোপুরি এবং কিছু আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এ ছাড়া ১৫ মাছ ধরার ট্রলার ভেঙে গেছে। এখনও বাতাস বইছে। কোথাও কোথাও গাছপালা ও কাঁচা বাড়িঘর ভেঙে গেছে। তবে জলোচ্ছ্বাস হয়নি। তবে সকালে বৃষ্টি কমলেও বাতাসের গতি বেড়েছে।’

দ্বীপের বাসিন্দারা জানান, ঘুর্ণিঝড়ের প্রভাবে গত দুই দিনে বৃষ্টি ও সমুদ্রের স্রোতে দ্বীপের কোনারপাড়া, পশ্চিমপাড়া, দক্ষিণপাড়া ও উত্তরপাড়ায় ভাঙন ধরেছে। এতে দ্বীপের বসতি, কেয়াবাগান, নারিকেলবাগান ও নিশিন্দাবাগানের গাছগাছালি ভেঙে পড়ে গেছে। এ ছাড়া দ্বীপের তীরে গড়ে ওঠা হোটেল-মোটেলের অংশে ভাঙন ধরেছে। এ কারণে জরুরিভিত্তিতে দ্বীপ রক্ষার দাবি জানিয়েছেন সেখানকার বাসিন্দারা।

স্থানীয় ইউপি সদস্য (মেম্বার) মোহাম্মদ নোমান বলেন, ‘সমুদ্রে পানির উচ্চতা বৃদ্ধির কারণে দ্বীপের কয়েকটি অংশে ব্যাপক ভাঙন ধরেছে। স্মরণকালের ভয়াবহ ভাঙন এটি। তা ছাড়া ২০০ বছর আগে এ দ্বীপে বাসিন্দা ছিল মাত্র ১৩ জন। বর্তমানে ৯ হাজারের বেশি মানুষ এখানে বসবাস করছেন। তার ওপরে গড়ে উঠেছে অবৈধ হোটেল-মোটেল। দ্বীপ নিচের দিকে দেবে সমুদ্রের স্রোতে ভেঙে যাচ্ছে। এই দ্বীপকে রক্ষা করতে হলে জরুরিভিত্তিতে চারদিকে বাঁধের কোনও বিকল্প নেই। এ ছাড়া বৃষ্টি ও বাতাসে বেশ কিছু ঘরবাড়ি ও গাছপালা ভেঙে গেছে।’

এদিকে সাবরাংয়ে ঘরবাড়ির চেয়ে লবণচাষিদের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন ইউপি চেয়ারম্যান নুর হোসেন। তিনি বলেন, ‘ঘূর্ণিঝড় রিমালের প্রভাবে শাহপরীর দ্বীপের পশ্চিমের বেড়িবাঁধের একটি অংশ ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। আমার এলাকায় সব মিলিয়ে তিনশ ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এ ছাড়া বিপুল পরিমাণ সুপারি গাছ ভেঙে গেছে।’

জানতে চাইলে টেকনাফ উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) সৈয়দ সাফকাত আলী বলেন, ‘সকাল থেকে বৃষ্টি কমলেও এখনও বাতাস বইছে টেকনাফ উপজেলায়। এতে সেন্টমার্টিন-শাহপরীর দ্বীপের ঘরবাড়ি ও গাছপালা ভেঙে যাওয়ার খবর পেয়েছি। আমরা কোন কোন এলাকায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, সেগুলোর তথ্য সংগ্রহ করছি। এ ছাড়া চিংড়িঘের ও লবণচাষিরা ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন।’

/কেএইচটি/
টাইমলাইন: ঘূর্ণিঝড় রিমাল
সম্পর্কিত
এখনও তাজা রিমালের ক্ষত, ঈদ আনন্দ ছোঁবে না তাদের
সেন্টমার্টিন নিয়ে গুজবে কান না দেওয়ার অনুরোধ আইএসপিআরের
সেন্টমার্টিন ইস্যুতে মির্জা ফখরুলের বক্তব্য দায়িত্বজ্ঞানহীন: ওবায়দুল কাদের
সর্বশেষ খবর
ডিএসসিসির ৬ হাট ও সব ওয়ার্ড থেকে কোরবানির বর্জ্য অপসারণের দাবি
ডিএসসিসির ৬ হাট ও সব ওয়ার্ড থেকে কোরবানির বর্জ্য অপসারণের দাবি
আত্মঘাতী গোলে জিতলো ফ্রান্স
এমবাপ্পের নাক দিয়ে রক্ত ঝরলোআত্মঘাতী গোলে জিতলো ফ্রান্স
ঈদের দ্বিতীয় দিনে যতো সংগীতানুষ্ঠান
ঈদের দ্বিতীয় দিনে যতো সংগীতানুষ্ঠান
ফার্গুসনের ইতিহাস, শেষটা জয়ে রাঙালো নিউজিল্যান্ড
ফার্গুসনের ইতিহাস, শেষটা জয়ে রাঙালো নিউজিল্যান্ড
সর্বাধিক পঠিত
জাপান যাওয়ার পথে নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীর বিমান ভেঙে পড়েছে
জাপান যাওয়ার পথে নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীর বিমান ভেঙে পড়েছে
সুপার এইটে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ কারা, ম্যাচ কবে?
সুপার এইটে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ কারা, ম্যাচ কবে?
৩ লাখ মুসল্লি নিয়ে গোর-এ শহীদ ময়দানে ঈদ জামাত
৩ লাখ মুসল্লি নিয়ে গোর-এ শহীদ ময়দানে ঈদ জামাত
চাষির গোয়াল থেকে ব্যাংকারের ঘরে, লালবাবুর কোরবানি যাত্রা
চাষির গোয়াল থেকে ব্যাংকারের ঘরে, লালবাবুর কোরবানি যাত্রা
মাংস কেনা-বেচার ঈদ মোহাম্মদপুরে
মাংস কেনা-বেচার ঈদ মোহাম্মদপুরে