X
বুধবার, ২৯ মে ২০২৪
১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

দোয়ারাবাজারে সংঘর্ষের ঘটনায় ২১৬ জনকে আসামি করে নৌকার সমর্থকের মামলা

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি
১২ জানুয়ারি ২০২৪, ১৫:২২আপডেট : ১২ জানুয়ারি ২০২৪, ১৫:২২

সুনামগঞ্জ-৫ (ছাতক-দোয়ারাবাজার) আসনের দোয়ারাজারে সংঘর্ষের ঘটনায় ৬৬ জনের নাম উল্লেখ করে ও অজ্ঞাত ১৫০ জনকে আসামি করে নৌকার সমর্থক বাবুল মিয়া বাদী দোয়ারাবাজার থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। শুক্রবার (১২ জানুয়ারি) সকালে দোয়ারাবাজার থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

দোয়ারাবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বদরুল হাসান মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘নৌকার প্রার্থী বর্তমান সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মানিকের সমর্থক পশ্চিম নৈনগাঁও গ্রামের আব্দুল খালিকের ছেলে বাবুল মিয়া বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন।’

গত ৭ জানুয়ারি দোয়ারাবাজার সরকারি মডেল উচ্চবিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রের বাইরে মুহিবুর রহমান মানিক নৌকার প্রার্থী ও স্বতন্ত্র ঈগল মার্কার প্রার্থী শামীম আহমদ চৌধুরীর সমর্থকদের মধ্যে ভোটারদের কেন্দ্রে উপস্থিত করা নিয়ে সংঘর্ষ হয়। এতে উভয়পক্ষের ৬ জন আহত হয়। এ ঘটনার জের ধরে ১০ জানুয়ারি সকালে দোয়ারাবাজার উপজেলার নৈনগাঁও ও মাছিমপুর গ্রামবাসী দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে উভয়পক্ষের ৭০ জন আহত হয়।

স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, সুনামগঞ্জ-৫ (ছাতক-দোয়ারাবাজার) আসনের দোয়ারাবাজার সরকারি মডেল উচ্চবিদ্যালয়ের পুরুষ ও মহিলা দুটি ভোটকেন্দ্রে প্রভাব বিস্তার নিয়ে নৌকার প্রার্থী মুহিবুর রহমান মানিক ও স্বতন্ত্র প্রার্থী শামীম আহমদ চৌধুরীর লোকজনের মধ্যে ভোট গ্রহণের কয়েক দিন আগে থেকেই উত্তেজনা ছিল। এক পক্ষ আরেক পক্ষকে প্রমাণ ছাড়াই হুমকি-ধমকি দিয়ে আসছিল। এসব নিয়ে উভয়পক্ষের লোকজন বিক্ষুব্ধ ছিলেন। দুটি কেন্দ্রের অবস্থান মাছিমপুর গ্রামের পাশে। মাছিমপুর গ্রামের বেশির ভাগ ভোটার শামীম আহমদ চৌধুরীর সমর্থক ও দিকে নৈনগাঁও গ্রামের বেশির ভাগ ভোটার নৌকার সমর্থক। ভোটকেন্দ্র থেকে নৈনগাঁও গ্রামের অবস্থান প্রায় দুই কিলোমিটার দূরে আর মাছিমপুর গ্রামের খুব কাছেই দোয়ারাবাজার শহর।

মাছিমপুর গ্রামের আমরু মিয়ার ছেলে শামীম আহমদের সমর্থক ও নৈনগাঁও গ্রামের জেলা পরিষদের সদস্য আব্দুল খালেকের ছেলে আবুল হোসেন নৌকার মার্কার সমর্থক। তার বাসা মাছিমপুর গ্রামের পাশে। ৯ জানুয়ারি মঙ্গলবার রাতে পূর্ব মাছিমপুরের আমরু মিয়ার ছেলে ঈগল মার্কার প্রার্থী শামীম আহমদের সঙ্গে পাশের নৈনগাঁও গ্রামের  নৌকার সমর্থক আবুল হোসেনের কথা কাটাকাটি হয়। এর জের ধরে আবুল হোসেনের সমর্থকরা শামীম আহমদের পূর্ব মাছিমপুরের বাড়িতে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। পরে দোয়ারাবাজার থানার পুলিশ উভয়পক্ষকে শান্ত করে মারমুখী অবস্থান থেকে সরিয়ে দেয়। পুলিশ উভয়পক্ষকে শান্ত করে সরিয়ে দিলেও পূর্ব মাছিমপুরের বাড়িতে ইটপাটকেল নিক্ষেপের জের থেকে যায়।

১০ জানুয়ারি সকালে শামীম আহমদ ও তার ভাই ইমরুল আহমদের নেতৃত্বে তাদের স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকরা দোয়ারাবাজার শহরের নৌকার সমর্থক আবুল হোসেনের বাসভবনে হামলা করে। বাসভবনে  হামলার খবর নৈনগাঁও গ্রামের লোকজনের মধে ছড়িয়ে পড়লে নৈনগাঁও গ্রামবাসী দেশীয় অস্ত্র নিয়ে পূর্ব মাছিমপুর ও পশ্চিম মাছিমপুর গ্রামবাসীর সঙ্গে তুমুল সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।  দোয়ারাবাজার থানা পুলিশ শুরুতে সংঘর্ষ থামানো চেষ্টা করে কিন্তু পুলিশের সংখ্যা কম থাকায় তা সম্ভব হয়নি।  পরে পার্শ্ববর্তী উপজেলা ছাতক ও সুনামগঞ্জ থেকে অতিরিক্ত পুলিশ ফোর্স গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। সংঘর্ষে উভয়পক্ষের ৭০ জন নারী পুরুষ আহত হয়েছেন।

আহতদের মধ্যে ৫৫ জন রাবার বুলেট বিদ্ধ হয়। সংঘর্ষ ঠেকাতে ১০০ রাউন্ড রাবার বুলেট কাঁদানে গ্যাস ছুড়ে সংঘর্ষস্থল থেকে পুলিশ ৯ জনকে আটক করে। মাছিমপুর গ্রামে দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার অভিযান চালিয়ে দুটি রামদা ও একটি তলোয়ার বেশ কিছু বাঁশের লাঠি  ও কাঠের রুল উদ্ধার করে। আড়াই ঘণ্টাব্যাপী চলা সংঘর্ষের কারণে দোয়ারাবাজার উপজেলার আজমপুর ও দোহালি খেয়াঘাটে নৌকা চলাচল নিরাপত্তার স্বার্থে বন্ধ করে দেওয়া হয়।

স্থানীয়রা জানান, ভোট গ্রহণের আগে থেকে উভয় গ্রুপের লোকজনের মধ্যে নীরব উত্তেজনা চলছিল। ভোটের দিন এই কেন্দ্রের বাইরে দুই পক্ষের সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের ৬ জন আহত হয়।

দোয়ারাবাজার উপজেলার আওয়ামী লীগ নেতা ও সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদ সদস্য খালেক মিয়া বলেন, ‘ভোটের আগের দিন পূর্ব ও পশ্চিম মাছিমপুরের নৌকা ও ঈগল মার্কার সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। আমার ছেলে নৌকা মার্কার সমর্থক। আমরা পশ্চিম মাছিমপুরের লোকজনকে বুঝিয়ে ভোটকেন্দ্রে নিয়ে আসি। মঙ্গলবার আবার পূর্ব মাছিমপুরের শামীম, ইমরুল, হুমায়ন ও ফয়েজসহ বেশ কয়েকজনের একটি সংঘবদ্ধ দল আবুল হোসেনর দোয়ারাবাজারের বাসার সামনে এসে মারামারি করার জন্য আহ্বান জানায়। এ ঘটনা নৈনগাঁও গ্রামের মানুষ জানতে পেরে তারা মাছিমপুর গ্রামের উদ্দেশে রওনা দেয়। পরে পুলিশ তাদের বিরত রাখে। ৭ জানুয়ারি সকালে আমার ছেলে আবুল হোসেনকে বাসায় এসে তারা হামলা করে। এ সময় আমার ভাই আশিক মিয়া ও ছেলে আবুল হোসেন ও জাবেদ আহত হয়। হামলার পর আবারও দুই গ্রামবাসী দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। পুলিশ রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ থামাতে উভয়পক্ষকে ছত্রভঙ্গ করতে রাবার বুলেট ছুড়ে। এতে ৪৫ জন আহত হয়। তাদের সিলেটের ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।’

পূর্ব মাছিমপুরের স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থক ইমরান আহমদ বলেন, ‘স্বতন্ত্র প্রার্থী শামীম আহমদ চৌধুরীকে মাছিমপুর গ্রামের মানুষ ভোট দেওয়ায় ভোটের পরের দিন থেকে নৌকার সমর্থক আবুল হোসেন হুমকি-ধমকি দেয়। আবুল হোসেনের লোকজন মঙ্গলবার রাতে মাছিমপুর গ্রামের বেশ কিছু বাড়িতে এসে ইটপাটকেল ছুড়ে ঘরবাড়ি ভাঙচুর করেছে। বুধবার সকালে এসে আবারও হামলা করেছে। আবুল হোসেনের লোকজনের হামলায় মাছিমপুর গ্রামের ৫০ জন আহত হয়েছেন।’

ঈগল প্রতীকের প্রার্থী সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক শামীম আহমদ চৌধুরী বলেন, ‘এমপি মানিকের সমর্থক আব্দুল খালেক ও তার ছেলে আবুল হাসেন মাছিমপুর গ্রামের আমার কর্মী সমর্থকদের বেধড়ক মারপিট করেছে। ভোটের দিন আবুল হোসেন ভোটকেন্দ্রে তালা মেরে দিতে চেয়েছিল। এ সময় ঈগল মার্কার কর্মীরা বাধা দেয়। এ নিয়ে উভয়পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। পরে মঙ্গলবার ও বুধবার রাতে মাছিমপুরে আমার কর্মী সমর্থকদের বাড়িতে হামলা করে আবুল হোসেনের লোকজন। আমরা মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছি।’

/কেএইচটি/
টাইমলাইন: দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন
১২ জানুয়ারি ২০২৪, ১৫:২২
দোয়ারাবাজারে সংঘর্ষের ঘটনায় ২১৬ জনকে আসামি করে নৌকার সমর্থকের মামলা
১১ জানুয়ারি ২০২৪, ১৯:৩২
১১ জানুয়ারি ২০২৪, ০৩:৩০
১১ জানুয়ারি ২০২৪, ০২:০৯
১০ জানুয়ারি ২০২৪, ২৩:২০
১০ জানুয়ারি ২০২৪, ২২:২৭
সম্পর্কিত
সাতক্ষীরায় নির্বাচনি সহিংসতা সৃষ্টির অভিযোগে আটক ৪
এমপি আনার হত্যার ঘটনায় আটক শিমুলের সহযোগী গ্রেফতার
দরিদ্র মানুষের অর্থ আত্মসাৎদারিদ্র্য বিমোচন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে দুদকের মামলা
সর্বশেষ খবর
উৎসবমুখর পরিবেশে নির্বাচন হয়েছে: ওবায়দুল কাদের
উৎসবমুখর পরিবেশে নির্বাচন হয়েছে: ওবায়দুল কাদের
শেষ ম্যাচে মোরসালিনের দারুণ গোল
শেষ ম্যাচে মোরসালিনের দারুণ গোল
তাপপ্রবাহ স্বাস্থ্যব্যবস্থার ওপর মারাত্মক চাপ সৃষ্টি করছে: পরিবেশমন্ত্রী
তাপপ্রবাহ স্বাস্থ্যব্যবস্থার ওপর মারাত্মক চাপ সৃষ্টি করছে: পরিবেশমন্ত্রী
ধান বিক্রি করে ৯৬ হাজার টাকা পেলেন প্রধানমন্ত্রী
ধান বিক্রি করে ৯৬ হাজার টাকা পেলেন প্রধানমন্ত্রী
সর্বাধিক পঠিত
আরেক পুলিশ কর্মকর্তা ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে দুদকের মামলা
আরেক পুলিশ কর্মকর্তা ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে দুদকের মামলা
ট্রান্সকম গ্রুপের সিইও সিমিন রহমানসহ ৪ জনের রিমান্ড নামঞ্জুর
ট্রান্সকম গ্রুপের সিইও সিমিন রহমানসহ ৪ জনের রিমান্ড নামঞ্জুর
আ.লীগের ১১ এমপি খুন, বিদেশে প্রথম আনার
আ.লীগের ১১ এমপি খুন, বিদেশে প্রথম আনার
ব্যাংক বাড়ায় সুদ, টাকা যায় মানুষের পকেটে!
ব্যাংক বাড়ায় সুদ, টাকা যায় মানুষের পকেটে!
শান্তি সম্মেলনে বাইডেনের অনুপস্থিতিতে হাততালি দেবেন পুতিন: জেলেনস্কি
শান্তি সম্মেলনে বাইডেনের অনুপস্থিতিতে হাততালি দেবেন পুতিন: জেলেনস্কি