X
সোমবার, ২৭ জুন ২০২২
১৩ আষাঢ় ১৪২৯

সীতাকুণ্ডে আগুন: হতাহতদের সবাই কি ক্ষতিপূরণ পেলেন?

আপডেট : ২৪ জুন ২০২২, ১৫:৩০

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে বিএম কনটেইনার ডিপোতে অগ্নিকাণ্ড ও বিস্ফোরণের ঘটনায় নিহত ও আহতদের ক্ষতিপূরণের টাকা পাওয়া নিয়ে অসন্তোষ দেখা দিয়েছে। আহতদের স্বজনরা বলছেন, যারা বিএম ডিপোর কর্মী নন তাদের ক্ষতিপূরণ দেওয়া হচ্ছে না। এদিকে ক্ষতিপূরণ নিয়ে কাজ করেন যারা তারা বলছেন, যাদের কারণে ঘটনা ঘটেছে তাদের উচিত প্রত্যেককে ক্ষতিপূরণ দেওয়া।

গত ২০ জুন হতাহতদের মধ্যে ৬৯ জনকে তিন ক্যাটাগরিতে ক্ষতিপূরণ দিয়েছে ডিপো কর্তৃপক্ষ। এর মধ্যে ৩১ জনই বিএম কনটেইনার ডিপোর কমকর্তা-কর্মচারী, ফায়ার সার্ভিসের ২৬ জন এবং অন্যান্য ৮ জন রয়েছেন। বাকিদের মধ্যে মৃত ২০ জনের ক্ষতিপূরণ লাশ শনাক্তকরণের জন্য ডিএনএ পরীক্ষা জটিলতায় আটকে আছে। আরও ২৮ জনকে ক্ষতিপূরণের টাকা দেওয়া হবে জানালেও তার কোনও সুনির্দিষ্ট তথ্য নিশ্চিত করতে পারেনি বিএম ডিপো কর্তৃপক্ষ।

গত ৪ জুন রাত সাড়ে ৯টার দিকে ডিপোটিতে প্রথমে আগুন এবং পরে দফায় দফায় বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। রাসায়নিক দ্রব্য রাখা কনটেইনারগুলো বিস্ফোরণের কারণে সেখানে ভয়াবহ পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়। এতে এখন পর্যন্ত ৪১ জন মানুষের মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে। এখনও ঢাকা ও চট্টগ্রামের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন কমপক্ষে ২৮ জন।

সবশেষ বুধবার (২২ জুন) ঢাকার শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন থাকা আরও ২ জনকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়। এ নিয়ে প্রতিষ্ঠানটি থেকে ছাড়া পেলেন মোট ৮ জন। এখনও ১৩ জন চিকিৎসাধীন রয়েছেন বার্ন ইনস্টিটিউটে, যার মধ্যে অধিকাংশই ক্ষতিপূরণের টাকা এখনো পাননি বলে অভিযোগ করেছেন বাংলা ট্রিবিউনের কাছে।

রোগীর স্বজনদের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, ১৩ জনের মধ্যে বিএম ডিপোর দুই জন আহত হিসেবে ক্ষতিপূরণের ৪ লাখ করে টাকা পেয়েছেন। তারা হলেন- উপ-মহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম) নুরুল আক্তার ও কর্মচারী মইনুল হক। বাকিদের পরিবার বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) পর্যন্ত ক্ষতিপূরণের টাকা পায়নি বলে জানিয়েছে।

বার্ন ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন বদরুজ্জামান রুবেলের ভাই শাহিন ইসলাম, মহিব্বুল্লাহর স্ত্রী আরজু, সজিবের স্ত্রী মিথিলা এবং ফায়ার সার্ভিসকর্মী রবিনের শ্বশুর হানিফ জানান, তারা এখনও ক্ষতিপূরণের টাকা পাননি। এমনকি বিষয়টি নিয়ে রবিন ছাড়া অন্য রোগীদের সঙ্গে ডিপো কর্তৃপক্ষ কোনও ধরনের যোগাযোগ করেনি বলেও অভিযোগ করা হয়েছে।

বিষয়টি নিয়ে জানতে চাইলে বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) বিএম ডিপোর মালিকপক্ষ স্মার্ট গ্রুপের মহাব্যবস্থাপক (জিএম) মেজর (অব.) শামসুল হায়দার সিদ্দিকী বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, ফায়ার সার্ভিস ও ডিপোর হতাহত লোকজনের নথিপত্র থাকায় তাদের ক্ষতিপূরণ দেওয়া হয়েছে। বাকি চিকিৎসাধীন দগ্ধ বা আহতদের ক্ষেত্রে নথিপত্র যাচাই করা হচ্ছে। ডিপোতে প্রবেশের নথি দেখে সেটি নিশ্চিত করা গেলে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে।

তিনি জানান, প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী এখন পর্যন্ত দগ্ধ ৬৯ জনকে ৫ কোটি ৬৭ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়া হয়েছে। গত ২০ জুন চট্টগ্রাম সার্কিট হাউসে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে এই টাকা হতাহতদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়। ডিএনএ পরীক্ষার মাধ্যমে পরিচয় শনাক্ত না হওয়ায় ক্ষতিপূরণের প্রকৃত দাবিদার চিহ্নিত করা যায়নি মৃত ২০ জনের ক্ষেত্রে। তা থেকে ফায়ার সার্ভিসের তিনজন বাদে ১৭ জনকে এখনও ক্ষতিপূরণ দেওয়া সম্ভব হয়নি। একজনের দুই স্ত্রী দাবিদার এবং আরেকজনের নামে ভুল থাকায় টাকা দেওয়া যায়নি। আরও ২৮ জনকে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে, সেই তালিকা এখনও চূড়ান্ত হয়নি। এখনও বার্ন ইনস্টিটিউটে ১৩ জন, চট্টগ্রাম মেডিক্যালে ১১ জন, আরেকটি হাসপাতালে ২ জন চিকিৎসাধীন থাকার বিষয়টি আমারা অবহিত রয়েছি।

শামসুল হায়দার সিদ্দিকী জানান, তিন ক্যাটাগরিতে ক্ষতিপূরণপ্রাপ্তদের ক্ষেত্রে মৃত ২৬ জনের মধ্যে ফায়ার সার্ভিসের ১৩ জনকে ১৫ লাখ করে, বিএম ডিপোর ৯ জন ও অন্যান্য ৪ জনকে ১০ লাখ করে টাকা দেওয়া হয়। অঙ্গহানি হওয়া ১৫ জনের মধ্যে ফায়ার সার্ভিসের ৯ জনকে ১০ লাখ করে, বিএম ডিপোর ৩ জন ও অন্যান্য ৩ জনকে ৬ লাখ করে টাকা দেওয়া হয়েছে। দগ্ধ বা আহত ২৩ জনের মধ্যে ফায়ার সার্ভিসের ৪ জন, বিএম ডিপোর ১৯ জন ও অন্য একজনকে ৪ লাখ করে টাকা দেওয়া হয়।

এখন পর্যন্ত যে ৬৯ জনকে ক্ষতিপূরণের টাকা দেওয়ার কথা জানানো হয়েছে, তার মধ্যে ফায়ার সার্ভিসের ২৬ জন, বিএম ডিপোর ৩১ জন এবং অন্যান্য ৮ জন রয়েছেন। ঘটনার ১৮ দিন পেরিয়ে গেলেও বিএম ডিপোর কর্মকর্তা-কর্মচারী ছাড়া অন্য অনেক দগ্ধের স্বজনদের ক্ষতিপূরণের টাকা না পাওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করতে দেখা গেছে।

শ্রমিক নেতা শহিদুল ইসলাম বলেন, আগুনের কারণে যারা আহত তাদের প্রত্যেকের চিকিৎসা ও ক্ষতিপূরণের দায়িত্ব ডিপো মালিকদের নিতে হবে। ক্ষতিপূরণ মানে থোক বরাদ্দ না, তারা সারাজীবন সক্ষম থাকলে যে পরিমাণ আয় করতেন সে পরিমাণ অর্থ হিসেব করে তাদের অবশ্যই দিতে হবে।

/এমএস/
টাইমলাইন: সীতাকুণ্ডে কনটেইনার ডিপোতে অগ্নিকাণ্ড
২৪ জুন ২০২২, ১৩:০০
সীতাকুণ্ডে আগুন: হতাহতদের সবাই কি ক্ষতিপূরণ পেলেন?
১০ জুন ২০২২, ০৯:০০
০৯ জুন ২০২২, ১৩:৪৩
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
যে ৮ ফল ও সবজি খেলে পাবেন উজ্জ্বল ত্বক
যে ৮ ফল ও সবজি খেলে পাবেন উজ্জ্বল ত্বক
আয়ারল্যান্ডের ঠাণ্ডা কন্ডিশনে ভুগছেন চাহাল!
আয়ারল্যান্ডের ঠাণ্ডা কন্ডিশনে ভুগছেন চাহাল!
রাজধানীতে জুতার কারখানায় আগুন
রাজধানীতে জুতার কারখানায় আগুন
বন্যার্তদের জন্য কনসার্ট
বন্যার্তদের জন্য কনসার্ট
এ বিভাগের সর্বশেষ
সীতাকুণ্ডে ১৬০০ গ্যাস সিলিন্ডারসহ গ্রেফতার ৩
সীতাকুণ্ডে ১৬০০ গ্যাস সিলিন্ডারসহ গ্রেফতার ৩
সীতাকুণ্ডে বিস্ফোরণ: হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেলেন যারা
সীতাকুণ্ডে বিস্ফোরণ: হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেলেন যারা
সীতাকুণ্ডে আগুন: হতাহত শ্রমিকদের ক্ষতিপূরণের দাবি
সীতাকুণ্ডে আগুন: হতাহত শ্রমিকদের ক্ষতিপূরণের দাবি
সীতাকুণ্ডে আগুন: বার্ন ইনস্টিটিউট থেকে ছাড়া পেলেন ৬ জন
সীতাকুণ্ডে আগুন: বার্ন ইনস্টিটিউট থেকে ছাড়া পেলেন ৬ জন
সীতাকুণ্ডে আগুন: মামলার ১০ দিনেও গ্রেফতার হয়নি কেউ 
সীতাকুণ্ডে আগুন: মামলার ১০ দিনেও গ্রেফতার হয়নি কেউ