X
শনিবার, ২৯ জানুয়ারি ২০২২, ১৫ মাঘ ১৪২৮
সেকশনস

সেই তমালের বিরুদ্ধে ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে অভিযোগ দায়ের

আপডেট : ২৫ আগস্ট ২০২১, ২৩:০৮
image

আফগানিস্তান থেকে ফিরে আসা বহু ভারতীয় নাগরিক তালেবানের সন্ত্রাসের অভিজ্ঞতার বর্ণনা দিলেও ব্যতিক্রম তমাল ভট্টাচার্য। কাবুলে শিক্ষকতায় নিয়োজিত তমাল সম্প্রতি কলকাতার নিমতার বাড়িতে ফিরেছেন। পরে সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তালেবানের প্রশংসা শুনিয়েছেন তিনি। এনিয়ে অনেকে অবশ্য তার সমালোচনা করছেন। আবার প্রশংসাও করছেন অনেকে। এবার তমালের বিরুদ্ধে ভারতীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের গ্রিভ্যান্স সেলে লিখিত অভিযোগ করেছেন রাজ চৌধুরী নামের এক ব্যক্তি।

তালেবান সম্পর্কে নিজের অভিজ্ঞতা ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছেন শিক্ষক তমাল ভট্টাচার্য। তিনি জানান, কাবুল বিমানবন্দরে যাওয়ার পথে তালেবানরা আটকালেও তাদের সঙ্গে ভালো ব্যবহার করেছেন। একটি টিভি চ্যানেলে তমাল জানান, নিরাপত্তা প্রদানের পাশাপাশি তালেবান যোদ্ধারা তাদের খাবারও দিয়েছেন।

তমালের ওই বক্তব্যে সরব হয়ে উঠেছে ভারতের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহারকারীরা। ভারতীয়  নেটিজেনদের একটি অংশ প্রশ্ন তুলেছেন, তালেবান এতই যদি ভালো হয়, তাহলে তমাল দেশে ফেরার জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কাছে কাতর আবেদন জানিয়েছিলেন কেন?

সোস্যাল মিডিয়ায় সমালোচনার পাশাপাশি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের গ্রিভ্যান্স সেল-এ রাজ চৌধুরী নামে এক ব্যক্তি অভিযোগ করে বলেছেন, ‘সম্ভবত তালেবানরা তমাল ভট্টচার্যকে এখানে পাঠিয়েছে। তমালের আরেকটি ছবিও সোশ্যাল মিডিয়ায় দেখা গিয়েছে। সেখানে তালেবান জঙ্গিদের সঙ্গে ছবি তুলছেন তিনি। আমার অনুরোধ তমালের উপর যেন নজর রাখা হয়।’

তমালের এই ভূমিকার সরব হয়েছেন ভারতে আশ্রয় নেওয়া সাহিত্যিক তসলিমা নাসরিন। তিনি প্রশ্ন তুলেছেন, ‘ইংরেজিতে একটি প্রবাদ আছে, 'পুট ইয়রসেলফ ইন মাই সুজ।' তোমার সঙ্গে ভালো ব্যবহার করেছে বলে তালেবান ভালো? তারা অন্যের সঙ্গে কী ব্যবহার করছে তা দেখে তো তাদের সম্পর্কে রায় দিতে হবে! আফগান মেয়েরা যদি বলে আমার জায়গায় দাঁড়িয়ে তালেবানের সম্পর্কে মন্তব্য করো, তাহলে? তমাল যদি বাঙালি বাবু না হয়ে কোনও স্বাধীনচেতা আফগান মেয়ে হতেন, যে মেয়ে বোরখা বা হিজাবের শৃঙ্খল পছন্দ করেন না, তমাল ভট্টাচার্যের মতোই আন্তর্জাতিক স্কুলে শিক্ষকতা করতে চান, স্বর্নিভর হতে চান, তাহলে?’

পদ্মশ্রী প্রাওয়া শিক্ষক কাজি মাসুম আখতারের মতে, তমালের সঙ্গে তালেবানের ব্যবহার কখনোই সামগ্রীক আফগানিস্তানের চিত্র নয়। তিনি বলেন, ‘তালেবানরা বিশ্বে জুড়ে স্বীকৃতি চাইছে বলেই ভারতীয়দের প্রতি নরম মনোভাব দেখাচ্ছে। তালেবানের বড় অংশটাই পাকিস্তানপন্থী জঙ্গি।’

সেক্যুলার মিশনের সম্পাদক ওসমান মল্লিক বলেন, ‘আমি সর্বোতভাবে মনে করি তমাল মিথ্যে বলছেন। হতে পারে তার উপরে কোনো নির্যাতন হয়নি। কিন্তু হাজার হাজার মানুষের উপর তালেবান অত্যাচার নামিয়ে আনছে। তারা নিজেরাই বলছে তারা গণতন্ত্র মানে না। এই কয়েক দিন আগেই ভারতীয় সাংবাদিক দানিশকে তারা নৃশংস ভাবে হত্যা করেছে।’

উল্লেখ্য, ভারতে তালেবানের প্রশংসা করায় ইতোমধ্যে আসামে ১৬ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এছাড়াও উত্তর প্রদেশের উর্দু কবি মুনাব্বর রানার বিরুদ্ধে একাধিক রাজ্যে অভিযোগ দায়ের হয়েছে। মুনাব্বর রানা তালেবানকে ‘মহর্ষি বাল্মীকির’ সঙ্গে তুলনা করে বিতর্কে জড়িয়েছেন। পাশাপাশি উত্তর প্রদেশের সাংসদ শফিকুর রহমান বার্কের বিরুদ্ধেও অভিযোগ দায়ের হয়েছে। তিনি তালেবানের লড়াইকে ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামের সঙ্গে তুলনা করেন।

/জেজে/
টাইমলাইন: আফগানিস্তান সংকট
০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ১৬:১৫
২০ অক্টোবর ২০২১, ১২:৫৯
০৫ অক্টোবর ২০২১, ২০:১০
সম্পর্কিত
পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপালের বিরুদ্ধে নিন্দা প্রস্তাব আনছে তৃণমূল
পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপালের বিরুদ্ধে নিন্দা প্রস্তাব আনছে তৃণমূল
ভারতে ট্রায়ালের ছাড়পত্র পেলো নাক দিয়ে নেওয়ার করোনা টিকা
ভারতে ট্রায়ালের ছাড়পত্র পেলো নাক দিয়ে নেওয়ার করোনা টিকা
সংকটাপন্ন অবস্থায় কিংবদন্তি সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়
সংকটাপন্ন অবস্থায় কিংবদন্তি সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়
উত্তর প্রদেশের নির্বাচনে মথুরা কেন গুরুত্বপূর্ণ?
উত্তর প্রদেশের নির্বাচনে মথুরা কেন গুরুত্বপূর্ণ?
সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপালের বিরুদ্ধে নিন্দা প্রস্তাব আনছে তৃণমূল
পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপালের বিরুদ্ধে নিন্দা প্রস্তাব আনছে তৃণমূল
ভারতে ট্রায়ালের ছাড়পত্র পেলো নাক দিয়ে নেওয়ার করোনা টিকা
ভারতে ট্রায়ালের ছাড়পত্র পেলো নাক দিয়ে নেওয়ার করোনা টিকা
সংকটাপন্ন অবস্থায় কিংবদন্তি সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়
সংকটাপন্ন অবস্থায় কিংবদন্তি সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়
উত্তর প্রদেশের নির্বাচনে মথুরা কেন গুরুত্বপূর্ণ?
উত্তর প্রদেশের নির্বাচনে মথুরা কেন গুরুত্বপূর্ণ?
পাচারের শিকার হয়েছিলেন ঠান্ডায় মারা যাওয়া ভারতীয় পরিবার
পাচারের শিকার হয়েছিলেন ঠান্ডায় মারা যাওয়া ভারতীয় পরিবার
© 2022 Bangla Tribune