X
শনিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২২
২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

সীতাকুণ্ডে আগুন: তদন্ত শেষ হবে কবে?

নাসির উদ্দিন রকি, চট্টগ্রাম
১৩ জুন ২০২২, ১৩:০০আপডেট : ১৩ জুন ২০২২, ১৩:০০

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে বিএম কনটেইনার ডিপোতে আগুন ও বিস্ফোরণের ঘটনা তদন্তে ছয়টি কমিটি গঠন করা হয়। প্রত্যেক কমিটি ইতোমধ্যে ঘটনাস্থল পরিদর্শন ও নমুনা সংগ্রহ করেছে। তবে সোমবার (১৩ জুন) দুপুর পর্যন্ত একটি কমিটিও প্রতিবেদন জমা দেয়নি। 

চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনারের পক্ষ থেকে আগুন ও বিস্ফোরণের ঘটনা তদন্তে ৯ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়। অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন) মোহাম্মদ মিজানুর রহমানকে আহ্বায়ক ও অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সুমনী আক্তারকে সদস্য সচিব করে গঠন করা এই কমিটিকে পাঁচ কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দেওয়ার কথা। 

কমিটির আহ্বায়ক অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন) মোহাম্মদ মিজানুর রহমান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। তদন্তের কাজে আরও পাঁচ কর্মদিবস সময় চেয়ে রবিবার (১২ জুন) দুপুরে বিভাগীয় কমিশনারের কাছে আবেদন করা হয়েছে। আশা করছি এই সময়ের মধ্যে প্রতিবেদন দেওয়া যাবে।’

কমিটির সদস্য পরিবেশ অধিদফতর চট্টগ্রাম অঞ্চলের পরিচালক মুফিদুল আলম বলেন, ‘কমিটির সদস্যরা ইতোমধ্যে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। ঘটনাস্থল থেকে বেশকিছু নমুনা সংগ্রহ করা হয়। জানতে চেষ্টা করছি, ঠিক কী কারণে এই দুর্ঘটনা ঘটেছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘বিএম কনটেইনার ডিপো গার্মেন্ট সামগ্রী ও পোলট্রি ফিড রাখার কথা বলে ছাড়পত্র নিয়েছিল। তাদের ছাড়পত্রের ধরন গ্রিন-বি। রাসায়নিক রাখার কথা আবেদনে উল্লেখ করেনি তারা। পরিদর্শনে দেখা গেছে, তারা ডিপোতে রাসায়নিকও রেখেছিল। তবে কী কী রাসায়নিক ডিপোতে রাখা ছিল, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’

এদিকে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ৯ সদস্যের তদন্ত কমিটি করা হয়। কমিটির আহ্বায়ক জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক বদিউল আলম। এই কমিটিকে প্রতিবেদন জমা দিতে সাত দিন সময় দেওয়া হয়েছে। 

বদিউল আলম জানান, কমিটির সদস্যরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। কাজ চলমান আছে। তদন্ত কাজ শেষ হলেই প্রতিবেদন জমা দেওয়া হবে। 

চট্টগ্রাম কাস্টমসের পক্ষ থেকে গঠিত পাঁচ সদস্যের কমিটির প্রধান অতিরিক্ত কমিশনার শফিউদ্দিন। সাত কার্যদিবসের মধ্যে এই কমিটিকে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে। কমিটির কাজ চলমান রয়েছে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন। 

এদিকে কাস্টমসের এক কর্মকর্তা বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আইসিডি পরিচালনা করতে হলে আইএসপিএস (ইন্টারন্যাশনাল শিপ অ্যান্ড পোর্ট ফ্যাসিলিটি সিকিউরিটি কোড), আইএমডিজি (দ্য ইন্টারন্যাশনাল ম্যারিটাইম ডেঞ্জারাস কোড) মেনে এবং ফায়ার সার্ভিস নির্দেশিত সেফটি সিকিউরিটি প্ল্যান্ট স্থাপন করতে হয়। কিন্তু ওই ডিপোতে এসব কিছুই ছিল না।’

কাস্টম হাউস সূত্র জানায়, সীতাকুণ্ডের বিএম কনটেইনার ডিপোতে ৩৩টি কনটেইনারে ৮৫০ মেট্রিক টন হাইড্রোজেন পার-অক্সাইড ছিল। কনটেইনারগুলো ডিপোর ইয়ার্ডে রাখা ছিল। 

বন্দর কর্তৃপক্ষের অধীন বেসরকারি এই কনটেইনার ডিপোতে আগুন লাগার ঘটনায় বন্দর কর্তৃপক্ষ তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করে। চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের টার্মিনাল ম্যানেজার কুদরত-ই-খুদা, নির্বাহী পরিচালক ও চট্টগ্রাম কাস্টমস হাউজের উপ-কমিশনারকে নিয়ে গঠিত কমিটিকে তিন দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

কুদরত-ই-খুদা বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আমরা দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। তদন্তর কাজ চলছে। শেষ করতে আরও সময় লাগবে। তদন্ত প্রতিবেদন কবে জমা দেওয়া হবে তা নির্দিষ্ট করে বলা যাচ্ছে না।’ 

ফায়ার সার্ভিসের পক্ষ থেকে গঠিত কমিটির প্রধান পরিচালক (প্রশিক্ষণ,পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) লেফটেন্যান্ট কর্নেল মো. রেজাউল করিম। কমিটিতে সদস্য সচিব করা হয়েছে চট্টগ্রাম বিভাগের উপ-পরিচালক মো. আনিসুর রহমান। মোট সাত সদস্যের এই কমিটিকে পাঁচ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে। তবে এখনও প্রতিবেদন জমা দেয়নি। কবে জমা দেওয়া হবে তাও নির্দিষ্ট করে বলতে পারছেন না কমিটি সংশ্লিষ্টরা। 

এছাড়া ঘটনার পরদিন রবিবার (৫ জুন) রাতে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে বিএম কনটেইনার ডিপো কর্তৃপক্ষ জানায়, তারাও একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছেন। এই কোম্পানির মালিকানা স্মার্ট গ্রুপের। তাদের মহাব্যবস্থাপক (জিএম) মেজর (অব.) শামসুল হায়দার সিদ্দিকীর সই করা বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, তারা পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছেন। কমিটি কত দিনের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেবে, সে বিষয়ে কিছু বলা হয়নি। ঘটনা তদন্তে সরকারি বিভিন্ন সংস্থার তদন্ত কমিটিকে সহায়তার অঙ্গীকার করেছে স্মার্ট গ্রুপ। তবে ওই কমিটির প্রতিবেদনও এখন পর্যন্ত প্রকাশ হয়নি। 

প্রসঙ্গত, গত ৪ জুন রাত সাড়ে ৮টায় বিএম কনটেইনার ডিপোতে আগুন লাগে। এরপর রাত সাড়ে ১০টার দিকে বিস্ফোরণ ঘটে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত প্রাণ হারিয়েছেন ৪৮ জন। এর মধ্যে ১০ জন ফায়ার সার্ভিস কর্মী। আহত হয়েছেন দুই শতাধিক। তারা বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ৪৮ জনের মধ্যে ১৮টি লাশের পরিচয় শনাক্ত হয়নি। তাদের লাশের দাবিতে নমুনা দিয়েছেন স্বজনরা। 

ঘটনার চার দিন পর মঙ্গলবার রাতে মামলা করে পুলিশ। এতে আট জনের নাম উল্লেখ করা হয়। তারা সবাই বিএম কনটেইনার ডিপোর কর্মকর্তা। আগুন লাগার ৮৬ ঘণ্টা পর বুধবার সকালে নেভাতে সক্ষম হয় ফায়ার সার্ভিস, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী ও সামরিক বাহিনী।

/এসএইচ/
টাইমলাইন: সীতাকুণ্ডে কনটেইনার ডিপোতে অগ্নিকাণ্ড
১৩ জুন ২০২২, ১৩:০০
সীতাকুণ্ডে আগুন: তদন্ত শেষ হবে কবে?
১০ জুন ২০২২, ০৯:০০
০৯ জুন ২০২২, ১৩:৪৩
রাজধানীর আবাসিক হোটেল থেকে এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার
রাজধানীর আবাসিক হোটেল থেকে এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার
ইউক্রেন-রাশিয়ার যুদ্ধ নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যেতে পারে: ন্যাটো
ইউক্রেন-রাশিয়ার যুদ্ধ নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যেতে পারে: ন্যাটো
বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ রুহুল আমিন ও বীর বিক্রম শহীদ মহিবুল্লাহর শাহাদাতবার্ষিকী পালিত
বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ রুহুল আমিন ও বীর বিক্রম শহীদ মহিবুল্লাহর শাহাদাতবার্ষিকী পালিত
মোস্ট ইন্সপিরেশনাল ক্যাটাগরিতে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ
নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ-২০২২মোস্ট ইন্সপিরেশনাল ক্যাটাগরিতে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ
সর্বাধিক পঠিত
সমাবেশের আগে মির্জা ফখরুলের গ্রেফতারের হিসাব-নিকাশ
সমাবেশের আগে মির্জা ফখরুলের গ্রেফতারের হিসাব-নিকাশ
র‍্যাবের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারিতে লবিং করছেন জামায়াতের সেই ব্রিটিশ আইনজীবী
র‍্যাবের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারিতে লবিং করছেন জামায়াতের সেই ব্রিটিশ আইনজীবী
পৃথিবী থেকে মুছে ফেলার হুমকি পুতিনের
পৃথিবী থেকে মুছে ফেলার হুমকি পুতিনের
ঢাকার গণসমাবেশে মুন্সীগঞ্জ থেকে যোগ দেবেন ৩০ হাজার নেতাকর্মী 
বিএনপির দাবিঢাকার গণসমাবেশে মুন্সীগঞ্জ থেকে যোগ দেবেন ৩০ হাজার নেতাকর্মী 
বিএনপিকে এই শহর দিয়ে গেলাম, ঢাকায় আমরা কাল নাই: ওবায়দুল কাদের
বিএনপিকে এই শহর দিয়ে গেলাম, ঢাকায় আমরা কাল নাই: ওবায়দুল কাদের